কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফের লিভারপুলে ফেরার স্বপ্ন সুয়ারেজের!

প্রকাশিত : ১ এপ্রিল ২০১৫
ফের লিভারপুলে ফেরার স্বপ্ন সুয়ারেজের!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দারুণ সুসময়ে আছেন লুইস সুয়ারেজ। বিতর্ক, ব্যর্থতা কাটিয়ে এখন দুরন্ত, দুর্বার বার্সিলোনার উরুগুইয়ান সুপারস্টার। ধারাবাহিকভাবে কাতালানদের জয়ে নায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ হচ্ছেন কামড় কাণ্ডে ব্রাজিল বিশ্বকাপের মাঝপথে নিষিদ্ধ হওয়া এই ফুটবলার। ওই নিষেধাজ্ঞাই নাকি তাকে বদলে দিয়েছে। সুসময়ে থাকা সুয়ারেজ এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন, আবার কোনদিন যদি ইংল্যান্ডে ফেরেন তাহলে আস্তানা গাড়বেন পুরনো ক্লাব লিভারপুলেই।

২০১৪ সালে লিভারপুল ছাড়লেও সাবেক ক্লাবের প্রতি ভালবাসা একটুও কমেনি সুয়ারেজের। এ কারণেই কখনও প্রিমিয়ার লীগে ফিরলে এ্যানফিল্ডের দলটির হয়েই খেলার আকাক্সক্ষার কথা জানিয়েছেন ২৮ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার। বর্তমান ও সাবেক তারকাদের অংশগ্রহণে গত রবিবার এ্যানফিল্ডে হওয়া তহবিল সংগ্রহ করার ম্যাচে খেলার জন্যে পুরনো ঠিকানায় ফেরেন সুয়ারেজ। তহবিল সংগ্রহের উদ্দেশ্যে লিভারপুলের বর্তমান অধিনায়ক স্টিভেন জেরার্ড ও সাবেক সহঅধিনায়ক জেমি ক্যারেগারের দলের মধ্যে হওয়া ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়।

সেখানে লিভারপুলের টিভিকে দেয়া সাক্ষাতকারে সুয়ারেজ বলেন, আপনি কখনই জানেন না যে, ভবিষ্যতে কি হবে। কিন্তু আবার কখনও যদি আমি ইংল্যান্ডে খেলি তাহলে লিভারপুলের জন্যই খেলব। অন্য কোন দলে নয়। তিনি আরও বলেন, লিভারপুলের সমর্থকদের আমি খুব মিস করি। তারা সবসময় আমার হৃদয়ে আছে। ম্যাচ খেলা প্রসঙ্গে সুয়ারেজ বলেন, এটা একটি স্পেশাল ম্যাচ।

এ্যানফিল্ডে ফেরাটা আমার জন্য দারুণ। বর্তমান ও সাবেক ফ্টুবলারদের সান্নিধ্য পেয়ে অনেক ভাল লেগেছে। আমি সৌভাগ্যবান যে ভক্তরা এখনও আমাকে দারুণ ভালবাসে।

২০১৪ সালের এল ক্ল্যাসিকোর মধ্য দিয়ে বার্সিলোনায় অভিষেক হয়েছিল সুয়ারেজের। ওই ম্যাচে নিজেকে মেলে তো ধরতেই পারেননি, দলও হেরেছিল। শুরু থেকে এই বাজে পারফর্মেন্স লম্বা সময় ধরেই ছিল সুয়ারেজের সঙ্গী। অবশেষে ব্যর্থতার খোলস ভেঙ্গে নিজের চেনা ছন্দে ফিরেছেন উরুগুয়ের ফুটবলার। সর্বশেষ রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে জয়সূচক গোল করে আরেকবার চিনিয়েছেন নিজেকে। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিরুদ্ধে এই গোলটিকেই বার্সার হয়ে সেরা বলে অভিহিত করেছেন সুয়ারেজ। দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ গোল করতে পেড়ে উচ্ছ্বসিত সুয়ারেজ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বার্সিলোনার হয়ে করা আমার গোলগুলোর মধ্যে এই মুহূর্তে এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আর এই গোলের তাৎপর্য হলো, রিয়ালের বিরুদ্ধে খেলেছি আমরা।

যে কোন ধরনের ফুটবলে চার মাস ও আন্তর্জাতিক ফুটবলে ৯ ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সুয়ারেজ। তবে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে আপীলের পর ক্লাবের হয়ে ‘অনানুষ্ঠানিক’ ম্যাচ খেলার অনুমতি পান। এই সুযোগে নতুন ক্লাব বার্সিলোনার হয়ে অভিষেক হয়ে আলোচিত-সমালোচিত সুয়ারেজের। আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতি পর্বে মেক্সিকোর ক্লাব লিওনের বিরুদ্ধে প্রথমবারের মতো বার্সিলোনার জার্সিতে খেলেন সাবেক লিভারপুল তারকা। ব্রাজিল বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে ইতালির জর্জো কিয়েল্লিনিকে কামড় দেয়ায় সুয়ারেজকে যে কোন ধরনের ফুটবলে চার মাস ও আন্তর্জাতিক ফুটবলে ৯ ম্যাচ নিষিদ্ধ করে ফিফা। এরপর বার্সিলোনায় যোগ দিলেও ফিফার দেয়া শাস্তির কারণে প্রথম দিকে খেলা তো দূরের কথা, নতুন দলের সতীর্থদের সঙ্গে অনুশীলনেও নামতে পারেননি। কিন্তু সুয়ারেজের আপীলের পর আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালত শাস্তি না কমালেও কাতালানদের হয়ে তার অনুশীলন করার অনুমতি দেয়। পাশাপাশি ‘অনানুষ্ঠানিক’ প্রস্তুতিমূলক ম্যাচেও তাকে খেলার অনুমতি দেয় সংস্থাটি। অনানুষ্ঠানিক ম্যাচের মধ্য দিয়ে অভিষেক হওয়া সুয়ারেজ এরপর মূূলমঞ্চেই অভিষিক্ত হন। শুরুতে সুবিধা করতে না পারলেও বর্তমানে নিজেকে ফিরে পেয়েছেন।

সমালোচিত এই ফুটবলারের স্বপ্ন, কোনদিন ন্যুক্যাম্প ছাড়লে ফের লিভারপুলে পাড়ি জমানো।

প্রকাশিত : ১ এপ্রিল ২০১৫

০১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: