কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

মূর্তিমান আতঙ্কের নাম বেগম জিয়া ॥ হাছান মাহমুদ

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ দেশের তিন সিটি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপি-জামায়াত গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বেগম জিয়া নিরাপত্তা বাহিনী এমনকি তাঁর দলের নেতাকর্মীদেরও অবহিত না করে নির্বাচনী প্রচারের নামে আচমকা ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় যাচ্ছেন এবং উস্কানিমূলক বক্তব্য রেখে চলেছেন। বিএনপি নেত্রী এখন সাধারণ মানুষের কাছে মূর্তিমান এক আতঙ্কের নাম। তিনি নিষ্ঠুরতা, সহিংসতা ও জঙ্গীবাদের প্রতীক।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বৃহস্পতিবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এ সময় তিনি বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়নমূলক কর্মকা-ের বিবরণ তুলে ধরার পাশাপাশি আসন্ন সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীদের মেয়র নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক এমপি নুরুল আলম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এমএ সালাম, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সদস্য নুরুল আমিন ও দলের নেতৃবৃন্দ।

ড. হাছান মাহমুদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, বেগম খালেদা জিয়া এখন দেশের মানুষের কাছে নিষ্ঠুরতা, সহিংসতা ও জঙ্গী তৎপরতার প্রতীক। শান্তিকামী মানুষ তাঁর ওপর প্রচন্ডভাবে বিক্ষুব্ধ। তাই তিনি গত কয়েকদিন ধরে যেখানেই যাচ্ছেন বিক্ষোভ ও বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন। খালেদা জিয়াকে দেখলেই সাধারণ মানুষ উত্তেজিত হচ্ছে। জনগণকে উত্তেজিত করার হীনউদ্দেশ্য নিয়েই তিনি উস্কানিমূলকভাবে বিভিন্ন জায়গায় হুটহাট বেরিয়ে পড়ছেন এবং উস্কানিমূলক ও মিথ্যা বানোয়াট বক্তব্য দিচ্ছেন। ঢাকার বাংলা মোটর এলাকায় খালেদা জিয়ার গাড়ির বহর দুজন বিক্ষোভকারীকে চাপা দেয়ার কারণেই বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে বেগম জিয়া এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে সিটি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চান।

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিনকে উন্নয়নের প্রতীক হিসেবে আখ্যায়িত করে তিনি হাতি প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী এম মনজুর আলম গত পাঁচ বছরে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি নতুন কোন উন্নয়ন করতে পারেননি। বরং আমাদের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর বাস্তবায়িত প্রকল্পগুলোকে ধ্বংস করে গেছেন। মনজুর আলমের ঘোষিত নির্বাচনী ইশতেহারকে ভাওতাবাজি হিসেবে আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, ইশতেহারে উল্লেখ করা প্রতিশ্রুতিগুলো ভাওতাবাজি ছাড়া কিছুই নয়। এর অধিকাংশই তাঁর আগের ইশতেহারেও ছিল। আবার অনেক দফা বাস্তবায়নের পথে ছিল আমাদেরই সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: