রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে চলছে সাঁড়াশি অভিযান

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • বরিশালে পেট্রোলবোমা হামলা মামলার আসামি ছাত্রদল নেতা সাইদুরসহ সারাদেশে দেড় শতাধিক গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি-জামায়াতের হাই কমান্ডের নির্দেশে সারাদেশে চলমান নাশকতার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারে দেশজুড়ে যৌথ বাহিনীর সাঁড়াশি অভিযান চলছে। অভিযানে বরিশালে পেট্রোলবোমা হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার অন্যতম আসামি ছাত্রদল নেতা সাইদুর রহমানকে মানিকগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। যৌথবাহিনীর অভিযানে ঢাকা থেকে ২৫ জনসহ সারাদেশ থেকে দেড়শতাধিক গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে বিএনপি-জামায়াত-শিবির ও তাদের ক্যাডার ছাড়াও নিষিদ্ধ জঙ্গী সংগঠনের সদস্যরা রয়েছে। শনিবার ঢাকা থেকে নিষিদ্ধ আন্তর্জাতিক জঙ্গী সংগঠন হিযবুত তাহরীরের তিন সদস্য গ্রেফতার হয়েছে।

শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালানো হয়। বিশেষ অভিযান চলে নিউমার্কেট, চকবাজার, বংশাল, যাত্রাবাড়ী, আদাবর, মিরপুর, পল্লবী, বনানী, ভাটারা ও উত্তরা-পশ্চিম থানা এলাকায়। এসব এলাকা থেকে গ্রেফতার হয় ২৫ জন। এরমধ্যে বিএনপি-জামায়াত-শিবির নেতাকর্মী ও ক্যাডার ছাড়াও নিষিদ্ধ আন্তর্জাতিক জঙ্গী সংগঠন হিযবুত তাহরীরের ৩ জঙ্গী রয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা ঢাকায় প্রকাশ্যে ও চোরাগোপ্তা হামলায় জড়িত।

এদিকে শুক্রবার বরিশালের উজিরপুরে পেট্রোলবোমা মেরে তিনজনকে হত্যা করে অবরোধকারীরা। এ ঘটনায় দুইটি পৃথক মামলা হয়। মামলার অন্যতম আসামি সাইদুর রহমান বেপারীসহ (৩৫) অন্য আসামিদের গ্রেফতারে সাঁড়াশি অভিযান শুরু হয়। অভিযানের ধারাবাহিকতায় শনিবার বিকেল তিনটার দিকে মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থেকে সাইদুর রহমান বেপারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামি উজিরপুর উপজেলার হস্তিসুন্দর গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান বেপারীর ছেলে। তিনি উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক। বোমাবাজির পর মনিকগঞ্জে আত্মগোপনে থাকা সাইদুর রহমান সোনারতরী পরিবহনে ঢাকা যাচ্ছিল। এ সময় ওই যাত্রীবাহী বাসে তল্লাশি চালিয়ে সাইদুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়া যৌথ বাহিনীর অভিযানে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থেকে গ্রেফতার হয় শিবির নেতা দিদারুল ইসলাম (২২)। দিদারুলের নেতৃত্বে বেগমগঞ্জ এলাকার সড়ক মহাসড়কে নাশকতা চালানো হতো। উপজেলার মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের কেন্দুয়াবাগ ওয়ার্ডের শিবির সভাপতি দিদারুল।

এদিকে শুক্রবার রাতে চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে অবরোধকারীরা দুইটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে দগ্ধ হন বাসের সুপারভাইজার চাঁন মিয়া ও হেলপার মারুফ। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে জেলা পৌর বিএনপির সভাপতি শাহজাহান কবীরকে (৫০) দৌলতগঞ্জ এলাকার নিজ বাড়ি থেকে আটক করেছে পুলিশ। অভিযানে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক টিআরএম নুর-ই-আলম হেলালসহ ৬ জনকে শহরের ফজলুল হক রোডস্থ এলএসডি গোডাউনের পাশের গোপন বৈঠক থেকে আটক করেছে জেলা ডিবি পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা জেলার বিভিন্ন স্থানে নাশকতা ও নৈরাজ্যে সৃষ্টির পরিকল্পনাকারী বলে গোয়েন্দা পুলিশ জানায়।

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বলাই বাড়ি নামক স্থানে শুক্রবার বোমা হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে বোমা নিক্ষেপকারী উপজেলা শিবির সভাপতি মোঃ তাজ উদ্দিনসহ (২৫) ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বোমা মারার সময় চালক বোমাবাজ তাজ উদ্দিনকে যাত্রীবাহী বাস দিয়ে ধাক্কা দিয়ে আহত করলে জনতা ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। ঝালকাঠি পুলিশ সুপার মজিদ আলী গাড়ি চালক আসাদকে সাহসিকতার জন্য ব্যক্তিগতভাবে ১০ হাজার টাকা পুরস্কার দেন।

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: