২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

গ্রীসকে ইউরোজোনে রাখতে হবে, বলছে ফ্রান্স


অনলাইন ডেস্ক ॥ ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী ম্যানুয়েল ভালস বলছেন, গ্রীসকে ইউরোজোনের রাখার জন্য তার দেশ সবরকম চেষ্টাই করবে, কারণ ইউরোপের পক্ষে গ্রীসের বেরিয়ে যাবার ঝুঁকি নেয়া সম্ভব নয়।

ফরাসী রেডিওতে দেয়া এক সাক্ষাতকারে মি ভালস বলেন, তিনি নিশ্চিত যে গ্রীসের ঋণ সংকট সমাধানের ব্যাপারে একটা মতৈক্য হওয়ার যৌক্তিক ভিত্তি এখনো আছে।

ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জঁ-ক্লদ ইয়ুংকারও একই মনোভাব প্রকাশ করেছেন।

তবে তিনি গ্রীসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন যেন তারা ইউরোপিয়ান নেতাদের বৈঠকে স্পষ্ট একটি প্রস্তাব নিয়ে আসে।

আজই ব্রাসেলসে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অর্থমন্ত্রীদের এক জরুরি সম্মেলন শুরু হয়েছে।

এতে গ্রীক প্রধানমন্ত্রী আলেক্সি সিপ্রাস নতুন প্রস্তাব উত্থাপন করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

গ্রীসের ঋণের বোঝা লাঘব করার জন্য অর্থ সহায়তা দেবার বিনিময়ে ঋণদাতা সংস্থাগুলো দেশটিকে কঠোর ব্যয়সংকোচন ও সংস্কারের শর্ত দিয়েছিল।

কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আলেক্সিস সিপ্রাস এসব শর্ত মানতে অস্বীকার করে এব্যাপারে এক গণভোট ডাকেন। গণভোটে ৬০ শতাংশেরও বেশি গ্রীক ′না′ সূচক রায় দেন।

এর পরই প্রশ্ন ওঠে, ঋণ পরিশোধের সময়সীমা এবং শর্ত অগ্রাহ্য করার পর গ্রীস আর ইউরোজোনে থাকতে পারবে কিনা।

গ্রীসের দেয়া অর্থ সহায়তার একটা বড় অংশ আসছে জার্মানি থেকে । তবে গণভোটের পর চ্যান্সেলর এঙ্গেলা মার্কেলের কোয়ালিশনের শরিকদের কেউ কেউ গ্রীসকে আবারো আর্থিক সাহায্য দেবার বিরোধিতা করছে। সূত্র-বিবিসি।