মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মালয়েশিয়ার সঙ্গে

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ এবার মালয়েশিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার হচ্ছে। দেশটির শিল্পোদ্যোক্তারা বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে চান। দেশের ম্যানুফ্যাকচারিং, রেল, সড়ক, বিদ্যুত, আইটি, টেলিকম এবং সেবা খাতে বিনিয়োগ করতে চান তারা। বিএনপির ডাকা হরতাল-অবরোধ থাকা সত্ত্বেও আজ মঙ্গলবার তিন দিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন মালয়েশিয়ার ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড এ্যান্ড ইন্ডাস্টি বিষয়কমন্ত্রী দাতো শ্রী মোস্তফা মোহাম্মদের নেতৃত্বে একটি শক্তিশালী বাণিজ্যিক প্রতিনিধি দল। সফরকালে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদসহ বেসরকারী খাতের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে তার একাধিক বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। বিনিয়োগ ও ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়িয়ে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করাই হচ্ছে তার এ সফরের মূল লক্ষ্য। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের।

জানা গেছে, ঢাকায় দুই দেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে। দুই দেশের সরকারী পর্যায়ের এই আলোচনায় মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী পণ্যের শুল্কমুক্ত বাজার সুবিধা, বাংলাদেশে দেশটির উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগ, আশিয়ান দেশে রফতানি সম্প্রসারণ এবং দুই দেশের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) করার বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্প্রতি মালয়েশিয়া সফরের সময় বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া একটি চুক্তি, একটি প্রটোকল ও দুটি সমঝোতা স্মারক সই হয়। এসব চুক্তি যাতে দ্রুত বাস্তবায়ন হতে পারে সে বিষয়েও এখন জোর দেয়া হচ্ছে। এছাড়া মালয়েশিয়ায় প্রায় ৬ লাখের মতো বাংলাদেশী কর্মী রয়েছেন। ইতোপূর্বে স্বাক্ষরিত প্রটোকলের আওতায় দেশটির সারাওয়াক প্রদেশে আরও ১২ হাজার বাংলাদেশীর কাজের সুযোগ তৈরি হবে, যা পর্যায়ক্রমে বেড়ে ৬০ হাজারে উন্নীত হবে।

বাংলাদেশে টেলিকম খাতে বিনিয়োগ রয়েছে মালয়েশিয়ার। এর বাইরে দেশের জ্বালানি ও যোগাযোগ অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ সম্ভাবনা খতিয়ে দেখবে প্রতিনিধি দলটি। বাংলাদেশের ম্যানুফ্যাকচারিং ও মোটরকার নির্মাণ খাত নিয়েও দেশটির বেসরকারী খাতের অনেক আগ্রহ রয়েছে বলে জানা গেছে। প্রাথমিকভাবে এসব খাতে বিনিয়োগ সাফল্য এলে পরে বৃহৎ আকারে বিনিয়োগের পরিকল্পনাও রয়েছে দেশটির শিল্পোদ্যোক্তাদের। এরই মধ্যে বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগে চট্টগ্রামে একটি গাড়ি নির্মাণ কারখানা করার আগ্রহ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। বিশ্বখ্যাত গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান প্রোটন সাগার (পেরুসাহান অটোমোবাইল ন্যাশনাল এসডিএন বিএইচডি) কারখানা স্থাপনের মধ্য দিয়ে এ দেশে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

১৩/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: