কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রতিদ্বন্দ্বী শতাধিক চট্টগ্রামে শতবর্ষের ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলী খেলা আজ

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ গ্রাম বাংলার চিরায়ত রূপসী বাংলার সংস্কৃতি ফুটিয়ে তুলতে শতবর্ষেরও বেশি সময় ধরে চলে আসছে ঐতিহ্যের মেলা সংস্কৃৃতি। বাঙালীর ঐতিহ্য উঠে এসেছে গ্রাম বাংলার সাধারণ মানুষের হালচাল থেকে। জব্বারের বলী খেলার ১০৬তম আয়োজন আজ শনিবার। এবার শিশু থেকে প্রবীণ একশরও বেশি বলী লড়বে আজ লালদীঘির মাঠে।

মেলার আয়োজনকে ঘিরে গত দুদিন ধরে নগরীর নন্দনকানন থেকে শুরু করে কোতোয়ালি থানার মোড় পর্যন্ত ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের ব্যবসায়ীদের দখলে চলে গেছে। অতীতের ইতিহাস অনুযায়ী, আজ বিকেলে লালদীঘি মাঠেই জব্বারের ১০৬তম বলি খেলা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে বালি দিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে মাটি থেকে প্রায় ৪ ফুট উঁচু মঞ্চ। প্রায় ১৫০ বর্গফুটের মঞ্চে লড়বে দেশের বরেণ্য অঞ্চল থেকে ছুটে আসা বলিয়ানরা। প্রতিবারের ন্যায় সাধারণ বাউট ও চ্যাম্পিয়ন বাউটে ১শরও বেশি প্রতিযোগী লড়বে। বৈশাখের আগমন উপলক্ষে নানা পংক্তি বাঙালীদের জন্য লেখা হয়েছিল গদ্য আর কবিতায়। এরই একটি অংশ হিসেবে মেলার বিষয়টিও সেই গ্রাম্য পল্লী থেকে বর্তমানে শহরে ছড়িয়ে পড়েছে। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে অজপাড়া গাঁয়ে যেমন মেলার আয়োজন করা হয় সেই মেলা চট্টগ্রামে ১২ বৈশাখে জব্বারের বলি খেলা উপলক্ষে জমে উঠে। মেলার সর্ববৃহৎ আকর্ষণ হচ্ছে ব্রিটিশ শাসনামল থেকে চট্টগ্রামের রেওয়াজ হিসেবে তথা ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে বনেদী ব্যবসায়ী আব্দুল জব্বারের বলি খেলা।

ঐতিহাসিক লালদীঘি ময়দানের আশপাশ এলাকায় প্রতিবছরের ন্যয় এবারও আয়োজন করা হয়েছে মেলার। যদিও সিএমপির পক্ষ থেকে মেলার আয়োজন এবার বাদ দেয়ার কথা ছিল, কিন্তু ব্যবসায়ীদের চাপের মুখে ধরাবাধা সময়ের মধ্যেই চলবে রবিবার বিকেল পর্যন্ত। গ্রাম বাংলার অজপাড়া গাঁয়ে তৈরি হস্তশিল্পের বিশাল সমাহার রয়েছে এ মেলায়। ক্ষুদ্র ও কুটিরশিল্পের সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ীরা তাদের পসরা নিয়ে গত তিনদিন ধরে এ চত্বরকে ঘিরে নিজেদের অবস্থান ঠিক করে নিয়েছে। সেই সঙ্গে সাজিয়ে নিয়েছে কালেকশনে থাকা পণ্য সামগ্রী। মৃৎশিল্পের ফুলদানি, ছাইদানি, টেবিল বা ড্রয়িং রুমে আলোকসজ্জার ছাউনিসহ নানা ধরনের তৈজসপত্র স্থান পেয়েছে এ মেলায়। মনের মাধুরি মেশানো রংয়ে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে মৃৎশিল্পে গড়া রূপসী সমাহারে। চোখ ধাঁধাঁনো নানা আইটেম দেখে আগেভাগে আসা ক্রেতাদের মাঝে গভীর আগ্রহ যেমন প্রকাশ পাচ্ছে তেমনি মেলা শুরুর আগেই বিক্রির অর্ডার দিচ্ছে নগরীর বিভিন্ন শপিং মলে থাকা দোকানীরা। এছাড়াও গৃহসজ্জার জন্য ছুটে আসছে তরুণী ও গৃহিণীরা।

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০১৫

২৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: