মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবের ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘদিন ধরে ঘরোয়া ফুটবলে আধিপত্য বিস্তার করা দেশের দুই ঐতিহ্যবাহী ও জনপ্রিয় দল আবাহনী-মোহামেডানকে টপকে আজ দেশ তো বটেই, দক্ষিণ এশিয়ার সেরা ক্লাবে পরিণত হয়েছে শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব লিমিটেড। মঙ্গলবার ক্লাবটি পালন করল তাদের ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। বনানী কবরস্থানে সকাল ১০টায় ক্লাবের নামকরণ যাঁর নামে, সেই শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন ক্লাবের খেলোয়াড়, উর্ধতন কর্মকর্তা এবং ভক্ত-অনুরাগীরা। তারপর জোহরের নামাজের পর দুপুরে ক্লাব প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় কোরান খতম ও বিশেষ দোয়া মাহফিল। তারপর ক্লাবের উর্ধতন কর্মকর্তারা এক বিশেষ সভায় মিলিত হন। সেখানে ক্লাব সভাপতি মনজুর কাদের ক্লাবের পরবর্তী লক্ষ্য, সাফল্য ও করণীয় পদক্ষেপের বিভিন্ন দিকনিদের্শনা প্রদান করেন। এছাড়া মৌসুমসূচক ফেডারেশন কাপ ফুটবলের শিরোপা জেতার জন্য ক্লাবের কোচ-খেলোয়াড়দের অচিরেই ১০ লাখ টাকা বোনাস দেয়ার ঘোষণা দেন মিসেস মনজুর কাদের।

২০১০ সালে ধানম-ি ক্লাবটি শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব নামে আত্মপ্রকাশ করে। তারা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। ২০১৩ সালে আটবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনীকে হারিয়ে ফেডারেশন কাপ জয় করে ক্লাবটি। ২০১০ সাল থেকে টানা চার বছর ফেডারেশন কাপের ফাইনাল খেলে তারা। দেশের বাইরে নেপালে ২০০০ সালে ক্লাব বুদ্ধ সুব্বা গোল্ডকাপ জয় করে।

২০১১ সালে নেপালে সাফাল পোখারা কাপ টুর্নামেন্টের ফাইনালে শেখ জামাল নেপাল আর্মিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। ২০১৪ সালে ভারতের কলকাতায় আইএফএ শিল্ড কাপের ফাইনালে ওঠে শেখ জামাল। ফাইনালে কলকাতা মোহামেডানের কাছে হেরে রানার্সআপ হয়। ওই বছরই ভুটানে অনুষ্ঠিত কিংস কাপে হয় অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন। শুধু পুরুষ ফুটবলেই নয়, শেখ জামাল সাফল্য পেয়েছে মহিলা ফুটবল দিয়েও। বাংলাদেশের ইতিহাসের প্রথম পেশাদার মহিলা ফুটবল লীগেও চাম্পিয়ন হয়ে তাক লাগিয়ে দেয় ক্লাবটি, যা একটি মাইফলক, একটি ইতিহাস।

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল ২০১৫

২৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: