মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

খালেদার কার্যালয়ে চিকিৎসক দল, খোঁজখবর নিলেন

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গুলশান কার্যালয়ে অবস্থানরত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিয়েছেন একটি চিকিৎসক দল। জানা গেছে, নিয়মিত চেকআপের অংশ হিসেবে সোমবার পাঁচ সদস্যের একটি চিকিৎসক প্রতিনিধি দল গুলশান কার্যালয়ে প্রবেশ করেন। এছাড়াও কার্যালয়ে অবস্থানরত অন্যান্যদের এ সময় শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন চিকিৎসক দলটি। বের হয়ে তাঁরা বলেন, খালেদা জিয়া ভাল আছেন। তবে ভেতরে অবস্থানরত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান ও ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান বেশ অসুস্থ।

সোমবার ৩টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি মোঃ তাহের নেতৃত্বে একটি চিকিৎসক প্রতিনিধি দল খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে প্রবেশ করেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন বিএসএমএমইউর অর্থোপেডিক বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক সিরাজউদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক তৌহিদুল হক, এনাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক এসএম রফিকুল ইসলাম ও নার্স লাবনী।

একটি এ্যাম্বুলেন্সে করে চিকিৎসক দল গুলশান কার্যালয়ে কাছে গেলে পুলিশ তাদের আটকে দেয়। পরে পায়ে হেঁটে তারা কার্যালয়ের গেটের কাছে গেলে পুলিশ প্রথমে তাদের কার্যালয়ে প্রবেশে বাধা দেয়। পরে তারা সবাই নাম-ঠিকানা লিখে কার্যালয়ে প্রবেশ করেন। অধ্যাপক তাহির সাংবাদিকদের বলেন, আমি কোন রাজনীতি করি না। খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা আমাকে এখানে আসতে অনুরোধ করেছেন। এজন্য এসেছি। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যগত কোন সমস্যা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভেতরের অবস্থানরত বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান অসুস্থ। তার শারীরিক অবস্থার পর্যবেক্ষণের জন্য এসেছি।

খালেদা জিয়া কার্যালয়ে প্রবেশের সময় তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের বলেন, ওয়ান-ইলেভেনের পর আমি আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেখতেও স্কয়ার হাসপাতালে গিয়েছিলাম। কিছুদিন আগে সাবেক প্রধানমন্ত্রী কাজী জাফর আহমেদকে দেখতে গিয়েছি। আমি মেডিসিনের প্রবীণ চিকিৎসক। চিকিৎসকরা কার্যালয়ে প্রবেশের পর একটি ইসিজি মেশিন ভেতরে নেয়া হয়। চিকিৎসক দলের সঙ্গে বিএনপি সমর্থিত চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাবের সহসভাপতি অধ্যাপক সিরাজউদ্দিন আহমেদ ও যুগ্ম মহাসচিব এসএম রফিকুল ইসলাম বাচ্চুও রয়েছেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা গত ৩ জানুয়ারি থেকে তার গুলশান কার্যালয়ে অবস্থান করছেন। তার সঙ্গে কার্যালয়ের ভেতরে ব্যক্তিগত স্টাফ, নিরাপত্তা কর্মকর্তা ও চেয়ারপার্সনের প্রেস উইংয়ের সদস্যসহ প্রায় ৬০ জন অবস্থান করছেন। জানা গেছে, এর আগেও কর্মকর্তাদের মধ্যে দুজন অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য রক্তের নমুনা সংগ্রহের ল্যাবএইড হাসপাতাল থেকে একটি প্রতিনিধি দল গুলশান কার্যালয়ে প্রবেশ করেন। খালেদা জিয়ার নিয়মিত চেকআপ ছাড়াও কার্যালয়ে অবস্থানরতদের স্বাস্থ্যও পরীক্ষা করেন প্রতিনিধি দল।

৬ জানুয়ারি সারাদেশে টানা অবরোধের পর থেকে খালেদা জিয়ার তার কার্যালয়ে থেকে আর বের হননি। এমনি তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুতে তিনি গুলশান কার্যালয়ে অবস্থান করছেন। অবরোধ কার্যকর না হওয়ার একের পর বিএনপির পক্ষ থেকে হরতাল কর্মসূচী আসছে বিবৃতির মাধ্যমে।

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: