আংশিক রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৮.৯ °C
 
২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১০ ফাল্গুন ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জীবনের জন্য প্রয়োজন কাজের সুবিন্যাস

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫
  • নজরুল হোসেন

আমার সারা জীবনটাই গেল, আজকের কাজ আগামীকাল করব বলে। আমার এ ধরনের অভ্যাসের জন্য প্রায় প্রতিদিনই বসের বকা শুনতে হয়। বলছিলেন একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ফারজানা টিনা। আসলে টিনার মতো অনেক ব্যক্তিকেই এ ধরনের অভ্যাসকে বছরের পর বছর বয়ে বেড়াতে দেখা যায়। ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও তারা বেরিয়ে আসতে পারে না তাদের সেই নেতিবাচক অভ্যাস বলয় থেকে। আপনি যদি দেখেন পৃথিবীর সকল সফল ব্যক্তির জীবন তাহলে দেখবেন, তারা তাদের কাজকে কত সুন্দর-সুবিন্যাস করে করতেন।

কোন্ কাজটির পর কোন্ কাজটি করবেন তা তারা পর্যালোচনা এবং কাজের ধরন ও প্রয়োজনীয়তাকে মাথায় রেখে সম্পন্ন করতেন। এর ফলে তারা কম সময়ে অনেক বেশি কাজ করতে পেরেছেন। যুগের পর যুগ তারা পৃথিবীতে স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন, শুধু তাদের আন্তরিক প্রচেষ্টার কারণে।

‘জীবন =সময়+কাজ’

কাজের সুবিন্যাস:

আপনার জীবনকে সফল ও সুন্দর এবং বৈচিত্র্যময় করতে চাইলে, আপনার দৈনন্দিন জীবনের কাজকে নিয়ে আসুন আপনার নিয়ন্ত্রণের মধ্যে।

প্রতিদিনকার কাজগুলো সুন্দরভাবে সাজাতে পারলে, আপনার দৈহিক পরিশ্রম কমার পাশাপাশি মানসিকভাবেও প্রশান্তির ভাব তৈরি হবে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিজের কাজ গুলোও সুন্দরভাবে সাজিয়ে নিতে পারেন। অর্থাৎ প্রতিদিন অন্তত মনে মনে হলেও দিনের কর্মপরিকল্পনা তৈরি করুন। চেষ্টা করুন পরিকল্পনা অনুযায়ী দিনটি অতিবাহিত করতে। আপনার আন্তরিক প্রচেষ্টা এবং একটু বেশি কাজ করার মানসিকতাই আপনাকে পরিকল্পনানুযায়ী কাজ করতে সবচে বেশি সাহায্য করবে।

সময়ের বিন্যাস:

ণবংঃবৎফধু রং যরংঃড়ৎু

ঞড়সড়ৎৎড়ি রং সুংঃবৎু

ঞড়ফবু রং মরভঃ

সময় সচেতনতার কথা সবাই বলে। কিন্তু কয়জন পারে সময়মতো নির্দিষ্টি কাজটি সম্পন্ন করতে। মূলত অলসতা, সময়ের কাজ সময়ে না করা এবং ছোট ছোট কাজ জমিয়ে পাহাড়সমান করে ফেলাই সময়মতো কাজ করতে না পারার কারণ। প্রতিটি মুহূর্তে সময়কে কাজে লাগাতে হবে। নির্দিষ্ট কাজটি যত ছোটই হোক না কেন ঠিক সময়ে করে ফেলতে চেষ্টা করুন।

সচেতন হোন

কাজের সময় আপনার অমনোযোগিতার কারণেই নির্দিষ্ট কাজটি সম্পন্ন করতে যেমন সময় বেশি লাগে তেমনি তার ফলও আপনার বিপরীত হয়ে থাকে। আর তাই যখন যে কাজটি করছেন, চেষ্টা করুন সেই কাজেই থাকতে। নির্দিষ্ট কাজটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া অন্য কোন কাজে হাত দেবেন না।

শৃঙ্খলাকে গুরুত্ব দিন

নিজের জীবনের নিয়ন্ত্রণ নিজের হাতে রাখতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই শৃঙ্খলাকে গুরুত্ব দিতে হবে। জীবনকে চেষ্টা করুন একটি নিদিষ্ট ফ্রেমে নিয়ে আসতে। পরিমিত খাওয়া, পরিমিত ঘুমানো এবং সুস্বাদু খাবার গ্রহণ আরও বেশি শৃঙ্খলাকে মেনে চলতে সাহায্য করবে।

অগ্রাধিকার নিরূপণ

প্রতিটি কাজের একটি করে ছন্দ রয়েছে। আপনি যদি সেই ছন্দ অনুযায়ী কাজ করতে পারেন, তাহলেই আপনার জীবন সফল ও সুন্দর হবে। কাজের শেষ মুহূর্তে হুমড়ি খেয়ে কাজ শেষ করতে চাওয়া যাবে না। সময় হাতে নিয়ে কাজ করতে হবে। মনোযোগ ও একাগ্রতার মাধ্যমে সময় এবং শৃঙ্খলার গুরুত্ব অনুধাবণ করতে হবে। দৈনন্দিন কাজগুলোকে সাজাতে হবে নিজের প্রজ্ঞা ব্যবহার করে। অগ্রাধিকার নিরূপণের জন্য আপনার সময়কে ৩টি ভাগে ভাগ করতে পারেন যেমনÑ

হ সেল্ফ ডেভেলপমেন্ট/আত্মিক উন্নয়ন

হ পারিবারিক

হ পেশাগত

ছবি : নাসিফ শুভ

মডেল : আনোয়ার শামীম ও তার পরিবার

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫

৩১/০৮/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: