কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আইপিএলে আবারও ফিক্সিং বিতর্ক!

প্রকাশিত : ১২ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) অন্যতম বাণিজ্যিক একটি ক্রিকেট আসর। অর্থের ছড়াছড়ি এই আইপিএল ঘিরেই সবচেয়ে বেশি থাকে বিশ্বব্যাপী অন্য যে কোন আসরের চেয়ে। ফ্র্যাঞ্চাইজিরা যেমন মোটা অঙ্কের বাণিজ্য করে তেমনি এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোও অর্থ উপার্জনের চেষ্টায় থাকে। সে কারণে ক্রিকেট জুয়াটাও যেন মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৩ সালে আইপিএলের ষষ্ঠ আসর (২০১৩) সবচেয়ে বড় ধাক্কাটা খেয়েছিল জুয়াড়িদের দাপটে। ওই আসরের শেষদিকে ফিক্সিং বিতর্ক নাড়িয়ে দিয়েছিল পুরো ভারতীয় ক্রিকেটকে। ফিক্সিংয়ে যুক্ত থাকার জন্য অন্যতম ফ্র্যাঞ্চাইজি রাজস্থান রয়্যালসের তিন ক্রিকেটার শান্তকুমারন শ্রীশান্ত, অজিত চান্দিলা ও অঙ্কিত চাবনসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন ১১ জুয়াড়ি। জুয়াড়িদের মধ্যেও ছিলেন সাবেক রাজস্থান ক্রিকেটার অমিত সিং। যার কালিমা থেকে নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডও (বিসিসিআই) মুক্তি পায়নি। তবে সেটা নিয়ে আইনশৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠানের পদক্ষেপ এবং আদালতের বিচারে শাস্তিও হয়েছিল অভিযুক্তদের। সে কারণে গত আসরটি এ ধরনের বিতর্ক থেকে ছিল মুক্ত। কিন্তু এবার আইপিএলের অষ্টম আসরের শুরুতেই আবার উদ্বেগ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাজস্থানের এক খেলোয়াড় দাবি করেছেন বাজে খেলার জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে তাঁকে এবং সে জন্য অর্থ প্রদানেরও প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে। তাই নতুন করে আবার ফিক্সিং বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছে।

গত ৮ এপ্রিল শুরু হয়েছে আইপিএলের অষ্টম আসর। হয়েছে মাত্র তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যেই রাজস্থানের এক খেলোয়াড় দলের ব্যবস্থাপনা বিভাগের কাছে জানিয়েছে তাঁকে খারাপ খেলার জন্য মোটা অঙ্কের অর্থ প্রদানের প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে এ প্রস্তাবটা গত মাসে অনুষ্ঠিত আরেকটি ঘরোয়া আসরের সময়ই তাঁকে করা হয়েছে। দলের পক্ষ থেকে দু’দিন আগে এমনটাই জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে রাজস্থানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রঘু আইয়ার বলেন, ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের চারিত্রিক সততা দেখিয়েই খেলোয়াড়টি রাজস্থান রয়্যালসের ম্যানেজমেন্টকে এ ধরনের অসামঞ্জস্যপূর্ণ পরিস্থিতির কথা জানিয়েছেন। রাজস্থানের পক্ষ থেকে ঘটনাটি সঙ্গে সঙ্গে জানানোর জন্য বিশেষ প্রশংসা করা হয়েছে। তাঁর সততা এবং ভাল মানসিকতাটা সত্যিই প্রশংসনীয়।’

ভারতীয় একটি জনপ্রিয় দৈনিকের প্রতিবেদনে এ বিষয়টি প্রকাশ করা হয়। ভারতের সবচেয়ে বড় প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট আসর রঞ্জি ট্রফি চলার সময়েই রাজস্থানের ওই খেলোয়াড়কে এ ধরনের প্রস্তাব করা হয়েছে বলেও দাবি করা হয়েছে প্রতিবেদনে। আসন্ন আইপিএলে সামর্থ্য অনুসারে না খেলার জন্য ওই খেলোয়াড়কে অর্থ প্রদানের আহ্বান জানানো হয়। বিসিসিআই থেকেও এক টুইটার বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করে লেখা হয়েছে, ‘একজন খেলোয়াড়কে প্রস্তাব করা হয়েছে।’

প্রকাশিত : ১২ এপ্রিল ২০১৫

১২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: