১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

জঙ্গী দমনে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্ব দরবারে প্রশংশিত : স্বাস্থ্যমন্ত্রী


স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন-বাংলাদেশের জঙ্গী দমনে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্ব দরবারে প্রশংশিত হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের দারিদ্র বিমোচন,স্বাস্থ্য শিক্ষা, যোগাযোগ ও কৃষি খাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।এক সময়ের তলাবিহীন ঝুড়ির বাংলাদেশ দ্রুত মধ্যম আয়ের দেশের অগ্রগতির পথে ধাবিত হচ্ছে। এই উন্নয়নের মাপ কাঠি ধরে বিশ্ব ব্যাংক বাংলাদেশকে ইতোমধ্যেই নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশের স্বীকৃতি দিয়ে এ দেশের জনগণ এবং শেখ হাসিনাকে সম্মানীত করেছেন। তিনি এও বলেছেন দেশ পরিচালনায় ধারাবাহিকতা ও মুক্তিযুদ্ধের শক্তি ক্ষমতায় থাকলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি মধ্যম আয়ের সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত হবে। তিনি বুধবার বিকেলে উল্ল¬াপাড়ায় ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা হাসপাতালের ফলক উন্মোচন শেষে পূর্ণিমাগাতি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক জনসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। এর আগে তিনি কাজীপুরের গান্ধাইলে ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শণ করেন।

উল্ল¬াপাড়া উপজেলার পূর্ণিমাগাতি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ জনসমাবেশে, সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া,সিরাজুল ইসলাম খান, সিরাজগঞ্জ -৪ (উল্ল¬াপাড়া) আসনের এমপি তানভীর ইমাম,সাবেক এমপি সফিকুল ইসলাম সফি,উপজেলা চেয়ারম্যান মারুফ বিন হাবীব, আব্দুস সামাদ সরকার , গোলাম মোস্তফা,নজরুল ইসলাম, আহসান আলী সরকার সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ জনসমাবেশে বক্তব্য দেন। তিনি সিরাজগঞ্জ থেকে সড়ক পথে উল্লাপাড়া যাবার পথে হাটিকুমরুল চৌরাস্তা মোড়ে পৌছলে দলের নেতাকর্মীরা মোটর সাইকেল শোভা যাত্রাসহ বিভিন্ন শ্লোগান দিয়ে তাঁকে নিয়ে যান পূর্ণিমাগাতি ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল চত্তরে। সেখানে পৌছে তিনি প্রথমেই ফলক উন্মোচন করেন এবং বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। সেখানে সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম, সাবেক এমপি সফিকুল ইসলাম সফি, স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী মনিরুজ্জামান মোল্লাসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এর পর তিনি পূর্ণিমাগাতি ইউনিয়ন পরিষদ চত্তরে জনসমাবেশে যোগ দেন।

দলের সিনিয়র নেতা মোহাম্মদ নাসিম বর্তমান সরকারের সাফল্য তুলে ধরে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে উল্লে¬খ করে বলেছেন- বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যেতো। যদি বিএনপি জামাত জোটের অপরাজনীতি এবং জ্বালাও পোড়াও না হতো। তিনি এও বলেছেন-গ্রামের মানুষ এখন ঘরে বসেই উন্নত চিকিৎসার সুযোগ পাবেন॥ তাদের আর ছোট খাটো কোন অসুখ বিসুখে শহরে দৌড়াতে হবে না। শিশু মৃত্যু, মাত ৃমৃত্যু হার কমেছে। বিশ্ববাসীর কাছে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব প্রশংসিত হয়েছে। তিনি এও বলেছেন-ধারাবাহিকভাবে আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশ একটি সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত হবে। এ জন্য তিনি দেশবাসীর সহযোগিতা কামনা করেছেন।

১৪ দলের মুখপাত্র ও দলের সিনিয়র নেতা মোহাম্মদ নাসিম- বর্তমান সরকার বিনা যুদ্ধে সমুদ্র বিজয ও স্থল সীমান্ত চুক্তির বিজয় অর্জন করেছেন উল্লেখ করে বলেছেন-বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে কয়েক হাজার একর ভুমি বাংলাদেশের মানচিত্রের সাথে যুক্ত হযেছে। এতে ছিটমহলবাসী দীর্ঘ ৪৩ বছর পর তাদের অধিকার ফিরে পেয়েছে। তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ইন্দিরা-মুজিব চুক্তির মাধ্যমে ভারত ও বাংলাদেশের সীমানা নির্ধারন করেন। সেটি বাংলাদেশের সংসদে পাশ হলেও ভারতের সংসদে পাশ না হওয়ায় ঝুলে ছিল। শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে তা অর্জন সম্ভব হয়েছে। অখচ বেগম জিয়া এই বিশাল অর্জনের জন্য শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ না দিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ দিয়েছেন। এরা দীঘ ৩৪ বছর ইন্দিরা- মুজিব চুক্তিকে গোলামী চুক্তি হিসেবে প্রচারণা চালিয়েছে। যা আজ মিথ্যাচার হিসেবে প্রমাণিত। এ সকল মিথ্যাচারের জবাব দেবার জন্য দলের নেতাকর্মীদের প্রতি তিনি নির্দেশ দেন।