মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সিপিবি-বাসদ সমাবেশ সরকার ধনীকে ধনী, গরিবকে গরিব বানাচ্ছে

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, মিথ্যা হিসাব দিয়ে দেশকে ‘মধ্য আয়ের দেশ’ বলে দাবি করা হচ্ছে। সব মানুষের আয় কি এক লাখ টাকা? এটা মিথ্যাচার ছাড়া আর কিছুই নয়। সরকার ধনীকে আরও ধনী এবং গরিবকে আরও গরিব বানাচ্ছে। ‘মধ্য আয়ের দেশ’ বলে মিথ্যাচার না করে সরকারকে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের ব্যবস্থা করতে হবে।

১০ জুলাইয়ের মধ্যে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন ও বোনাসসহ বকেয়া পরিশোধের দাবিতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের উদ্যোগে শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ-সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। বাসদ-এর সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন সিপিবি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট মণ্টু ঘোষ, বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন। সমাবেশটি পরিচালনা করেন সিপিবি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লাবলু। সমাবেশে সেলিম আরও বলেন, প্রতিবছর ঈদ আসলেই শ্রমজীবী মানুষের আতঙ্ক নেমে আসে। এই আতঙ্ক বেতন-বোনাস না পাওয়ার আতঙ্ক। এবার আগে থেকেই আমরা বেতন-বোনাসের দাবি জানাচ্ছি। আমাদের দাবির প্রেক্ষিতে শ্রমমন্ত্রী বলেছেন, ১০ জুলাইয়ের মধ্যে বেতন এবং ১৪ জুলাইয়ের মধ্যে বোনাস দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আমাদের প্রশ্ন, বোনাস কেন দেরিতে দেয়া হবে? তাহলে বোনাস যাতে না দিতে হয়, সেই ব্যবস্থা করতে কি শ্রমমন্ত্রী মালিকদের জন্য একটা রাস্তা বের করে দিচ্ছেন? বেতন-বোনাস না দেয়ার কোন অজুহাতই মানা হবে না।

খালেকুজ্জামান বলেছেন, ব্যাংক বন্ধ, লোন পাওয়া যাচ্ছে না ইত্যাদি নানা অজুহাত তৈরি করা হচ্ছে। এসব কোন অজুহাতই মেনে নেয়া হবে না। ১০ জুলাইয়ের মধ্যে সব শ্রমিকের বেতন-বোনাস পরিশোধ করতে হবে। এর ব্যত্যয় হলে তা মেনে নেয়া হবে না। শ্রমিক আন্দোলন দমানোর জন্য মালিকরা বিভিন্নভাবে মস্তান, প্রশাসন, পেশীশক্তি ব্যবহার করে। শ্রমিকদেরও ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের সব ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুরানা পল্টনে এসে শেষ হয়।

গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট ॥ ২০ রোজার মধ্যে পূর্ণ উৎসব ভাতাসহ প্রাপ্য সকল পাওনা পরিশোধ এবং ছাঁটাই-নির্যাতন-হয়রানি বন্ধের দাবি জানিয়েছে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট। শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সংগঠনের উদ্যোগে এ দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি আহসান হাবিব বুলবুলের সভাপতিত্বেঅনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি খালেকুজ্জামান লিপন, খায়রুল কবির, সাধারণ সম্পাদক সেলিম মাহমুদ, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম গোলক, সাংগঠনিক সম্পাদক সৌমিত্র কুমার দাস, সাইফুল ইসলাম শরীফ প্রমুখ। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রতিবছর রোজার শুরুতে শ্রম মন্ত্রণালয় মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করে সকল পোশাক শিল্প শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধের আশ্বাস দেয়।

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৫

০৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: