রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

এসএসসি ও সমমানের ॥ আজকের পরীক্ষা ২০ ফেব্রুয়ারি

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবরোধের মধ্যেই বিএনপি-জামায়াতের হরতালে আজকের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও পিছিয়ে গেল। পিছিয়ে যাওয়া আজকের পরীক্ষা আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে। নাশকতামূলক কর্মসূচী পরিহার না করায় শনিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে আজকের পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। হরতাল-অবরোধের কারণে আজকের পরীক্ষাসহ এ পর্যন্ত ছয় দিনে মোট ৪৪টি বিষয়ের পরীক্ষা পিছিয়ে গেল। এদিকে নাশকতার আতঙ্ক কাটিয়ে শনিবার চতুর্থ দিনের পরীক্ষাও সারাদেশে নির্বিঘেœ ও অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে আগে পাঁচ দফা পরীক্ষা পিছানোর পর দেশজুড়ে দাবি উঠেছিল ভবিষ্যতের পরীক্ষাগুলোকে হরতাল-অবরোধের বাইরে রাখার। এসব দাবিতে গত কয়েকদিনে দেশজুড়ে প্রতিবাদ মানববন্ধন ছাড়াও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার কার্যালয় ঘেরাও করে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকরা। সর্বশেষ শনিবারও পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বিএনপির নেতাদের কাছে নতুন প্রজন্মের জন্য হলেও অন্তত পরীক্ষার দিনগুলোতে হরতাল বন্ধের দাবি জানান। কিন্তু ১৫ লাখ নতুন প্রজন্ম ও তার পরিবারের স্বার্থ উপেক্ষিত হওয়ায় বিকেল ৪টায় নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে পরীক্ষা পেছানোর ঘোষণা দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। সময়সূচী পরিবর্তনের বিষয়টি জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ভয়ভীতির মধ্যে পরীক্ষা নেয়া সমীচীন মনে করছি না। পরীক্ষার চেয়ে শিক্ষার্থীদের জীবনই আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়া হলো। শিক্ষাবোর্ড জানিয়েছে, আজ সাধারণ আট শিক্ষা বোর্ডের এসএসসিতে গণিত (আবশ্যিক) ও মাদ্রাসার দাখিলে ইংরেজী প্রথম পত্র (শুধু অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য) পরীক্ষা ছিল। কারিগরি বোর্ডের এসএসসি ভোকেশনালে রসায়ন বিজ্ঞান-২ (১৯২৬) (সৃজনশীল), রসায়ন বিজ্ঞান-২ (৮১২৬) (সৃজনশীল/সাধারণ) এবং দাখিল ভোকেশনাল রসায়ন বিজ্ঞান-২ (১৭২৬) (সৃজনশীল) ও রসায়ন বিজ্ঞান-২ (৮৫২৬) (সৃজনশীল) বিষয়ের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। ২৭ হাজার ৮০৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৪ লাখ ৭৯ হাজার ২৬৬ জন শিক্ষার্থীকে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি সাপ্তাহিক ছুটির দিনে পরীক্ষায় বসতে হবে। অবরোধ ও হরতালের মধ্যে এবার এ পর্যন্ত এসএসসির ও সমমানের পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়েছে কেবল চার দিন। তাও ছুটির দিন শুক্র ও শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। হরতালের কারণে এসএসসি ও সমমানে গত ২, ৪, ৮, ১০ ফেব্রুয়ারির পরীক্ষা পেছানো ছাড়াও ১২ ফেব্রুয়ারির পরীক্ষা স্থগিত রাখা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশে পাঁচ কোটি শিক্ষার্থী ছাড়াও শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সংশ্লিষ্টদের মিলিয়ে আছেন আরও এক কোটি। দেশের সবচেয়ে বড় পরিবার শিক্ষা পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদনÑ আমরা ছেলেমেয়েদের রক্ষা করতে চাই। আশা করেছিলাম তাদের (বিএনপি জোট) মনে নাড়া দিবে।

এদিকে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের দেশব্যাপী টানা অবরোধের পাশাপাশি শনিবারের বিক্ষোভ কর্মসূচীর মধ্যেই এসএসসি ও সমমানের চতুর্থ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশব্যাপী এসএসসির ইংরেজী দ্বিতীয় পত্র, দাখিলের আরবী দ্বিতীয় পত্র এবং কারিগরির বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়-২, সামাজিক বিজ্ঞান-২ পরীক্ষা শনিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রের পাশে অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্য মোতায়েন ছিল। গত ১০ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষাটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও ২০ দলীয় জোটের হরতাল কর্মসূচীর কারণে তা পিছিয়ে দিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শনিবার রাজধানীসহ সারাদেশে নির্বিঘেœ ও অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজধানীর কেন্দ্রগুলোতে পরীক্ষা শেষে বেশির ভাগ পরীক্ষার্থীই জানাল পরীক্ষা ভাল হয়েছে। ভিকারুননিসা নূন স্কুলের ছাত্রী রাত্রী বলছিল, পরীক্ষা ভাল হয়েছে। কিন্তু বার বার হরতালে পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়ায় আমাদের ক্ষতি হচ্ছে।

সকালে শিক্ষামন্ত্রীসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। কেন্দ্রের বাইরে সন্তানের জন্য অপেক্ষারত উদ্বিগ্ন অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলেন মন্ত্রী। এদিকে রাজধানীর পরীক্ষার্থীর অভিভাবকদের মাঝে পানি সরবরাহসহ বিভিন্ন সেবা প্রদান করেছে খিলগাঁও থানা পুলিশ। ওই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান নিজেই অভিভাবকদের মাঝে পানির বোতল সরবরাহ করেন। তিনি জানান, পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নিরাপত্তার জন্য সকাল থেকেই খিলগাঁও এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সামনে অপেক্ষমাণ সব অভিভাবকরা পানিসহ সার্বিক সহযোগিতা করায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, বিএনপি-জামায়াত জোটের হরতালে ২০১৩ সালে এসএসসির ৩৭টি বিষয় এবং এইচএসসির ৪১টি বিষয়ের পরীক্ষা পিছিয়ে গিয়েছিল। ওই বছরের জেএসসি-জেডিসির ১৭টি বিষয় এবং প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনীর দুটি বিষয়ের পরীক্ষা হরতালের কারণে পিছিয়ে দেয়া হয়। গত বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠিত জেএসসি-জেডিসি এবং প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী পরীক্ষাও বিএনপির হরতালের কবলে পড়লে বেশ কয়েকটি পরীক্ষাও পিছিয়ে যায়। এ বছর এসএসসি সমমানের পরীক্ষা ছাড়াও হরতালে পিছিয়ে গেছে ও এবং এ লেবেলের একদিনের পরীক্ষা।

পটুয়াখালীতে শিক্ষক আটক, কথিত সাংবাদিকের জড়িমানা : পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে শনিবার এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে নকলে সহায়তা করায় এক শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। এ সময়ে অপর এক শিক্ষককে আটক করলে তিনি পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে পালিয়ে যান। তবে এ ঘটনায় অভিযুক্ত এক ছাত্রকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আজ শনিবার মির্জাগঞ্জের কাঠালতলী মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। একই সময়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে বিনা অনুমতিতে প্রবেশের দায়ে সাংবাদিক পরিচয় দানকারী এক ব্যক্তিকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। জানা গেছে, কামরুল ইসলাম নামের এ ব্যক্তি উগ্রবাদী কালোতালিকাভুক্ত সংগঠন হিজবুত তওহীদের দৈনিক বজ্রশক্তি নামের একটি পত্রিকার সাংবাদিক।

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: