আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ছয় মাসের শিশুর পেটে মৃত ভ্রূণ

প্রকাশিত : ৬ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ছয় মাসের শিশুর পেটে আরেকটি শিশুর অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। শিশুটির নাম সাজিয়া জান্নাত। তার বাবার নাম শফিকুল ইসলাম। তিনি একটি বাইসাইকেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন। সাজিয়ার মায়ের নাম আঞ্জু খাতুন (২০)। তাদের গ্রামের বাড়ি জামালপুর জেলার গোপালপুরে। বর্তমানে তারা গাজীপুর জেলার নতুনবাজার গরগরিয়া গ্রামে থাকেন।

শিশুটির মা আঞ্জু খাতুন জানান, গত ১০ সেপ্টেম্বর তার একটি কন্যাসন্তান জন্মগ্রহণ করে। জামালপুরের নান্দিনা আনোয়ার হাসপাতালে তার জন্ম হয়। শিশুটির বয়স যখন চারমাস তখন তার পেটে চাকাসদৃশ কিছু একটা অনুভব করেন তিনি। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে জানতে পারেন, শিশুটির পেটে একটি ভ্রূণ বেড়ে উঠছে। গত ১৩ মার্চ তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শিশু সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ আশরাফুল হক কাজলের অধীনে শিশুটিকে ভর্তি করা হয়।

ঢামেক হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ আশরাফ সাংবাদিকদের জানান, শিশুটিকে পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে আমরা দেখতে পেয়েছি তার পেটে থাকা ভ্রূণটির মাথা আছে। কিন্তু খুলি নেই। হাত-পা আছে। তবে মৃত অবস্থায়। তিনি জানান, আগামী বুধবার তাকে অপারেশন করার কথা। কিন্তু শিশুটি ঠা-াজনিত রোগে ভুগছে। সে সুস্থ হলেই একটি বোর্ড গঠন করে অপারেশন করা হবে। ডাঃ আশরাফ আরও জানান, রেকর্ড অনুযায়ী বিশ্বে এমন ঘটনা ৫৯টি হয়েছে। আমাদের এই ঘটনাটি নিয়ে তা হবে ৬০টি। তিনি জানান, এর আগেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪০ বছর বয়সী এক নারীর ক্ষেত্রে এমন ঘটনা ঘটেছিল। এছাড়া চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেও এমন ঘটনা ঘটে। বর্তমানে শিশুটিকে সর্বক্ষণিক দেখভাল করছেন শিশু ওয়ার্ডের সহকারী রেজিস্ট্রার সিফাত জেরিন খান।

প্রকাশিত : ৬ এপ্রিল ২০১৫

০৬/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: