আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফাইনাল খেলার সামর্থ্য ছিল বাংলাদেশের ॥ হাতুরাসিংহে

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫
  • তবুও বিশ্বকাপে সফল টাইগাররা, অভিমত কোচের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বকাপ মিশনটা সফলভাবেই শেষ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছে। তবে বাজে আম্পায়ারিংয়ের জন্য ভারতের কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে। সে কারণে দেশে ফিরে বিরোচিত গণসংবর্ধনা পেয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা শিবির বিমানবন্দরে নামার পরই। তবে দলের সঙ্গে দেশে ফেরেননি টাইগার কোচ চান্দিকা হাতুরাসিংহে। থেকে গেছেন অস্ট্রেলিয়াতেই। সোমবার সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় কোচ হাতুরাসিংহে দাবি করেছেন সেরা একাদশ খেলাতে পারেনি বাংলাদেশ। সেটা সম্ভব হলে আগামীতে বাংলাদেশ দল সেমিফাইনাল ও ফাইনাল খেলার যোগ্যতা রাখে বলে দাবি করেছেন। তবে সার্বিকভাবে বাংলাদেশের নৈপুণ্যে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন তিনি।

গ্রুপপর্বে দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়ে নিজেদের চেয়ে কম শক্তিধর আফগানিস্তান ও স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। এরপর শক্তিশালী ইংল্যান্ডকে হারিয়ে উঠেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। ৬ ম্যাচে মাত্র দুটি হার দেখেছে টাইগাররা। দলের নৈপুণ্যে তাই দারুণ খুশি কোচ হাতুরাসিংহে। ছুটিতে অস্ট্রেলিয়ায় থেকে যাওয়া বাংলাদেশের এ কোচ বলেন, ‘বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সেরা একাদশ খেলাতে পারেনি। সেরা দল খেলাতে পারলে আরও ভাল করতে পারত টিম বাংলাদেশ।’ তবে প্রতি ম্যাচে একাদশ নির্বাচনে তাঁর পছন্দের একাদশে কে ছিলেন, কাকে বাদ দেয়া হয়েছে, পরিবর্তে কাকে নেয়া হয়েছে কিংবা কে হস্তক্ষেপ করেছেন, সেটা জানাননি কোচ হাতুরাসিংহে। যদিও দলের সাফল্যের পেছনে রবিবার দেশে ফিরেই কোচের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন অধিনায়ক মাশরাফি। তিনি মনে করেন, অধিনায়ক হিসেবে তাঁকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেয়ার কারণেই দল সাফল্য পেয়েছে। সেই সঙ্গে বিশ্বকাপের আগে হাতুরাসিংহের ভিন্নমাত্রার অনুশীলন ও কঠোর পরিশ্রম করানো ইত্যাদি কারণে দলের ক্রিকেটারদের উন্নতি ঘটেছে বলে দাবি করেন মাশরাফি।

কিন্তু দলের নৈপুণ্যে সন্তুষ্ট হলেও আরও বড় কিছু আশা করেছিলেন হাতুরাসিংহে। সে কারণেই এবার একাদশ নিয়ে এমন মন্তব্য করলেন তিনি। হাতুরাসিংহে যতটুকু দেখেছেন তাঁর মনে হয়েছে এ দলটির সামর্থ্য আরও বেশি ছিল। তবে এবার বিশ্বকাপে সেটা সম্ভব না হলেও আগামীতে অনেক ভাল কিছু করবে বলে প্রত্যাশা জানালেন তিনি। বিষয়টি নিয়ে হাতুরাসিংহে বলেন, ‘সেরা একাদশ খেলানো হলে আগামীতে বাংলাদেশ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল, এমনকি ফাইনাল খেলারও যোগ্যতা রাখে।’ হাতুরাসিংহের এমন মন্তব্যের কারণে এখন স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে তাঁর কথার মূল্য না দিয়েই কি একাদশ গঠন করেছে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট? এর আগেও বিশ্বকাপের জন্য দল গঠন করার সময় কোচ হাতুরাসিংহের মতামতের কোন গুরুত্ব দেয়া হয়নি বিসিবির পক্ষ থেকে। কোচ চেয়েছিলেন লেগ স্পিনার হিসেবে তরুণ জুবায়ের হোসেন লিখনকে দলে নিতে। কিন্তু তাঁকে বাদ দেয়া হয় ১৫ সদস্যের দল থেকে। এমনকি বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন দল ঘোষণার সময় নিজেই স্বীকার করেছিলেন, নির্বাচকদের দেয়া দলে তাঁরা কিছুটা কাটছাঁট করেছেন। বিশ্বকাপে ম্যাচের একাদশ গঠনেও কি তেমন কিছু করা হয়েছে? হাতুরাসিংহের মতামত গ্রহণ করা হয়নি? সেটা যাই হোক, শ্রীলঙ্কান এ কোচের অধীনে বাংলাদেশ দল আবারও নতুন করে জেগে ওঠে আগামীতে বড় কোন স্বপ্ন বোনার মতো অনেক কিছুই করে দেখিয়েছে। দেখা যাক, হাতুরাসিংহের কথা অনুসারে বাংলাদেশ দল কতদূর এগিয়ে যায় ক্রিকেট বিশ্বে।

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫

২৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: