আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সব উপকরণ থাকলেও পড়ানো হচ্ছে না মাল্টিমিডিয়ায়

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • পার্বতীপুরে ৭৭ প্রজেক্টর অলস পড়ে আছে ॥ বঞ্চিত শিক্ষার্থী

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর, ২৩ ফেব্রয়ারি ॥ মাল্টিমিডিয়া ডিজিটাল কনটেন্ট পদ্ধতিতে পাঠদান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি নতুন পদ্ধতি। এতে পাঠ্যসূচী সিডিতে ধারণ করে শ্রেণীকক্ষে প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো হয়। এ লক্ষ্যে পার্বতীপুরের কলেজ, প্রাথমিক, মাধ্যমিক স্তরের বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় প্রায় দেড় বছর আগে কয়েক কোটি টাকা মূল্যের ৭৭টি মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরসহ শিক্ষা সামগ্রী সরবরাহ করা হলেও বাস্তবে এগুলোর ব্যবহার শুরু হয়নি। ফলে শিক্ষার্থীরা এর সুফল থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। পার্বতীপুরের ২০ কলেজ, ৬০ মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয়, ৬ স্কুল এ্যান্ড কলেজ, ৫ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল, আলিম, ফাজিল ও কামিল মিলে ৩৯টি মাদ্রাসা রয়েছে। তার মধ্যে হলদিবাড়ী বিদ্যানিকেতন, আইনুলহুদা উচ্চ বিদ্যালয়, রোস্তমনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাজাবাসর স্কুল এ্যান্ড কলেজ, পার্বতীপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়, নূরলহুদা উচ্চ বিদ্যালয়, নূরল মজিদ উচ্চ বিদ্যালয় ও পার্বতীপুর বালিকা বিদ্যাপীঠ উচ্চ বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে এসব প্রতিষ্ঠান প্রাথমিকভাবে মাল্টিমিডিয়া পদ্ধতির কার্যক্রম শুরু করেছে। কোন কোন প্রতিষ্ঠানে এই শিক্ষা সামগ্রীগুলো প্যাকেটিং অবস্থায় পড়ে আছে। নষ্ট হয়ে যাচ্ছে অযতেœ। আবার কেউ কেউ প্রজেক্টর ব্যবহার করে পর্দায় সিনেমা নাটক দেখাসহ নিজেদের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করছে। জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ এনায়েত হোসেন ও পার্বতীপুরের উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ শমসের আলী জানান, মাল্টিমিডিয়া ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে পাঠদান চালুর ব্যাপারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহকে কড়া নির্দেশনা হয়েছে। এ বাপারে মনিটরিং করা হচ্ছে।

কুড়িগ্রামে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষিত ॥ গ্রেফতার হয়নি ধর্ষক

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ রাজিবপুরে তৃতীয় শ্রেণীর এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। সুবেল রহমান নামের এক বখাটে ওই বর্বর নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটায়। সোমবার ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শনিবার রাত ৯টার দিকে ওই বর্বর নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটে মোহনগঞ্জ ইউনিয়নের নয়াচর মধ্যপাড়া গ্রামে। ঘটনার তিনদিন পরও ধর্ষককে গ্রেফতার করেনি পুলিশ।

রায়পুরে মামলা করতে বাধা দেয়া হচ্ছে

সংবাদদাতা, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর থেকে জানান, লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে দরিদ্র দিনমজুরের ১২ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

শনিবার বিকেলে উপজেলার দক্ষিণ কেরোয়া গ্রামের মোল্লারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর আহত শিশুটি জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ধর্ষক নিশান গ্রাম্য মাতব্বর ইউনিয়ন আ’লীগের সহসভাপতি জসিম মোল্লার ভাই হওয়ায় ধর্ষিতার পরিবারকে হুমকি ধমকি দিয়ে ঘটনাটি চাপা দেয়ার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ করেছে ধর্ষিতার পরিবার। ধর্ষণের পর হতে এলাকার মাতবরদের কাছে দফায় দফায় বিচার চেয়েও বিচার না পেয়ে ধর্ষিতার পিতা চরম হতাশায় দিন কাটাচ্ছেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার মামলা করতে পারছে না বলে অভিযোগ করেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, ২১ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ওই শিশুটি খেলা শেষে বাড়ি যাওয়ার পথে একই এলাকার মৃত আলী আহম্মদের ছেলে বখাটে নিশান শিশুটির মুখ চেপে ধরে বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: