মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আঞ্চলিক উন্নয়নে ভারতকে এগিয়ে আসতে হবে ॥ বাণিজ্য মন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ শিল্প ও বাণিজ্যে ভারতের কাছে আরও সহযোগিতা চাইলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। কলকাতার বাইপাসে মিলনমেলা প্রাঙ্গণে গত শুক্রবার শিল্প ও বাণিজ্যমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর থেকে ভারত সাহায্য করে আসছে। সেই সহযোগিতা তিনি আরও বাড়ানোর ওপর জোর দেন।

দুই দেশের বন্ধুত্বের কথা তুলে ধরে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ভারত এখন পৃথিবীর অন্যতম শক্তিধর দেশ। তাই এ অঞ্চলের উন্নয়নে ভারতকেই এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ, ভারত, চীন ও মিয়ানমারের মধ্যে বিশেষ অর্থনৈতিক করিডর গড়ে তোলার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে ভারতকেই অগ্রণী ভূমিকা নিতে হবে। আর এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে চারটি দেশই আর্থিকভাবে লাভবান হবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ভারতীয় টিভি চ্যানেলগুলো বাংলাদেশে দেখানোর ব্যাপারে কোনো বাধা নেই। বাংলাদেশের মানুষ সহজেই ভারতের বিভিন্ন চ্যনেল দেখতে পারেন। কিন্তু বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো সেভাবে ভারতে দেখা যায় না। এর কারণ বাংলাদেশের চ্যানেলগুলোর কাছে বিরাট অংকের টাকা চাওয়া হয়। এ বাধা কাটানোর জন্য তিনি ভারত সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান।

১৬ মাস পর সিলেট চেম্বারের নির্বাচন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্যবসায়ীদের দুপক্ষের বিরোধের কারণে ১৬ মাস ধরে আটকে থাকা সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির নির্বাচন আগামী ৩১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সিলেট চেম্বারের প্রশাসক জেডএম নুরুল হক এ তথ্য জানিয়েছেন। ব্যবসায়ীদের দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়ে যাওয়ায় দু’সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্নের জন্য চেম্বার প্রশাসককে নির্দেশ দেন হইকোর্ট। আদালতে ব্যবসায়ীদের দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলার কারণে প্রায় ১৬ মাস ধরে আটকে ছিল চেম্বারের নির্বাচন। জানা যায়, সিলেট চেম্বার অব কমার্সের নির্বাচন গত বছরের ২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এর আগে ৩০ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের প্রার্থী হাফিজুর রহমান খান ও হাসিন আহমদ মিন্টুর দায়ের করা রিট পিটিশনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ৪ সপ্তাহের জন্য চেম্বার নির্বাচনের উপর স্থগিতাদেশ দেন। হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের আরেক পক্ষ গত বছরের ১ অক্টোবর চেম্বার জজ আদালতে আপিল করলে বিচারপতি মাহমুদ হোসেন তা পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে রেফার করেন। ফলে দীর্ঘদিন ধরে আটকে থাকে সিলেট চেম্বারের নির্বাচন। এর ফাঁকে চেম্বারে নিয়োগ দেয়া হয় প্রশাসক।

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪

২৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: