কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

‘সি আর সেভেন শো’

প্রকাশিত : ৬ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সময়টা মোটেও ভাল যাচ্ছিল না ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। এ সময়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি যেন ফাঁকা মাঠে গোল করে চলে ছিলেন! অথচ মৌসুমের শুরুতে গোল, ফর্ম সবকিছুতেই এগিয়ে ছিলেন সি আর সেভেন। কিন্তু আচমকাই ছন্দপতন পর্তুগীজ তারকার, আর স্বরূপে মেসি। তবে খুব বেশিদিন এই অবস্থা চলতে দিলেন না বর্তমান ফিফা সেরা ফুটবলার। রবিবার স্প্যানিশ লা লিগায় গ্রানাডার বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিকসহ একাই রেকর্ড পাঁচ গোল করে স্বমহিমায় ফিরেছেন রোনাল্ডো। টানা দুইবারের ফিফা সেরা তারকার উদ্ভাসিত নৈপুণ্যে গ্রানাডাকে ৯-১ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে বিধ্বস্ত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। রোনাল্ডোর মতো তাই দুঃসময় কাটিয়েছে গ্যালাক্টিকোরাও।

সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নদের হয়ে জোড়া গোল করেন ফরাসী স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। একটি গোল করেন ওয়েলস ফরোয়ার্ড গ্যারেথ বেল। অপর গোলটি আসে মেইঞ্জের আত্মঘাতীর সৌজন্যে। অতিথি গ্রানাডার হয়ে সান্ত¡নাসূচক গোলটি করেন রবার্ট ইবানেজ।

দুর্দান্ত জয়ে পয়েন্ট তালিকায় বার্সিলোনার সঙ্গে ব্যবধান কমিয়েছে রিয়াল। ২৯ ম্যাচে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে কার্লো আনচেলত্তির দল। রবিবার রাতের ম্যাচের আগে ২৮ খেলায় ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরেই আছে বার্সিলোনা। সেল্টা ডি ভিগোর বিরুদ্ধে কাতালানরা জয় পেলে আবারও রিয়ালের সঙ্গে ব্যবধান বেড়ে হবে চার পয়েন্ট। ৬২ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে বর্তমান শিরোপাধারী এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। শনিবার কর্ডোবার মাঠ থেকে প্রত্যাশিত জয় নিয়ে ফিরেছে দিয়াগো সিমিওনের দল। এ্যাটলেটিকো জয়ের ব্যবধান ২-০। বিজয়ীদের জয়ে গোল করেন এ্যান্টোনিও গ্রিজম্যান ও সাউল নিগুয়েজ। প্রথমার্ধের ৫ ও ৩৯ মিনিটে গোল দুটি পায় এ্যাটলেটিকো।

চোখ ধাঁধানো পারফর্মেনেন্স প্রদর্শন করে প্রতিদ্বন্দ্বী মেসিকে দুই জায়গায় পেছনে ফেলেছেন রোনাল্ডো। লা লিগায় চলমান মৌসুমের সর্বোচ্চ গোলদাতার আসন ফিরে পেয়েছেন ফের। এখন রোনাল্ডোর গোল ৩৬, মেসির ৩২। লা লিগার সর্বকালের সর্বোচ্চ হ্যাটট্রিকের তালিকাতেও আবার মেসিকে দুই নম্বরে ঠেলে দিয়েছেন। মেসির হ্যাটট্রিক ২৪, আর রোনাল্ডোর ২৫।

বিধ্বংসী ছন্দে ফিরতে মৌসুমের সবচেয়ে বড় জয়ই তুলে নিয়েছে রিয়াল। আর ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো পাঁচ গোল করার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন রোনাল্ডো। আট মিনিটের ব্যবধানে হ্যাটট্রিক তুলে নেন তিনি। নিজেদের মাঠে শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে আনচেলত্তির দল। তবে প্রথম গোলের জন্য লম্বা সময়ই অপেক্ষা করতে হয় স্বাগতিকদের। ২৫ মিনিটে গোলের খাতা খোলেন বেল। ডি বক্সের মধ্যে প্রথমে রক্ষণের একজনকে ও পরে গোলরক্ষককে কাটিয়ে খুব কাছ থেকে আলত টোকায় বল জালে জড়ান ওয়েলস তারকা। এবারের লীগে বেলের এটা ১৩ গোল। এরপর আট মিনিটের ঝড়ে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন রোনাল্ডো। ৩০ মিনিটে ডি বক্সের মধ্যে জেমস রড্রিগুয়েজের ছোট পাস পেয়ে ডান পায়ের শটে প্রথম গোল করেন সি আর সেভেন। ৩৬ মিনিটে গোলরক্ষকের ভুলে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন তিনি। দুই মিনিট পর হ্যাটট্রিক পূরণ করার পাশাপাশি রিয়ালকে চার গোলে এগিয়ে নেন রোনাল্ডো।

বিরতির পর ৫৪ ও ৮৯ মিনিটে আরও দুই গোল করেন রোনাল্ডো। বেনজেমা তার গোল দুটি করেন ৫২ ও ৫৬ মিনিটে। আত্মঘাতীর গোলটি আসে ৮২ মিনিটে। গ্রানাডার হয়ে গোলদাতা ইবানেজ লক্ষ্যভেদ করেন ৭৩ মিনিটে।

প্রকাশিত : ৬ এপ্রিল ২০১৫

০৬/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: