কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে ব্যাংকিং সেবা

প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্যাংকিং খাতের সেবা তৃতীয় পক্ষের (আউটসোর্সিং) মাধ্যমে দেয়া যাবে। এজন্য ব্যাংককে তৃতীয় কোন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করতে হবে। তবে তৃতীয় পক্ষের সম্পাদিত কার্যক্রমের সাার্বিক দায়-দায়িত্ব ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ আউটসোর্সিং বন্দোবস্ত সম্পর্কিত একটি নীতিমালা জারি করেছে। আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে সেবা প্রদানে ব্যাংকগুলোকেও অনুরূপ নীতিমালা প্রণয়নের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে, যা ওই ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় অনুমোদন করিয়ে নিতে হবে। এজন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের কোন পূর্বানুমতি নেয়ার দরকার হবে না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিপত্রে বলা হয়েছে, ব্যাংকের মৌলিক ব্যবস্থাপনা, সব ধরনের ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম এবং মৌলিক ব্যাংকিং কর্মকা- আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে করানো যাবে না। তবে বিদেশী ব্যাংকগুলো মৌলিক ব্যবস্থাপনা বা ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমের অংশ বিশেষ বাংলাদেশের বাইরে অবস্থিত কোন নিজস্ব কার্যালয় হতে পরিচালনা করতে পারবে। এছাড়া সংবিধিবদ্ধ নিরীক্ষা, আইন ও বিশেষজ্ঞ পরামর্শ সেবা, ড্রয়িং এ্যারেঞ্জমেন্ট, বৈদেশিক লেনদেন এবং ব্যাংকিং সেবার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত নয় এমন কার্যক্রম যেমনÑ কুরিয়ার সার্ভিস, ভবন রক্ষণাবেক্ষণ ও পয়ঃপরিষ্কার, খাদ্য সরবরাহ, ব্যাংক ভবনের নিরাপত্তা, গ্যাস-পানি-বিদ্যুত পরিষেবা, টেলিফোন ও টেলিযোগাযোগ সেবা, বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য মিডিয়া বা ফার্মের ব্যবহার, স্টেশনারি মুদ্রণ (চেক, ড্রাফট ব্যতীত) আউটসোর্সিং বলে বিবেচিত হবে না।

দেশের রাজনীতি, অর্থনীতি ও আইনী কাঠামোতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে এমন কোনও প্রতিষ্ঠানের দ্বারা আউটসোর্সিং করতে পারবে না ব্যাংকগুলো। এছাড়া আউটসোর্সিংয়ের কর্মকা-ের মাধ্যমে গ্রাহকের গোপনীয় তথ্যাবলী যাতে পাচার করা যাবে না।

সোমবার জারি করা আউটসোর্সিং বন্দোবস্ত সম্পর্কিত নীতিমালায় এসব শর্তারোপ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। পরিপত্রে আউটসোর্সিং নীতিমালা, আউটসোর্সিং কর্মকা-, সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান নির্বাচন, চুক্তি, গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ, পরিবীক্ষণ ও নিয়ন্ত্রণ, দেশের বাইরে আউটসোর্সিং বিষয়ে বিস্তারিত বলা হয়েছে। আউটসোর্সিংয়ের প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিচালন ব্যয় কমানোর পাশাপাশি কৌশলগত লক্ষ্য অর্জনে ব্যাংক বহির্ভূত প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে সেবা প্রবণতা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। কিন্তু ব্যাংকের বিভিন্ন বিধি-নিয়ন্ত্রিত ও অনিয়ন্ত্রিত কর্মকা- সম্পাদনে সেবা প্রদানকারী তৃতীয় পক্ষের ওপর অতিরিক্ত নির্ভরশীলতা ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা এবং প্রচলিত আইন ও বিধি-বিধানের পরিপালন পরিবীক্ষণে ব্যাংকের সক্ষমতাকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করতে পারে।

প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারী ২০১৫

২০/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অর্থ বাণিজ্য



ব্রেকিং নিউজ: