রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সেমিতে শারাপোভা

প্রকাশিত : ৯ জানুয়ারী ২০১৫
সেমিতে শারাপোভা
  • ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত গতিতেই ছুটছেন মারিয়া শারাপোভা। বৃহস্পতিবার টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নাম্বার এই তারকা সহজেই পরাজিত করেন স্পেনের কার্লা সুয়ারেজ নাভারোকে। টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে শীর্ষ বাছাই মাশা ৬-১ এবং ৬-৩ গেমে পরাজিত করেন সপ্তম বাছাই নাভারোকে। এই জয়ের ফলে আনন্দিত রাশিয়ান গ্ল্যামারগার্ল মারিয়া শারাপোভা। ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে এখন তার প্রতিপক্ষ ইউক্রেনের এলিনা ভিতলিনা। শেষ আটের আরেক লড়াইয়ে ভিতলিনা ৪-৬, ৭-৫ এবং ৬-৩ গেমে পরাজিত করেন জার্মানির তরুণ প্রতিভাবান টেনিস তারকা এ্যাঞ্জেলিক কারবারকে। এই পরাজয়ের ফলে হতাশাজনকভাবেই নতুন মৌসুম শুরু হলো তৃতীয় বাছাই কারবারের।

রাশিয়ান টেনিস তারকা মারিয়া শারাপোভার গত মৌসুমটা কেটেছে সাফল্য আর চোটের মধ্যে দিয়ে। মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টে ব্যর্থ হলেও দ্বিতীয় মেজর ইভেন্ট ফ্রেঞ্চ ওপেনের চ্যাম্পিয়ন হন তিনি। এর পরের সময়টা কেটেছে চোট-শঙ্কা আর নিষ্প্রভ পারফর্মেন্স করে। তাই নতুন মৌসুমে নিজেকে মেলে ধরতে চান শারাপোভা। শুরুটাও যেন সেভাবেই করেছেন তিনি। নতুন বছরের প্রথম টুর্নামেন্ট ব্রিসবেন ইন্টান্যাশনাল ইভেন্টের দ্বিতীয় পর্বে সহজেই জয়ের দেখা পান তিনি। বৃহস্পতিবার সেমিফাইনালের টিকেটও নিশ্চিত করেন অনায়াসে।

তবে কোয়ার্টার ফাইনালে তার প্রতিপক্ষ ছিল স্পেনের অন্যতম সেরা তারকা কার্লা সুয়ারেজ নাভারো। ব্রিসবেনে সপ্তম বাছাই হিসেবে কোর্টে নেমেছিলেন তিনি। কার্লা সুয়ারেজের বিপক্ষে কোর্টে নামার আগে বেশ সতর্ক ছিলেন মারিয়া শারাপোভা। কেননা গত মৌসুমে এই তারকার বিপক্ষে পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন তিনি। এ বিষয়ে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নাম্বার তারকা মারিয়া শারাপোভা বলেন, ‘গত মৌসুমে আমি তার কাছে হেরে গিয়েছিলাম। আর তার বিপক্ষে যেহেতু হেরেছি। তাই এবার বেশ সতর্ক থেকেই কোর্টে নেমেছিলাম। সুয়ারেজ নাভারোর বিপক্ষে শুরুতেই বেশ কিছু আনফোর্সড ইররস খেলি। কিন্তু নিজেকে ছন্দে ফেরাতে খুব বেশি সময় নেইনি। এবং শেষটা বেশ ভালই হয়েছে। এমন জয়ে আমি খুবই আনন্দিত।’ শারাপোভা জয়ের দেখা পেলেও কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই ছিটকে পড়েছেন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। বিশ্ব টেনিসে এক সময় জার্মানদের আধিপত্য ছিল। বিশেষ করে স্টেফিগ্রাফ এবং বরিস বেকারদের সময়। কিন্তু বর্তমান সময়ে জার্মানির সে রকম কোন টেনিস খেলোয়াড়দের দেখা মিলছে না। তবে ২০১৪ সালে জার্মানির সেরা টেনিস খেলোয়াড় ছিলেন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। যিনি র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা দশে থেকে মৌসুম শেষ করতে সক্ষম হয়েছেন। মাত্র তিন বছর বয়সেই টেনিস খেলতে শুরু করেছিলেন কারবার। কিন্তু কোর্টে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি সে সময়। ২০০৩ সালে এসে প্রথমবারের মতো জুনিয়র টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পান এই জার্মান খেলোয়াড়। গত চার বছর ধরে টেনিসের বিশ্ব মঞ্চে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ পান এ্যাঞ্জেলিক কারবার। ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে উঠার রেকর্ড গড়েন তিনি। এর পরের বছর আরও একধাপ এগিয়ে আসেন এই জার্মান খেলোয়াড়। ফ্রেঞ্চ ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনাল ও উইম্বল্ডনের শেষ চারের টিকেট নিশ্চিত করেন তিনি। এবারও ব্যর্থ হন শিরোপার দেখা পেতে। তবে ২০১২ সালের অক্টোবরে প্রথমবারের মতো বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে পাঁচে জায়গা করে নিতে সক্ষম হন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। ২০১৩-১৪ সালেও নিষ্প্রভ কাটে তার। প্রত্যাশা ছিল নতুন মৌসুম দারুণভাবে শুরু করার। কিন্তু বছরের প্রথম টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হলো তাকে। আর কারবারকে হারিয়ে উচ্ছ্বসিত এলিনা ভিতলিনা। সেমিতে তার প্রতিপক্ষ শারাপোভা। আর এমন খেলোয়াড়দের বিপক্ষে খেলতে পেরে দারুণ রোমাঞ্চিত ইউক্রেনের এই তারকা। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এখন সামনের দিকেই এগিয়ে যেতে চাই। এটাই আমার মূল লক্ষ্য।

এ রকম খেলোয়াড়দের বিপক্ষে খেলাটা সবসময়ই অসাধারণ। এখানেই আপানার দেখার সুযোগ থাকে যে ভবিষ্যতে কী কী উন্নতির প্রয়োজন। তার বিপক্ষে আমার সেরাটাই দেয়ার চেষ্টা করব। তবে জয়ের ব্যাপারেও আমি যথেষ্ট আশাবাদী।’

প্রকাশিত : ৯ জানুয়ারী ২০১৫

০৯/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: