মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

খালেদা মোল্লা ওমরের ভূমিকায় নেমেছেন ॥ আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী ২০১৫

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসী কর্মকা- প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ বলেছেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া আর জাতীয়তাবাদী নেত্রী নন, তিনি এখন মোল্লা ওমরের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে সন্ত্রাসের নেত্রী হয়েছেন। তবে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে পরিচালিত সন্ত্রাসী কর্মকা- ইতোমধ্যে কমে এসেছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে দেশ স্বাভাবিক হয়ে যাবে। শুক্রবার রাজধানীতে পৃথক একাধিক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা এসব কথা বলেন। দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু একাডেমি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য এবং আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত এমপি বলেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া আর জাতীয়তাবাদী নেত্রী নন, তিনি এখন মোল্লা ওমরের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে সন্ত্রাসের নেত্রী হয়েছেন। তবে তার এ ষড়যন্ত্র সফল হবে না। বর্তমান সরকারের কার্যকরী পদক্ষেপের কারণে ইতোমধ্যে সন্ত্রাসী কর্মকা- কমে এসেছে। সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, আমাদের গণতন্ত্র মানে মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। গণতন্ত্র ও সংবিধানের প্রশ্নে কারও সঙ্গে আপোস নেই। এখন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে টোটাল লড়াই চলবে। কারণ জাতি একদিকে আর সন্ত্রাসীরা অন্যদিকে।

বঙ্গবন্ধু একাডেমির সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ সেলিম প্রমুখ।

সন্ত্রাসী কর্মকা- চালাচ্ছে বিএনপি : হাছান মাহমুদ ॥ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার প্রতিহিংসার রাজনীতি বন্ধের দাবিতে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় বিএনপি-জামায়াত জোট এখন সারাদেশে সন্ত্রাসী কর্মকা- চালাচ্ছে। তবে সরকার সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে ‘কুইন অব টেরর’ হিসেবে আখ্যায়িত করে হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়া যতই বোমা মারছেন, গাড়ি পোড়াচ্ছেন, মানুষ মারছেন তাতে তিনি ততই জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছেন।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহসভাপতি ড. ইনামুল হকের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহসম্পাদক বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

খালেদাকে গ্রেফতার জনগণের দাবি : ত্রাণমন্ত্রী ॥ দুপুরে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শীতার্তদের মাঝে বস্ত্র ও কম্বল বিতরণ কর্মসূচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, বোমা মেরে মানুষ হত্যার জন্য হুকুমের আসামি হিসেবে খালেদাকে গ্রেফতার করা এখন জনগণের দাবি। জনগণ তার গ্রেফতার দেখতে চায়। মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী বলেন, ২০১৯ সালের আগে বাংলাদেশে কোন নির্বাচন হবে না। দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ত্রাণমন্ত্রী বলেন, যারা হরতাল-অবরোধে নাশকতা করে, বোমা মারে, আগুন দিয়ে মানুষ পোড়ায়Ñ তাদের বিরুদ্ধে পাড়া-মহল্লায় প্রতিরোধ কমিটি গঠন করতে হবে। নাশকতাকারীদের খুঁজে বের করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে পুরস্কার নিয়ে যাবেন। রোকেয়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুল হক সবুজ, দফতর সম্পাদক সহিদুল ইসলাম মিলন প্রমুখ।

কোন রাজনৈতিক সঙ্কট নেই : খাদ্যমন্ত্রী ॥ দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, দেশে এখন কোন রাজনৈতিক সঙ্কট নেই, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই চলছে। সন্ত্রাসীদের মোকাবেলা রাজনীতি দিয়ে হয় না।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা ‘এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালকে’ বিএনপির বেতনভুক্ত বা পেইড সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এ্যামনেস্টি একটি বিশেষ দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। ওই সংস্থার কিছু ব্যক্তি সরকারকে উপদেশ দিচ্ছে, কিন্তু বিএনপির সন্ত্রাসী কর্মকা-ের বিরুদ্ধে কোন কথা বলছে না।

রাজনীতির নামে জ্বালাও, পোড়াও, নৈরাজ্যের সৃষ্টি ও বিশ্ব এজতেমাকে পিকনিকের সঙ্গে তুলনা করার প্রতিবাদে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা ইসমাইল হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান, মুফতি শহিদুল্লাহ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

গুপ্ত হামলা করে গণতান্ত্রিক কর্মসূচী বাস্তবায়ন সম্ভব নয় : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী ॥ গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ডিএইচএম (হোমিওপ্যাথি) কোর্সের সরকারী স্বীকৃতির পঞ্চাশ বছর উদযাপন উপলক্ষে হোমিও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, জঙ্গীবাদী কায়দায় গুপ্ত হামলা করে গণতান্ত্রিক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করা যায় না। সন্ত্রাস দমন করা সরকারের সাংবিধানিক দায়িত্ব। সরকার যে কোন মূল্যে সন্ত্রাসী ও জঙ্গী কর্মকাণ্ড প্রতিহত করে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহসম্পাদক সুশান্ত রায়, বাংলাদেশ হোমিও মেডিক্যাল ফেডারেশনের সভাপতি ডাঃ সাখাওয়াত ইসলাম প্রমুখ।

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী ২০১৫

২৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: