কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফরিদপুরে সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ১২ মে ॥ ভাঙ্গা উপজেলার তুজারপুর ইউনিয়নের তুজারপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহরাব ভূইয়ার পক্ষের সঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক সরোয়ার হোসেনের পক্ষের মধ্যে ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়। এ সময় সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে আতঙ্কে তুজারপুর গ্রামের রশিদ মাতুব্বর (৭৫) নামক এক ব্যক্তি মারা যায়। মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবত দুই পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। গত দুই বছরে বেশ কয়েকবার দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। গত কয়েকদিন যাবত দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে সোহবার ভূইয়ার দলের সদস্য মান্নান মিয়ার ছেলে তুজারপুর এসএ একাডেমির ৮ম শ্রেণীর ছাত্র ইমরান হোসেনকে (১৪) সরোয়ার হোসেনের দলের রেজাউল (৩৫) ও পলাশ (৪০) মারধর করে।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষ ঢাল, সড়কিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষ ঠেকাতে এসে সোহরাব ভুইয়ার পক্ষের রশিদ মাতুব্বর (৭৫) ঘটনাস্থলে মারা যায়। সংঘর্ষের সত্যতা স্বীকার করে সোহরাব ভূইয়া ও সরোয়ার হোসেন বলেন, রশিদ মাতুববর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

নেত্রকোনায় আহত ১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা নেত্রকোনা থেকে জানান, জেলার খালিয়াজুরি উপজেলার চাকুয়া ইউনিয়নের ফতুয়া গ্রামে সোমবার সন্ধ্যায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে।

জানা গেছে, ফতুয়া গ্রামের আনছার আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম সোমবার বিকেলে তার গরু নিয়ে পার্শ্ববর্তী রানিচাপুর বড়কান্দা হাওড়ে রানিচাপুর গ্রামের কুতুব উদ্দিনের ক্ষেতের ধান খাওয়ায়। এ সময় কুতুব উদ্দিনের ছেলে সজীব বাধা দিলে দুজনের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এর জের ধরে আনছার আলীর লোকজন সন্ধ্যায় রানিচাপুর গ্রামে কুতুব উদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালাতে গেলে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়।

খাগড়াছড়িতে

আহত পাঁচ

পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি, খাগড়াছড়ি জানান, জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় কাঁঠালপাড়াকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ উভয়পক্ষের অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার বেলছড়ি ইউনিয়নের ঢাকাইয়াপাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

এতে মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে মোঃ এরশাদ আলী, মোঃ এরশাদ আলীর স্ত্রী জয়বুনের নেছা ও অপর পক্ষের মোঃ আবদুল ওহাবের ছেলে মোঃ শাহ আলম, মোঃ আবদুল ওহাবের ছেলে মোঃ খোরশেদ আলম ও মোঃ খোরশেদ আলমের স্ত্রী মোছলেমা বেগম আহত হয়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহতদের উদ্ধার করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে মোঃ শাহ আলমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫

১৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: