কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অসমে হত্যাযজ্ঞের জন্য দায়ীদের ধরতে সেনা অভিযান

প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ভারতের অসম রাজ্যে শোণিতপুর ও কোকরাঝাড় জেলায় যে বোড়ো বিদ্রোহীদের হামলায় ৮০ জনের বেশি প্রাণ হারিয়েছে তাদের সন্ধানে ব্যাপক সেনা অভিযান শুরু হয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনীর ‘অল-আউট’ নামের এই অভিযানে প্রায় পাঁচ হাজার সৈন্য নামানো হয়েছে। অভিযান শুরুর প্রথম দিনে তারা শোনিতপুরে চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছে বলে সেনা সূত্র থেকে জানানো হয়েছে। সেনাবাহিনীর স্থল অভিযানের পাশাপাশি সামরিক হেলিকপ্টারও অভিযানে অংশ নিচ্ছে। খবর বিবিসি বাংলার।

ভারতের সেনাপ্রধান ডিএস সুহাগ দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে শুক্রবার বৈঠক করে তাঁকে সেনা অভিযান সম্পর্কে অবহিত করেছেন। সেনা সূত্র থেকে আরও জানানো হয়েছে অভিযানের প্রথম দিনে শোনিতপুর থেকে ভুটানগামী মূল সড়কে সেনা উপস্থিতি জোরদার করা হয়েছে।

অসমে নিষিদ্ধ বোড়ো সংগঠন এনডিএফবির একটি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর হামলায় শোনিতপুর ও কোকরাঝাড় জেলায় চা বাগানের শ্রমিকদের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় বারোটি আদিবাসী সংগঠন শুক্রবার অসমে ১২ ঘণ্টার ‘অসম বন্্ধ’-এর ডাক দিয়েছিল। ধর্মঘট চলে সকাল ছয়টা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত। পুলিশ জানায়, এ সময় বিভিন্ন জায়গা থেকে বিক্ষিপ্ত সহিংসতার খবর পাওয়া যায়। অসমের শোনিতপুর ও কোকরাঝাড় জেলায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অন্তত পাঁচটি গ্রামে বোড়ো জঙ্গীদের হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৩। শোনিতপুরে মারা গেছে ৪১ এবং কোকরাঝাড়ে ৪২ জন।

এনডিএফবি (সংবিজিৎ) গোষ্ঠীর জঙ্গীরা মূলত চা বাগিচার আদিবাসী শ্রমিক পরিবারগুলোর নারী-শিশু-পুরুষদের বাড়ি থেকে বের করে এনে লাইনে দাঁড় করিয়ে তাদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালানো হয় বলে স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার রাতেও অসমের বিভিন্ন জায়গায় অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় পুলিশ। উপদ্রুত দুই জেলা থেকে প্রায় ১০ হাজার মানুষ পালিয়ে বিভিন্ন ত্রাণশিবিরে আশ্রয় নিয়েছে।

প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪

২৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: