কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মগবাজারে দিনদুপুরে গুলি চালিয়ে ৩৩ লাখ টাকা ছিনতাই

প্রকাশিত : ২৫ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মগবাজারে ব্যস্ত সড়কে দিনদুপুরে দুর্বৃত্তরা বেসরকারী কোম্পানির এক কর্মকর্তাকে গুলি করে প্রায় সাড়ে ৩৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। রবিবার দুপুরে মগবাজার ব্র্যাক ব্যাংক শাখার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর সোয়া ১টায় মগবাজার ওয়্যারলেসের সামনে এ্যাকোয়া মেরিন ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেডের হিসাবরক্ষক সেলিম আক্তার (২৯) তার সহকর্মী পিন্টু রঞ্জন দাসকে সঙ্গে নিয়ে হেঁটে কোম্পানির ৩৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা নিয়ে বিশাল সেন্টারের সামনে ব্র্যাক ব্যাংকে জমা দিতে যাচ্ছিলেন।

ব্যাংকের সামনে পৌঁছা মাত্রই চার-পাঁচ যুবক পেছন থেকে সেলিমকে জড়িয়ে ধরে টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়।

ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ওই যুবকরা সেলিমের ঊরুতে গুলি করে ৩৩ লাখ ২৭ হাজার টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয় এবং ফাঁকা গুলি ছুড়ে মোটরসাইকেল যোগে পালিয়ে যায়। পরে গুলিবিদ্ধ সেলিমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আহতের সহকর্মী ওই কোম্পানির হিসাবরক্ষক পিন্টু রঞ্জন দাস জানান, তাদের কোম্পানির অফিস থেকে মগবাজার ব্র্যাক ব্যাংকের দূরত্ব ২০ থেকে ৩০ গজ। তিনি ও তার সহকর্মী হিসাবরক্ষক সেলিম আক্তার ৩৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা দুটি ব্যাগে করে ব্র্যাক ব্যাংকে জমা দিতে যাচ্ছিলেন। ব্যাংকের কাছাকাছি আসতেই তিনি দেখতে পান, দুই যুবক এসে সেলিম আক্তারের কোমর জড়িয়ে ধরে। এ সময় তিনি পেছন দিকে টাকার ব্যাগটি নিয়ে দৌড় দিতে গেলে তা পড়ে যায়। পিন্টু দাসের দাবি, তিনি টাকার ব্যাগটি তুলতে গেলে দুর্বৃত্তরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। তবে গুলি তার গায়ে লাগেনি। তার সহকর্মী সেলিমের ঊরুতে গুলি লাগে পরে তিনটি মোটরসাইকেলে করে দুর্বৃত্তরা এসে টাকার ব্যাগটি তুলে নিয়ে ওয়্যারলেস গেটের গলিপথ দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তিনি দৌড়ে অফিসে গিয়ে অন্য সহকর্মীদের ঘটনাটি জানালে তারা সেলিমকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করে। সেলিমের বাম পায়ের ঊরুর পেছনে গুলি লেগেছে। তবে মোটরসাইকেলে কতজন ছিল। তা তিনি জানাতে পারেননি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ব্যস্ততম এই সড়কটিতে হঠাৎ ৪-৫ যুবক এসে সেলিম নামে ওই ব্যক্তিকে জড়িয়ে ধরে ব্যাগ নিয়ে টানাটানি করছিল। এ সময় এক যুবক পিস্তল বের করে ওই যুবকের পায়ে গুলি চালিয়ে টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়। মূহূর্তে তিনটি মোটরসাইকেল ওইস্থানে এসে ওই যুবকদের তুলে নেয়। আর এক যুবক মোটরসাইকেলে বসে থেকে ফাঁকা গুলি ছুড়তে ছুড়তে ওয়্যারলেস গেটের গলিমুখ দিয়ে দ্রুত বেগে পালিয়ে যায়। গুলি আতঙ্কে আশপাশের দোকানপার্ট বন্ধ হয়ে যায়। পথচারীরা দিগি¦দিক ছোটাছুটি শুরু করে।

রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মশিউর রহমান জনকণ্ঠকে জানান, ছিনতাইকারীদের চিহ্নিত করা গেছে। এরা মগবাজার ও এর আশপাশ এলাকার। ইতোমধ্যে ছিনতাইকারীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে। লুণ্ঠিত টাকাগুলো উদ্ধার সম্ভব হবে বলে ওসি মশিউর রহমান জানান।

আহত সেলিমের বরাত দিয়ে ঢামেক হাসপাতালে পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, দুপুর সোয়া ১টার দিকে সেলিম সহকর্মী পিন্টু রঞ্জন দাসকে সঙ্গে নিয়ে অফিসের জমাকৃত ৩৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা জমা দিতে অদূরে ব্র্যাক ব্যাংকে যাচ্ছিলেন। ব্র্যাক ব্যাংকের সামনে পৌঁছলে চার-পাঁচ যুবক পেছন থেকে দুজনে জড়িয়ে ধরে সেলিমের ঊরুতে গুলি করে সঙ্গে থাকা টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে পালিয়ে যায়।

প্রকাশিত : ২৫ মে ২০১৫

২৫/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: