বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বাংলাদেশে সুশাসনের উন্নতি বিষয়ে জানতে চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশ সুশাসনের বিষয়টিতে কিভাবে উন্নতি করবে তা জানতে চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। একইসঙ্গে সদ্যসমাপ্ত একাদশ সংসদ নির্বাচনের বিষয়ে জানতে চেয়েছে দেশটি। যুক্তরাষ্ট্র সফররত পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে ইউএসএইড প্রধান মার্ক গ্রিন ও মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রাজনৈতিক বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি ডেভিড হ্যালের বৈঠকে এসব বিষয়ে জানার আগ্রহ দেখানো হয়। ওয়াশিংটনে মঙ্গলবার বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। -খবর ওয়েবসাইটের।

বাংলাদেশে নতুন সরকার গঠনের পর যুক্তরাষ্ট্রে পররাষ্ট্র সচিবের এটি প্রথম সফর। তার এ সফরের প্রধান উদ্দেশ্য আওয়ামী লীগ সরকার নতুন মেয়াদে দায়িত্ব নেয়ার পর বিদ্যমান সম্পর্ক আরও পোক্ত করা। সফরের অংশ হিসেবে সচিব মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রিন্সিপ্যাল ডেপুটি এ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি এলিস ওয়েলস, গণতন্ত্র, অধিকার ও শ্রমবিষয়ক ডিপার্টমেন্টের প্রধান রাষ্ট্রদূত মাইকেল কোজাক, ভারপ্রাপ্ত এ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ক্যারোল থমসন ও’কনেল, এ্যাম্বাসেডর এ্যাট লার্জ জন কটন রিজমন্ড এবং এ্যাম্বাসেডর এ্যাট লার্জ নাথান সেলসের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। সফরে দেশটির সঙ্গে সম্পর্ক আরও গভীর করার বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ। এই বার্তাকে ইতিবাচক হিসেবেই দেখছে মার্কিন প্রশাসন। সফরের বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত ফলপ্রসূ আলোচনা করেছি এবং ভবিষ্যতে কীভাবে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যাব সে বিষয়ে কথা বলেছি।’এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেন, ‘রাজনীতি ও সুশাসনের বিষয়টি নিয়ে বৈঠকগুলোতে আলোচনা হয়েছে। বাংলাদেশে যে নির্বাচন হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সে বিষয়ে জানতে চেয়েছে।’ সুশাসনের বিষয়ে ঢাকা ও ওয়াশিংটন একমত এবং এ বিষয়ে উভয়পক্ষ একসঙ্গে কাজ করতে চায় বলেও জানান তিনি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকগুলোতে পররাষ্ট্র সচিব নতুন গঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কেবিনেটের অগ্রাধিকার, সুশাসন ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থানের বিষয়ে জানান। এছাড়া তিনি আরও বলেন, ‘মার্কিন প্রশাসন আশ্বস্ত করেছে আমাদের সম্পর্ক আরও গভীর হবে এবং সহযোগিতার ক্ষেত্র বাড়বে। বাণিজ্য, জ্বালানি, রাজনীতি, রোহিঙ্গা, অভিবাসন এবং অন্য বিষয় নিয়েও দুপক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়েছে।’ যুক্তরাষ্ট্রকে অন্যতম বাণিজ্যিক অংশীদার উল্লেখ করে সচিব বলেন, ‘আমরা বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল তৈরি করছি এবং মার্কিন বিনিয়োগকারীরা এখানে বিনিয়োগ করে সুবিধা নিতে পারেন।’ উল্লেখ্য, গত অর্থবছরে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ছিল ৬.৬৮ বিলিয়ন ডলারের। এরমধ্যে বাংলাদেশের রফতানি ছিল প্রায় ৫ বিলিয়ন। বাংলাদেশী পণ্যের ওপর যুক্তরাষ্ট্র গড়ে ১৫ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে। যুক্তরাষ্ট্রের মোট বাণিজ্যের ০.২৩ শতাংশ হয় বাংলাদেশের সঙ্গে। কিন্তু দেশটির মোট শুল্ক আয়ের ২.৫৪ শতাংশ আসে বাংলাদেশী পণ্য থেকে। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘আমার সঙ্গে হোয়াইট হাউস এবং পেন্টাগনের কর্মকর্তাদের বৈঠকের কথা আছে। এছাড়া, মার্কিন থিংকট্যাঙ্ক হেরিটেজ ফাউন্ডেশনে বৈশ্বিক ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা হবে।’ দুপক্ষের মধ্যে বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যুটিও গুরুত্বের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে উত্তর রাখাইনের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতির কারণে ভয়াবহ এ সমস্যা সৃষ্টি এবং দিনদিন তা আরও জটিল আকার ধারণ করছে বলে জানানো হয়। সমস্যা সমাধানে মিয়ানমার সরকারকে দায়িত্ব নিয়ে সেখানকার পরিবেশ ঠিক করতে হবে। এর জন্য দেশটিকে চাপ দেয়ার আহ্বান জানানো হয়। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা এ বিষয়ে বাংলাদেশকে পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এছাড়া দুর্নীতি রোধ, সন্ত্রাসবাদ দমন এবং মানবপাচার রোধে বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন কর্মকা-ে যুক্তরাষ্ট্র সন্তোষ প্রকাশ করে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মাদ জিয়াউদ্দিন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং দূতাবাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনে বাংলাদেশ-চীনের চুক্তি স্বাক্ষর         ঢাবির শতবর্ষ উদযাপন শুরু         ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাঙালীর আশা-আকাঙ্ক্ষার এক অনন্য বাতিঘর’         ‘আফ্রিকা থেকে এলেই বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন’         দেশ থেকে পালাতে চেয়েছিলেন রাজশাহীর মেয়র আব্বাস         রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর করা ছাত্রদের কাজ না ॥ প্রধানমন্ত্রী         অস্ট্রেলিয়ায় নারী পার্লামেন্ট সদস্যদের ৬৩ শতাংশই যৌন হয়রানির শিকার         বোট ক্লাব মামলা ॥ সব আসামির নাম না থাকায় পরীমনির আপত্তি         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে জবির শোক         শতাধিক সাবেক নিরাপত্তা সদস্যকে খুন করেছে তালেবান ॥ এইচআরডব্লিউ         ঢাকা মেডিক্যালে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামির মৃত্যু         কুয়াকাটায় টোয়াকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত         ওমিক্রন ঠেকাতে প্রবাসীদের আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে         বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই মটরসাইকেল অরোহী নিহত         ডাসারে মোটরসাইকেল চাপায় ইউপি সদস্য নিহত         রামপুরায় বাসে আগুন ও ভাঙচুর ॥ আসামি ৮০০         যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরের গুলিতে নিহত ৩, আহত ৮         রেফারিকে হত্যার হুমকি আর্জেন্টাইন ফুটবলারের         ৯ দফা দাবিতে রামপুরায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ         শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হলো আপিল বিভাগের বিচারকাজ