কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঢামেক বার্ন ইউনিটে এখন চিকিৎসাধীন ৬০ ॥ পাঁচজন আশঙ্কাযুক্ত

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি-জামায়াতের হরতাল-অবরোধে পেট্রোলবোমা ও বিভিন্ন সহিংসতায় দগ্ধ হয়ে ১৩৬ জন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়জনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে ৬০ জন। তাদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পেট্রোল বোমায় দগ্ধদের অবস্থা জানাতে শনিবার দুপুরে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের তৃতীয় তলার সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান বার্ন ইউনিটের উপদেষ্টা ডাঃ সামন্ত লাল সেন।

সংবাদ সম্মেলনে সাবেক প্রকল্প পরিচালক ডাঃ সামন্ত লাল জানান, বর্তমানে পেট্রোল বোমায় দগ্ধ ৬০ জন রোগী এখানে ভর্তি আছেন। তাঁদের মধ্যে সাতজন বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে ভর্তি আছেন। এদের মধ্যে মরিয়ম, বাপ্পি, জাহিদ, রাকিব ও জাহাঙ্গীর নামে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ পর্যন্ত ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ১৩৫ জনকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ৬৮ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, আমরা দগ্ধ রোগীদের চিকিৎসা দিতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। সহিসংতায় দগ্ধদের চিকিৎসা এখন কেবল ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের ওপরই নির্ভরশীল নয়, ঢাকায় আরও কয়েকটি হাসপাতালে বার্ন ইউনিট খোলা হয়েছে। এছাড়া সারাদেশে মোট ১৪টি বার্ন ইউনিট আছে। সবগুলো ইউনিটেই আমরা কাজ করছি। জেলা পর্যায়ের হাসপাতালগুলোতেও দগ্ধদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ সময় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মৃনাল কান্তি দাস জানান, চট্রগ্রাম বার্ন ইউনিটে মোট ১৪ জন রোগী ভর্তি হয়। তাঁদের মধ্যে ছয়জন চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। বর্তমানে সেখানে আটজন ভর্তি আছেন। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ নেতা ডাঃ ইকবাল আর্সনাল।

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: