রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জরিমানার অর্থ জমা দিলেন জাহিদ

প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘জরিমানার সাড়ে ১৬ লাখ টাকা আজকেই (রবিবার) কিছুক্ষণ আগেই জমা দিয়ে এলাম বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদীর হাতে। আশা করি আমার বিরুদ্ধে যে নিষেধাজ্ঞা ছিল, তা উঠিয়ে নেবে বাফুফে এবং চলতি ফেডারেশন কাপে শেখ রাসেলের হয়ে পরের ম্যাচেই খেলার জন্য মাঠে নামতে পারব। জরিমানার অর্ধেক টাকা দিয়েছি আমি, বাকি অর্ধেক দিয়েছে আমার ক্লাব শেখ রাসেল।’ কথাগুলো তারকা ফুটবলার জাহিদ হোসেনের। গত ৫ জানুয়ারি বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের এই কৃতী উইঙ্গারকে শাস্তি দেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। বাফুফের কাছে জাহিদের বিরুদ্ধে ঢাকা মোহামেডান ক্লাব অভিযোগ করেÑ পারিশ্রমিকের পুরো টাকা নিয়েও তিনি নানা অজুহাতে ঠিকমতো খেলেননি। ইনজুরির অজুহাত দিয়ে অনেক ম্যাচে ইচ্ছে করেই বাইরে ছিলেন। এছাড়া ঠিকমতো অনুশীলনেও হাজির থাকেননি। মোহামেডান চারবার জাহিদকে শোকজ করলেও জাহিদ তার কোন জবাবই দেননি। ফলে বাধ্য হয়ে মোহামেডান জাহিদকে দুই বছর নিষিদ্ধ করেছিল। কিন্তু বাংলাদেশের ফুটবল আইনে যেহেতু কোন ক্লাব কোন খেলোয়াড়কে সরাসরি শাস্তি দিতে পারে না, তাই মোহামেডান দ্বারস্থ হয় বাফুফের। সেই নালিশের প্রেক্ষিতে বাফুফের ডিসিপ্লিনারি কমিটি জাহিদকে মোহামেডানের সঙ্গে ব্যাপারটা মিটমাট করে নিতে এক সপ্তাহের সময় বেঁধে দেয়। তা অতিক্রান্ত হয় গত ৩১ ডিসেম্বর। কিন্তু মোহামেডানের সঙ্গে কোন সমঝোতা করেননি জাহিদ। এর প্রেক্ষিতে জাহিদকে শাস্তি দেয়া হয়Ñ জাহিদ যদি এই টাকা ফেরত না দেন, তাহলে আগামী এক বছর (২০১৬ সালের ৪ জানুয়ারি) পর্যন্ত বাংলাদেশ ও বিশ্বের ঘরোয়া কোন ক্লাবের হয়ে যে কোন পর্যায়ের কোন ফুটবল ম্যাচ বা প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন না।

প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: