আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক ॥ চলছে দূরপাল্লার বাস

প্রকাশিত : ১৬ মার্চ ২০১৫

রাজন ভট্টাচার্য ॥ বিএনপি-জামায়াত গোষ্ঠীর টানা হরতাল-অবরোধের মধ্যেও দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর পদক্ষেপে কমছে নাশকতা। রাতেও চলছে আন্তঃজেলা রুটে সকল প্রকার গণপরিবহন। সহিংস রাজনৈতিক কর্মসূচী উপেক্ষা করে ঘর থেকে বেরিয়ে আসছেন সবাই। ২০ দলের নেতাকর্মীদের গার্মেন্টস, পরিবহনসহ সকল বাণিজ্যিক কার্যক্রমও সচল।

বর্তমান যোগাযোগ পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ জনকণ্ঠকে বলেন, সড়ক মহাসড়কে তুলনামূলক নাশকতা কমেছে। এর প্রেক্ষিতে আমরা বৃহস্পতিবার রাত থেকে নাইট কোচ চালু করছি। তবে কিছু কিছু জেলায় যাত্রী ও পণ্যবাহী পরিবহন লক্ষ্য করে এখনও চোরাগোপ্তা হামলা চলছে। পরিবহন মালিক শ্রমিকদের পক্ষ থেকে সড়ক মহাসড়কে নিরাপত্তা অব্যাহত রাখতে সরকারের কাছে দাবি জানানো হয়েছে। আশাকরি দ্রুত সময়ের মধ্যে শতভাগ গাড়ি চলাচল শুরু হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নজরদারির মধ্যেও চাঁপাইনবাবগঞ্জে সক্রিয় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ট্রাইব্যুনালের রায়ের পর এ জেলায় বড় ধরনের নাশকতা ঘটিয়েছিল উগ্র-সাম্প্রদায়িক ও মৌলবাদী গোষ্ঠী। সূত্রে জানা গেছে, জেলায় জামায়াত-শিবিরের অন্যতম ঘাঁটি শিবগঞ্জ উপজেলা। এখান থেকেই পুরো জেলায় হামলার ছক আঁকা হয়। গত ২ মাসে শুধু শিবগঞ্জ উপজেলায় জামায়াতি তা-বে প্রাণ হারিয়েছেন চার সাধারণ মানুষ। এছাড়া ট্রাকে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে ১৭টিতে। শতাধিক ট্রাকে ভাংচুর চালিয়েছে অবরোধ ও হরতাল সমর্থকরা। তবে এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

সড়ক মহাসড়কের বর্তমান অবস্থা জানতে চাইলে বাস ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রুস্তম আলী খান জনকণ্ঠকে সারাদেশে এক লাখ ২৭ হাজার পণ্যবাহী পরিবহন স্বাভাবিক চলাচলের কথা জানিয়ে বলেন, পণ্য পরিবহন ও বাস চলাচল স্বাভাবিক বলা চলে।

রাতে বাস চলাচল শুরু ॥ বৃহস্পতিবার রাত থেকে আন্তঃজেলা রুটে বাস চলাচল ফের শুরু হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোটের দেশব্যাপী সন্ত্রাসী কর্মকা-ের কারণে নাশকতা এড়াতে রাতে বাস চলাচল বন্ধ করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত পরিবহন মালিক-শ্রমিকসহ আন্তঃমন্ত্রণালয়ে এক বৈঠকে বাস চলানোর সিদ্ধান্ত হয়। গাড়ির ক্ষতিপূরণ দেয়ার ফের আশ্বাস দিয়ে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় রাতে বাস চলবে। তিনি মালিকদের প্রতি, গাড়িতে অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা রাখা, গাড়ি ছাড়ার আগে যাত্রীদের ভিডিওফুটেজ ধারণ করে রাখা ও সমস্যা হলে তাৎক্ষণিকভাবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন। হরতাল অবরোধের মধ্যে এখন সচল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক। হাজারও পরিবহন চলছে রাত-দিন, সবসময়। প্রতিদিনই সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘ যানজটের। সর্বোচ্চ ৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত এ মহাসড়কে যানজটের নজির হয়েছে কয়েক দিনে। দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এ মহাসড়কটি যানবাহন চলাচলে সচল রাখতে প্রশাসনের পদক্ষেপের কমতি নেই।

প্রকাশিত : ১৬ মার্চ ২০১৫

১৬/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: