রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

চাঁদপুরে দুই লঞ্চের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩, রুট পারমিট স্থগিত

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, চাঁদপুর, ১৩ জানুয়ারি ॥ চাঁদপুরের পুরানবাজার হরিসভা এলাকায় মেঘনা নদীতে ঢাকা থেকে বরিশালগামী যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি পারাবাত-৯ এবং বরিশাল থেকে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি সুন্দরবন-৮ এর মধ্যে সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছে। ঘন কুয়াশার কারণে সোমবার রাত ২টার দিকে মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত হয় আরও ১০ জন। সংঘর্ষে সুন্দরবন লঞ্চের সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং এই লঞ্চের ভিআইপি কেবিনে থাকা যাত্রী শাহানা বেগম (৬৫), আবরার শাকিল (৬) ও রূপা বেগম মারা যায়। আহত হয় কমপক্ষে ১০ জন। আহতদের দ্রুত চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় এ্যাম্বুলেন্সে ঢাকা পাঠানো হয়।

আহতরা হলেনÑ রূপা (২৭), ডালিয়া (৩৮), শিউলী (৩৫), রাব্বি (১১), মনোয়ারা বেগম (৫০), সুরাইয়া (২৮), জেরিন (৮), জাহাঙ্গীর (৩৬) ও মো. ওয়াহিদ (২০)। অপর এক আহতের নাম জানা যায়নি।

চাঁদপুর বন্দরের কর্মকর্তা মোবারক হোসেন জানান, লঞ্চ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তারা নৌ-পুলিশ নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান এবং আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। সংঘর্ষের ঘটনায় নৌ-পুলিশ ফাঁড়িতে একটি জিডি করা হয়েছে।

রুট পারমিট স্থগিত ॥ সুন্দরবন-৮ ও পারাবত-৯ লঞ্চের রুট পারমিট স্থগিত করে একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। এছাড়া উভয় নৌযানের মাস্টারদের সনদের পাশাপাশি লঞ্চ দুটির সার্ভে সনদও স্থগিত করেছে সমুদ্র পরিবহন অধিদফতর। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শামছুদ্দোহা খন্দকার মঙ্গলবার সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার পর পরই সুন্দরবন-৮ ও পারাবত-৯ লঞ্চের রুট পারমিট (চলাচলের বৈধতা) স্থগিত করা হয়েছে।

আর সমুদ্র পরিবহন অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী একেএম ফখরুল ইসলাম জানান, ঘটনা তদন্তে সদরঘাটের সার্ভেয়ার (লঞ্চ পরিদর্শক) শাহারিয়ার হোসেনকে প্রধান করে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। এছাড়া দুটি নৌযানের মাস্টারদের সনদ এবং লঞ্চ দুটির সার্ভে সনদ ও নিবন্ধনও স্থগিত করা হয়েছে বলে জানান তিনি। এই লঞ্চ দুর্ঘটনায় সমুদ্র পরিবহন অধিদফতরের মেরিন কোর্টে মামলার জন্য সংশ্লিষ্ট পরিদর্শককে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান ফখরুল।

সকাল ৯টার দিকে বরিশাল নৌবন্দর থেকে পারাবত-৯ লঞ্চটি আটক করেছে পুলিশ। তবে লঞ্চের মাস্টার ও সুপারভাইজারসহ সবাই পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে ধরা যায়নি বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। এ ঘটনায় সুন্দরবন লঞ্চ কর্তৃপক্ষ পারাবত-৯ এর বিরুদ্ধে চাঁদপুর সদর থানায় অভিযোগ করেছে বলে বরিশাল কোতোয়ালি থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন জানিয়েছেন।

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০১৫

১৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: