মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

গণজাগরণ মঞ্চের গণস্বাক্ষর কর্মসূচী শুরু

প্রকাশিত : ৩১ জানুয়ারী ২০১৫

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ‘পুড়ছে বাংলাদেশ, পুড়ছে মানবতা, সম্মিলিত প্রতিবাদ রুখতে পারে সন্ত্রাস’ সেøাগানে শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চে শুরু হয়েছে গণস্বাক্ষর কর্মসূচী। শুক্রবার বিকেলে মুক্তিযোদ্ধা ভাস্কর প্রিয়ভাষিণী স্বাক্ষর করে এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। আগামীকাল ১ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী এ কর্মসূচী শুরু হবে। পরে সারাদেশ থেকে সংগৃহীত স্বাক্ষরসমূহ আগামী ২৬ মার্চ রাষ্ট্রপতি ও স্পিকারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

রাজনীতির নামে মানুষ হত্যা-সহিংসতা বন্ধ, দেশের সকল মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা ও যুদ্ধাপরাধী জামায়াত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধসহ গণজাগরণ মঞ্চের ছয় দফা বাস্তবায়ন করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বৈষম্যহীন-অসাম্প্রদায়িক দেশ বিনিমার্ণে গত ২৭ তারিখে মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ডাঃ ইমরান এইচ সরকার মঙ্গলবার বিকেলে এ কর্মসূচীর ঘোষণা করেন। এছাড়া একই দাবিতে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শাহবাগে টানা অবস্থান করা হবে।

গণস্বাক্ষর কর্মসূচীর উদ্বোধন শেষে মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ডাঃ ইমরান এইচ সরকার বলেন, গত ৪ জানুয়ারি থেকে সারাদেশে রাজনীতির নামে ধারাবাহিক সহিংসতা চলছে। বাস-ট্রাক-অটোরিক্স-রিক্সা-ভ্যান ও পথচারীদের লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে উপর্যুপরি হামলায় নারী-পুরুষ-শিশুসহ সহায় সম্পদ জ্বলে পুড়ে নিঃশেষ হয়ে যাচ্ছে। চারিদিকে ছড়িয়ে পড়েছে পোড়া মাংসের গন্ধ। স্বজন হারানোর মাতম চলছে দেশজুড়ে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষা, যোগাযোগ, উৎপাদন ও অর্থনৈতিক ব্যবস্থা ধ্বংস এবং জনগণের মাঝে ত্রাসের রাজত্ব কায়েমের মাধ্যমে দেশেকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার অপচেষ্টা চলছে। এসবের পিছনে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারী জামায়াত-শিবির এবং তাদের দোসর ব্যক্তি ও সংগঠনসমূহ। এ অবস্থা থেকে দেশ ও জাতিকে মুক্ত এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বৈষম্যহীন-অসাম্প্রদায়িক দেশ বিনির্মাণে সম্মিলিত প্রতিবাদ-প্রতিরোধে শামিল হওয়া নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব।

মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের প্রগতিশীল সকল ব্যক্তি-পরিবার, রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক এবং নারী-শ্রমিক-ছাত্র-যুব-পেশাজীবী সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের সকলকে এ কর্মসূচীতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়ার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

ইমরান বলেন, মানুষ মারার রাজনীতি মানুষের রাজনীতি হতে পারে না। যারা এ ধরনের অপরাজনীতি করছে তাদের অমানুষ বলায় যুক্তিযুক্ত। রাজনীতির নামে অপরাজনীতি চলতে পারে না। দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে দেশের সর্বস্তরের জনগণকে রাস্তায় নেমে আসতে হবে। সকল শক্তিকে এক কাতারে দাঁড়িয়ে জামায়াত-শিবিরের রাজনীতি বন্ধ করে গণমানুষের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

এ সময় তিনি আরও জানান, দেশের সব জেলা সদরসমূহে স্থানীয় গণজাগরণ মঞ্চের নির্ধারিত স্থানে এবং উপজেলা, গ্রামাঞ্চল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে স্থানীয় শহিদ মিনারে এ গণস্বাক্ষর কর্মসূচী চলবে। পাশাপাশি আগামী পাঁচ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিকেল থেকে রাত দশটা পর্যন্ত অবস্থান ও সেøাগান চলবে।

এরপর একটি সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মঞ্চের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে এতে বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রাজা মোহাম্মদ চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু স্টাডি মুভমেন্টের আহ্বায়ক কৃষিবিদ মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা শেখ বাতেন প্রমুখ।

প্রকাশিত : ৩১ জানুয়ারী ২০১৫

৩১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: