আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গ্যাটলিন নয় বোল্টই মূল প্রতিপক্ষ ॥ পাওয়েল

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগস্টের অপেক্ষায় আছেন অনেকেই। কারণ বেজিংয়ে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপসে এবার টানটান উত্তেজনাপূর্ণ প্রতিযোগিতা হতে যাচ্ছে। স্প্রিন্ট সম্রাট জ্যামাইকার উসাইন বোল্ট দীর্ঘদিন ট্র্যাক এ্যান্ড ফিল্ডের বাইরে। কিন্তু অলিম্পিক ও বিশ্ব আসরে ট্রেবলজয়ী সর্বকালের সবচেয়ে গতিধর এ মানব বিশ্বের যে কোন স্প্রিন্টারের জন্যই বড় চ্যালেঞ্জ। যদিও বর্তমানে ফর্মের তুঙ্গে আছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাস্টিন গ্যাটলিন। তাঁর সঙ্গেই মূলত বোল্টের লড়াই হবে শ্রেষ্ঠত্বের। কিন্তু বোল্টের স্বদেশী আসাফা পাওয়েল খুব বেশি পিছিয়ে নেই। তাঁরও লক্ষ্য বোল্টকে হারিয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। সেজন্য গ্যাটলিন নয় বরং বোল্টকেই মূল প্রতিপক্ষ মনে করছেন তিনি। মার্শেইয়ে ডায়মন্ড লীগ মিটে নামার আগে এমন দাবি করেন পাওয়েল।

বোল্ট না থেকেও যেন আছেন। ইনজুরির সঙ্গে যুদ্ধ এবং তা সেরে যাওয়ার পর নিজেকে ফিরে পাওয়ার লড়াইয়ে যখন ‘বিদ্যুত বোল্ট’ দারুণ ব্যস্ত এবং প্রতিযোগিতার বাইরে সে সময়টাতে যেন জ্বলে উঠেছেন গ্যাটলিন ও পাওয়েল। পরস্পরের মধ্যে এখন পর্যন্ত চলতি মৌসুমে সাক্ষাত না হলেও নিজেদের মেলে ধরছেন বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় একে অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার জন্য। প্রথমে পাওয়েল মৌসুম সেরা টাইমিং গড়লেন ৯.৮৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে। কিন্তু কিছুদিন গড়ানোর পরই তাঁকে পেছনে ফেললেন দোহায় অনুষ্ঠিত ডায়মন্ড লীগে গ্যাটলিন। তিনি টাইমিং গড়লেন ৯.৭৪ সেকেন্ডের। তবে প্রতিবারই আলোচনায় এসেছেন বোল্ট। ট্র্যাক এ্যান্ড ফিল্ডের বাইরে থাকলেও আসন্ন বিশ্ব আসরে তাঁর শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হবেন গ্যাটলিন-পাওয়েল এমন আলোচনাই তীব্র হয়ে উঠেছে। তবে পাওয়েল নিজে গ্যাটলিনকে বড় প্রতিপক্ষ মনে করছেন না। বিশ্ব আসরে জিততে হলে অবশ্যই বোল্টকে হারাতে হবে বলে মনে করেন তিনি। পাওয়েল বলেন, ‘যাকে হারাতে হবে তিনি হচ্ছেন বোল্ট। তিনিই মূল প্রতিদ্বন্দ্বী আমার সেরা হওয়ার ক্ষেত্রে।’

১০০ মিটারে আগের বিশ্বরেকর্ডটা ছিল পাওয়েলের দখলে। ২০০৫ সালের জুনে তিনি ৯.৭২ সেকেন্ড টাইমিং গড়ে সেই বিশ্বরেকর্ড স্থাপন করেছিলেন। তবে ২০০৮ সালের মে মাসে তা ভেঙ্গে ফেলে বোল্ট সবাইকে বিস্মিত করে দেন ৯.৫৮ সেকেন্ড টাইমিং গড়ে। তবে নিজেকে আবার সেরা অবস্থানে নিতে সচেষ্ট পাওয়েল। ৩২ বছর বয়সী এ জ্যামাইকান বলেন, ‘ইনজুরিমুক্ত অবস্থায় চলতি মৌসুমে ভালভাবে শুরু করতে পেরে আমি খুব ভাল বোধ করছি। তবে আমি ঠিক বুঝে উঠতে পারছি না কী কারণে নিজের সেরাটা দিতে ব্যর্থ হচ্ছি। আমি মনে করি, এখনও আমার সেরাটা উপহার দেয়ার বাকি আছে।’ ইউরোপিয়ান স্প্রিন্ট রৌপ্যজয়ী ক্রিস্টোফ লেমেইটায়ারের বিরুদ্ধে দৌড়াবেন তিনি মার্শেই মিটে।

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫

০৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: