ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

বুড়িগঙ্গা থেকে রেসিডেনসিয়াল মডেল ছাত্রের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ০৮:০২, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বুড়িগঙ্গা থেকে রেসিডেনসিয়াল মডেল ছাত্রের লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাসা থেকে নিখোঁজ হওয়ার দুই দিন পর ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর সামসুল আলম সিয়াম লাশ পাওয়া গেছে বুড়িগঙ্গা নদীতে। সামসুল আলম সিয়াম নামের ১৫ বছর বয়সী ওই তরুণের লাশ বৃহস্পতিবার নদী থেকে উদ্ধারের পর শুক্রবার ময়নাতদন্ত শেষে লক্ষ্মীপুরে তাদের গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সিয়ামের বাবা হারুনুর রশিদ বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো এবং মা ফাতেমা আক্তার শ্যামলী টিবি হাসপাতালে চাকরি করেন। তার বড় বোন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। মিরপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, স্কুলে যাওয়ার কথা বলে গত মঙ্গলবার মিরপুরের বাসা থেকে বেরিয়েছিল সিয়াম। কিন্তু পরে তার সন্ধান না পেয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এরপর বৃহস্পতিবার বিকেলে পোস্তগোলা ব্রিজের নিচে বুড়িগঙ্গায় সিয়ামের লাশ ভেসে উঠলে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ তা উদ্ধার করে। ছেলেটির লাশে পচন ধরেছিল। তার পরনে ছিল স্কুলের ইউনিফর্ম। শুক্রবার মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গে সিয়ামের লাশের ময়নাতদন্ত হলেও প্রতিবেদন না পাওয়ায় সিয়ামের মৃত্যুর কারণ জানাতে পারেনি পুলিশ। রেসিডেনসিয়াল মডেলের অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া বলেন, সিয়াম এবার টার্ম পরীক্ষায় দুই বিষয়ে ফেল করে। যেদিন সে নিখোঁজ হয়, সেদিন তার বাবা-মা কলেজে এসে ক্লাস টিচার ও ভাইস প্রিন্সিপালের সঙ্গে দেখা করে গিয়েছিলেন। এদিকে সিয়ামের পরিবারের অভিযোগ, কলেজের অংকের শিক্ষক হিসাব আলীর কাছে প্রাইভেট পড়া বাদ দেয়ায় সিয়ামকে নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছিল। তবে তারা এ বিষয়ে পুলিশের কাছে কোন অভিযোগ করেননি।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২