আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অশ্বিন-ম্যাক্সওয়েলে দৃষ্টি

প্রকাশিত : ২৬ মার্চ ২০১৫
অশ্বিন-ম্যাক্সওয়েলে দৃষ্টি

জাহিদুল আলম জয় ॥ ব্যাটিংয়ের চেয়ে ভারতের বোলিংটা সবসময়ই দুর্বল। তবে ওয়ানডের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের স্পিন এ্যাটাক বিশ্বসেরা। বর্তমানে এর নেতৃত্বে আছেন ডানহাতি অফব্রেক বোলার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তামিল নাড়ুর এই অলরাউন্ডার সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের অন্যতম ভরসার নাম। টানা দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ফাইনাল মঞ্চে নাম লেখাতে সিডনিতে আজ অশ্বিন হতে পারেন মহেন্দ্র সিং ধোনির দলের তুরুপের তাস।

অস্ট্রেলিয়া-ভারত দ্বিতীয় সেমিকে অনেকেই ফাইনালের আগে ফাইনাল বলে অভিহিত করছেন। এবারের বিশ্বকাপে দল দুটির পারফর্মেন্স ছাড়াও বিগত সময়ের দ্বৈরথের কারণে বিষয়টি আলোচনায় উঠে এসেছে। স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার তারকার অভাব নেই। তবে তুরুণ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে বেশি। ইতোমধ্যে ২৬ বছর বয়সী এই ড্যাশিং ব্যাটসম্যান নিজের মারকুটে ব্যাটিং দিয়ে ক্রিকেটবিশ্বের দৃষ্টি কেড়েছেন। ব্যাট হাতে যে কোন প্রতিপক্ষকে একাই দুমড়ে-মুচড়ে দেয়ার ক্ষমতা রাখেন তিনি। চলমান বিশ্বকাপেও যার নমুনা দেখা গেছে। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আজ প্রতিপক্ষ ভারত বলেই অস্ট্রেলিয়ানরা ম্যাক্সওয়েল জাদুর অপেক্ষা করছেন। কেননা ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) খেলার কারণে ভারতের প্রায় সব ক্রিকেটার সম্পর্কেই ধারণা আছে ম্যাক্সওয়েলের। মূলত আইপিএলের মাধ্যমেই ক্রিকেটবিশ্ব চিনেছে অসি এই তারকাকে।

অশ্বিনের বোলিং সাফল্যের ওপর অনেকাংশে নির্ভর করছে ভারতের সাফল্য। ২৮ বছর বয়সী এই স্পিনার এখন পর্যন্ত ৯৫ ওয়ানডেতে পেয়েছেন ১৩২ উইকেট। ২০১০ সালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওয়ানডে অভিষেক হওয়ার পর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয় অশ্বিনকে। সেই থেকে ভারতের স্পিন আক্রমণকে নেতৃত্ব দিয়ে চলেছেন সুনিপুনভাবে। চলমান বিশ্বকাপেও বল হাতে জাদু দেখাচ্ছেন। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ১ উইকেট পেলেও পরের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে কব্জা করেন ৩ উইকেট। এরপর আরব আমিরাতকে একাই ধসিয়ে দেন ২৫ রানে ৪ উইকেট নিয়ে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ১ উইকেট নেয়ার পর আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে নেন ২ উইকেট। জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে ১ উইকেট নিলেও খরচ করতে হয় ৭৫ রান। আর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালে ছিলেন উইকেট শূন্য। বিশ্বকাপের পারফর্মেন্সে দেখা যাচ্ছে, উত্থান-পতনের মধ্যে আছে অশ্বিনের বোলিং। গুঞ্জন আছে, সেমিফাইনালের উইকেট স্পিন নির্ভরও হতে পারে। যদি তাই হয়, সেক্ষেত্রে অশ্বিন হতে পারেন ভারতের সাফল্যের প্রধান অস্ত্র। ব্যাট হাতেও কম যান না তারকা এই স্পিনার।

আইপিএল খেলার সুবাদে অনেক ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গেই সখ্যতা গড়ে উঠেছে ম্যাক্সওয়েলের। সে সব বন্ধুর বিরুদ্ধে মাঠে লড়াই করাটা বেশ কঠিন বলে মনে করেন অসি এই অলরাউন্ডার। আজ বন্ধুদের বিরুদ্ধে ময়দানী যুদ্ধে অবতীর্ণ হওয়ার আগে ম্যাক্সওয়েল বলেন, তাদের বিরুদ্ধে খেলা কঠিন হবে।

কারণ তারা বন্ধু হওয়া সত্ত্বেও মাঠে আপনাকে লড়াই করতে হবে। আপনাকে এভাবে খেলার চেষ্টা করতে হবে যেভাবে আপনি আপনার সবচেয়ে বড় শত্রু বিরুদ্ধে সবসময় খেলেন। ম্যাক্সওয়েলের অফস্পিন বোলিংও ভারতের জন্য কাটা হতে পারে! ভারতের বিশ্বখ্যাত ব্যাটসম্যানদের থামাতে নাকি তিনি রণকৌশল আটছেন। ম্যাক্সওয়েল এ প্রসঙ্গে বলেছেন, আমি বিশ্বকাপে বেশ কয়েকটা উইকেট নিয়েছি। যেটা খুব ভাল দিক। আমার তো মনে হয় মাইকেল ক্লার্ক যে কাজটা আমাকে যখন দিচ্ছে, আমি ঠিকঠাকভাবে করে দিচ্ছি। অস্ট্রেলিয়ার বোলিং কোচ জন ডেভিডসনের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনাও হয়েছে ম্যাক্সওয়েলের। কিন্তু ব্যাটিং নয়, স্পিন বোলিং নিয়ে। বিষয়টা এ রকমও আমাকে বলল, একদম ঠিকঠাক বল করছ। মানে বিষয়টা কোনভাবেই আর রান আটকানোয় আটকে নেই। প্রথম সারির স্পিনার যা করে, সেটাই করতে হবে আমাকে।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালে কিন্তু ব্যাট ও বল হাতে জ্বলে উঠেছিলেন ম্যাক্সওয়েল। ৪৩ রানে ২ উইকেট নেয়ার পর ব্যাট হাতে খেলেছিলেন ৪৪ রানের হার না মানা ইনিংস। ভারতের বিরুদ্ধেও কী তাহলে ব্যাট-বল হাতে জ্বলে উঠবেন? ব্যাটের জাদু তো আছেই। পাশাপাশি ধাওয়ান, রোহিত, রায়না, কোহলিদের আটকানোর মন্ত্রও যদি ম্যাক্সওয়েল পেয়ে যান তাহলে নিশ্চিতকরেই চ্যাম্পিয়নদের মুশকিলই আছে কপালে!

প্রকাশিত : ২৬ মার্চ ২০১৫

২৬/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: