কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বদলে গেছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫

বিশ্বের অন্যতম ক্রিকেট পরাশক্তি ভারতকে সীমিত ওভারের ম্যাচে দুর্দান্তভাবে হারিয়ে দিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। টাইগারদের অভিনন্দন; আবেগ-উচ্ছ্বাসে ভেসে গিয়ে দেশের সকল ক্রিকেটপ্রেমীরই হৃদয়ে ধ্বনিত হচ্ছে- শাবাশ বাংলাদেশ! কিছুদিন আগেও সফরকারী পাকিস্তানকে ধরাশায়ী করে সিরিজ জিতে আনন্দের উপলক্ষ হয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জয়ের এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। উপমহাদেশের দুই মহাশক্তিকে পর্যায়ক্রমে কুপোকাত করার মধ্য দিয়ে স্বাগতিক বাংলাদেশ ক্রিকেটবিশ্বকে জানিয়ে দিল তাদের শক্তিমত্তা। বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে অর্জিত হলো এক অসাধারণ দাপুটে বিজয়। এই সুবাদে র‌্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ এগোলো বাংলাদেশ, উঠে এলো সাতে।

খুব বেশিদিন আগের কথা নয়, বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। গোটা ক্রিকেটবিশ্ব জানে সেই ম্যাচে কী ঘটেছিল। আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে গিয়েছিল। অনেকে মনে করেন, যদি সেদিন ভারতীয় দলের প্রতি আম্পায়াররা পক্ষপাতিত্ব না দেখাতেন তবে বাংলাদেশই জিতে যেত। বাংলাদেশ পৌঁছে যেতে পারত সেমিফাইনালেও। আর সেমিফাইনালে পৌঁছানো দল তো স্বপ্ন দেখতেই পারে ফাইনাল খেলার। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের লক্ষ্য ছিল ভারতকে পর্যুদস্ত করা। একইভাবে বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরাও প্রতীক্ষায় ছিল দেশকে বিজয়ী দেখার। সেই আশাই পূর্ণ হলো। ভারতের পত্র-পত্রিকাগুলোও বৃহস্পতিবারের ম্যাচে বাংলাদেশের আধিপত্যকে তুলে ধরে শিরোনাম করেছে। ভারতীয় গণমাধ্যম তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেÑ ‘অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ভারতকে হতবিহ্বল করে দিয়ে ৭৯ রানে জিতেছে বাংলাদেশ’ (টাইমস অব ইন্ডিয়া); ‘ভারতকে সম্পূর্ণরূপে পরাজিত করেছে বাংলাদেশ, ৭৯ রানের পরাজয়ের পর ভারত ছত্রভঙ্গ’ ( দ্য হিন্দু); ‘অভিষিক্ত মুস্তাফিজের ৫ উইকেটে ভারতকে বিমূঢ় করে দিয়ে ৭৯ রানে জয় ঘরে তুলেছে বাংলাদেশ’ ( এনডিটিভি); ‘বাংলাদেশের কাছে ৭৯ রানে ভারতের পরাজয়’ (জি-নিউজ)।

ফিল্ডিং-বোলিং-ব্যাটিং প্রতিটি অঙ্গনে বাংলাদেশ দল ক্রিকেটীয় বুদ্ধি ও ক্ষমতার পরিচয় রেখেছে। ভারতের বিরুদ্ধে সীমিত ওভারের এই ম্যাচটিতে জয়ের পেছনে টিমওয়ার্ক কাজ করেছে। ম্যাচ দেখে দর্শকরা বুঝে গেছেন বিশ্বকাপে সাফল্যের নতুন উচ্চতায় ওঠা বাংলাদেশ দল বদলে গেছে। সর্ববিচারেই উন্নতি ঘটেছে টিমের। নতুন প্রতিভার সংযুক্তি যে ইতিবাচক ফল বয়ে আনতে পারে তার প্রমাণও এই ম্যাচ। অভিষেকেই ৫ উইকেট নিলেন ১৯ বছর বয়সী মুস্তাফিজ।

যে যাই বলুক টাইগারদের জন্য খেলাটি ছিল মধুর প্রতিশোধ গ্রহণের! শুধু র‌্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ উন্নতি নয়, আরও কিছু অর্জন আছে বাংলাদেশের। এগুলো হলো- প্রথমবারের মতো ৪ সিম বোলার নিয়ে জয়; প্রথমবারের মতো ভারতের বিরুদ্ধে ৩০০’র উপরে রান; ওপেনিং পার্টনারশিপে ভারতের বিরুদ্ধে প্রথমবারের মতো ১০০ রান; ভারতের বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানে জয় (৭৯ রান); ভারতের বিরুদ্ধে জয় দিয়ে শুরু করল বাংলাদেশ একটা সিরিজ। এখন দেশবাসীর প্রত্যাশা, বাকি দুটি ম্যাচ জিতে সিরিজ জয়ের সুযোগটি যেন হাতছাড়া না করে টাইগাররা।

প্রকাশিত : ২১ জুন ২০১৫

২১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: