মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাঘায় ভ্রমণপিপাসুদের নয়া সংযোজন জাদুঘর আজ উদ্বোধন

প্রকাশিত : ৭ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ হযরত শাহদৌল্লাহর মাজার আর প্রাচীন স্থাপত্যের নিদর্শনসমৃদ্ধ দেশের অন্যতম দর্শনীয় স্থান রাজশাহীর বাঘা। প্রায় ৫০০ বছরের পুরনো শাহী মসজিদ এখানকার সবচেয়ে দর্শনীয় স্থান। এবার ইতিহাসসমৃদ্ধ বাঘায় যুক্ত হলো প্রাচীন স্থাপত্যের নিদর্শনসমৃদ্ধ জাদুঘর।

ঐতিহ্যবাহী শাহী মসজিদ ঘিরে সুবিশাল দীঘি, প্রাচীন অন্দরমহল, পুকুরের ধ্বংসস্তূপ, হযরত আব্দুল হামিদ দানিশ মান্দ এবং তদ্বীয় হযরত মুয়াজ্জেম দানিশমান্দসহ শাহ্দৌল্লাহর মাজার ও উৎসব পার্ক ভ্রমণপ্রিয় এবং ধর্মানুরাগী মানুষের জন্য এক সেরা আকর্ষণীয় স্থান। সেখানেই এবার যুক্ত হলো জাদুঘর। এখন দর্শনীয় স্থান হিসেবে বাঘায় কেউ বেড়াতে এলে এক সঙ্গে দেখা মিলবে ঐতিহ্যবাহী শাহী মসজিদ, সুবিশাল দীঘি, প্রাচীন স্থাপত্যের নিদর্শনসমৃদ্ধ জাদুঘর।

আজ বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে এ জাদুঘর দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এ জাদুঘরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বিকেলে। জাদুঘরের উদ্বোধন উপলক্ষে তাই নতুন করে সাজানো হয়েছে সবকিছু।

রাজশাহী শহর থেকে ৫০ কিলোমিটারের পথ বাঘা উপজেলা সদর। বয়ে চলা পদ্মা নদীর কোল ঘেঁষে এ উপজেলার অবস্থান। এমনিতে দর্শনীয় স্থান হিসেবে খ্যাত তার সঙ্গে জাদুঘর নির্মাণ এ উপজেলাকে করেছে আরও সমৃদ্ধ ও আকর্ষণীয়।

প্রতœতত্ত্ব বিভাগ ইতোমধ্যে জাদুঘরের ভেতরে কারুকার্যে খচিত বিভিন্ন উপকরণ যেমন- পোড়ামাটির তৈজসপত্র, মুঘল সম্রাট ও সুলতানী আমলের মুদ্রা, পনের-ষোল ও পঞ্চাশ শতকের টাইলস, অলঙ্কারিক ইট, ব্রোঞ্চের তৈরি পাত্র এবং দেশের ঐতিহ্য সম্পন্ন মসজিদের ছবিসহ উল্লেখযোগ্য প্রকৃতির লীলাভূমির নিদর্শন সম্বলিত ছবি সংযুক্ত করেছে এখানে।

জাদুঘরটি উন্মুক্তের জন্য গত তিন বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে আজ। তাই বাঘাবাসী দারুণ খুশি ও উদ্বেলিত।

বাঘার ঐতিহাসিক শাহী মসজিদ ও বিশাল দীঘিকে ঘিরে আগত দর্শনার্থীদের পর্যটন সুবিধা বৃদ্ধিসহ অতীতের হারানো ঐতিহ্য আর সুন্দর পরিবেশের ছোঁয়া দেয়ার জন্য দীঘির পশ্চিম পাড়ে ও হযরত শাহ আব্দুল হামিদ দানিশ মন্দ (রহঃ)’র মাজারের ঠিক উত্তরে নির্মিত হয়েছে জাদুঘরটি।

বাঘা মাজার শরিফের মোতায়াল্লী খন্দকার মনসুরুল ইসলাম জানান, এ অঞ্চলের মানুষ দীর্ঘদিন থেকে এ জাদুঘরটি উদ্বোধনের অপেক্ষায় ছিল। জাদুঘর ও পর্যটন এলাকা পরিদর্শনের জন্য কোন ফি লাগবে না। সংস্কৃতিমন্ত্রী ছাড়াও স্থানীয় সাংসদ ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া প্রতœতত্ত্ব বিভাগের মহাপরিচালক শফিকুল ইসলাম মুকুট বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন জাদুঘর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে।

বাঘার আরেকটি অন্যতম আকর্ষণ সুবিশাল স্বচ্ছ পানির দীঘি। বাংলার স্বাধীন সুলতান আলাউদ্দীন হুসাইন শাহ্ ছেলে নাসির উদ্দীন নুশরত শাহ্ মসজিদের সঙ্গেই জনকল্যাণের নিমিত্তে খনন করেন এ দীঘি। শাহী মসজিদ ও মাজার সংলগ্ন এ দীঘিটি ৫২ বিঘা জমির উপরে রয়েছে। শীত মৌসুমে সুদূর সাইবেরিয়া থেকে এ দীঘিতে আগমন ঘটে অসংখ্য পরিযায়ী ও অতিথি পাখির। যা ভ্রমণবিলাসী মানুষের নজর কাড়ে। সময়ের প্রয়োজনের এখানে গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি পিকনিক কর্ণার।

প্রকাশিত : ৭ মে ২০১৫

০৭/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: