ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

এ বছর আর খেলা হচ্ছে না মুস্তাফিজের

প্রকাশিত: ০৬:৩২, ৩০ জুলাই ২০১৬

এ বছর আর খেলা হচ্ছে না মুস্তাফিজের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের পেস বিস্ময় মুস্তাফিজুর রহমানের ইনজুরি রিপোর্ট যাচাই বাছাইয়ের জন্য পাঠানো হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে। বাংলাদেশ দলের ক্ষুদ্র পরিসরের ক্রিকেট অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, পেসার শাহাদাত হোসেনসহ বিশ্বের অনেক বড় বড় ক্রিকেটারের অস্ত্রোপচার করেছেন যে শৈল্যবিদ তার কাছে পাঠানো হয়েছে রিপোর্ট ভালভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) মুস্তাফিজের বিষয়টি পুরোপুরি নিশ্চিত হয়ে এরপরই অস্ত্রোপচারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি। শুক্রবার এমনটাই জানা গেছে বিসিবির বিশ্বস্ত সূত্রে। ইনজুরির কারণে অস্ত্রোপচার করানো হলে এ বছর আর খেলা হবে না মুস্তাফিজের। সেক্ষেত্রে তিনি অক্টোবরে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরোয়া সিরিজ, ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ড সফরে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ, ১৬ নবেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সম্ভাব্য বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি২০ খেলা হবে না তার। এমনকি আগামী বছর ফেব্রুয়ারিতে ভারত সফরের সিরিজও মিস করতে পারেন তিনি। এর আগে বাংলাদেশের সেরা ক্রিকেটারদের ইনজুরির চিকিৎসার অধিকাংশই করানো হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে। যে শৈল্যবিদ বাংলাদেশের ওয়ানডে ও টি২০ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার অস্ত্রোপচার করেছিলেন এখন তার সঙ্গেই সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছে বিসিবি। তার কাছে পাঠানো হয়েছে মুস্তাফিজের ইনজুরি অবস্থার সবগুলো রিপোর্ট। বিসিবির বিশ্বস্ত সূত্র নিশ্চিত করেছে মেলবোর্নের শৈল্যবিদের কাছে ইতোমধ্যেই মুস্তাফিজের রিপোর্টগুলো পাঠানো হয়েছে এবং সেখান থেকে জানানোর পরই বিসিবি সিদ্ধান্ত নেবে যত দ্রুত সম্ভব। এ বিষয়ে বিসিবির সেই সূত্র জানিয়েছে, ‘টেস্টের যে ফলাফল আসছে সেটা আমরা বিভিন্ন জায়গায় যাচাইয়ের জন্য পাঠিয়েছি। আরও দু’য়েকটি পরীক্ষা করিয়ে আমরা নিশ্চিত হয়েই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। আমরা আমাদের অধিকাংশ ক্রিকেটারেরই এ ধরনের ইনজুরির চিকিৎসা মেলবোর্নেই করিয়েছিলাম। আমরা চাইছি তাদের বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়েই এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে।’ বিসিবির এই সূত্র অবশ্য নিশ্চিত করে জানায়নি কতদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে বলা হয়েছে বিসিবি বেশি সময় নিতে চায় না এবং যত দ্রুত সম্ভব একটি পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্তে পৌঁছুতে সচেষ্ট আছে। অবশ্য বিসিবির ডাক্তাররাও মুস্তাফিজের ইনজুরি নিয়ে অন্য দেশের ডাক্তারদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে শুক্রবার বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানান, ২/১ দিনের মধ্যেই মুস্তাফিজের অস্ত্রোপচার কোথায় করানো হবে এবং কার কাছে সেই সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি। তিনি বলেন, ‘মুস্তাফিজের এমআরআই রিপোর্ট অনুযায়ী কাঁধের এই ইনজুরি পুরোপুরি নির্মূল করতে অস্ত্রোপচারের কোন বিকল্প নেই। তাই যত দ্রুত সম্ভব অস্ত্রোপচার করতে হবে। মুস্তাফিজের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে ইংল্যান্ডের পাশাপাশি কথা বলা হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার চিকিৎসকদের সঙ্গেও।’ চিকিৎসক দেবাশীষই জানালেন এ ধরনের অস্ত্রোপচারের পর সুস্থ হতে কতদিন সময় লাগতে পারে। তিনি বলেন, ‘এই ধরনের ইনজুরি সারতে কমপক্ষে ৫ মাস সময় লাগে। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলে আমরা জেনেছি ৫ মাসের মধ্যেই খেলার মতো ফিট হয়ে যাবে মুস্তাফিজ।’ অর্থাৎ এ বছর আর খেলাই হচ্ছে না মুস্তাফিজের এটা একেবারেই নিশ্চিত। ইংল্যান্ড কাউন্টি ক্লাব সাসেক্স শার্কসের হয়ে দুটি ন্যাটওয়েস্ট টি২০ ব্লাস্ট ম্যাচ খেলেন মুস্তাফিজ। এরপর রয়্যাল লন্ডন ওয়ানডে কাপে গ্লস্টারশায়ারের বিরুদ্ধে ওয়ানডের আগে অনুশীলনে কাঁধে ব্যথাটা বাড়ে এ পেসারের। এমআরআই স্ক্যান করানো হয়। সেই রিপোর্ট থেকে জানা যায় হাড়ে ফ্লুইড জমেছে, তবে কোন পেশী ছিঁড়ে গেছে কিনা সেটা জানা যায়নি। ইংল্যান্ডের চিকিৎসক টনি কোচার তাই দ্বিতীয়বার এমআরআই করানোর পরামর্শ দেন। এমআরআইয়ের দ্বিতীয় রিপোর্ট থেকে যা জানা গেছে তাতে করে নিশ্চিত হয় অস্ত্রোপচার করানো ছাড়া আর কোন উপায় নেই। রিপোর্টে প্রমাণ মিলেছে, মুস্তাফিজের বাঁ কাঁধের ল্যাবরামে গ্রেড টু মানের টিয়ার ধরা পড়েছে। অর্থাৎ অস্ত্রোপচার করাতে হচ্ছেই। এ বিষয়টি দু’দিন আগে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস গণমাধ্যমকে জানিয়ে বলেন, ‘আমরা আগে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে চাই, তবে এ অবস্থায় অস্ত্রোপচারই সবচেয়ে ভাল সমাধান।’
monarchmart
monarchmart