কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অবরোধ কর্মসূচী প্রতিরোধের ঘোষণা অওয়ামী লীগের

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী ২০১৫
অবরোধ কর্মসূচী প্রতিরোধের ঘোষণা অওয়ামী লীগের

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপি-জামায়াত আহূত অবরোধ কর্মসূচী প্রতিরোধে মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়েছে শাসক দল আওয়ামী লীগ। সারাদেশ ছাড়াও আজ মঙ্গলবার থেকে ঢাকা মহানগরীর ১৬টি স্পটে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের সমন্বয়ে গঠিত ১৬টি পৃথক শক্তিশালী টিম সতর্ক অবস্থানে থেকে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে যে কোন ধরনের সহিংসতা বা নাশকতা মোকাবেলা করবে। একই সঙ্গে সভা-সমাবেশের মাধ্যমে বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করার প্রয়াস চালাবেন।

সোমবার রাতে ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক জরুরী সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়ে দলটির সভাপতিম-লীর সদস্য এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির অবরোধে জনগণের জানমাল রক্ষার্থে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা সারাদেশে শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান নেবে। তিনি বলেন, আমরা নাশকতাকে অবরোধ করব, সহিংসতাকে প্রতিরোধ করব, উগ্রবাদকে প্রতিহত করব, ককটেল ও পেট্রোল বোমার সন্ত্রাসকে রুখে দাঁড়াব। তিনি দেশবাসীকে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা অবরোধ কর্মসূচী প্রত্যাখানেরও দাবি জানান।

খালেদা জিয়াকে জনগণের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণের কাছ থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়ে বেসামাল খালেদা জিয়া দেশবাসীকে গভীর অন্ধকারে নিমজ্জিত করার অশুভ লক্ষে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবরোধ ঘোষণা করেছেÑ যা দেশের শান্তিপ্রিয় গণতন্ত্রকামী মানুষ মেনে নিতে পারে না।

লিখিত বক্তব্যে মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী ৯ জানুয়ারি থেকে পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম বিশ্ব ইজতেমা টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার তথাকথিত এ অবরোধ কর্মসূচী ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ব্যথিত করেছে এবং এর মধ্য দিয়ে নতুন করে প্রমাণিত হলো খালেদা জিয়ার ধর্মীয় বিশ্বাস একেবারেই ঠুনকো। তিনি বলেন, পরাজিত সেনাপতির প্রতিহিংসার ভূত বেগম খালেদা জিয়ার ওপর ভর করেছে। ইচ্ছাকৃতভাবে অবরোধের নাটক সাজিয়ে দেশবাসীকে ভোগান্তিতে ফেলছে।

সড়ক ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশ না নেয়াটা ছিল খালেদা জিয়ার ঐতিহাসিক রাজনৈতিক ভুল। এ ভুলের কারণে তিনি এবং তাঁর দল সংসদের বাইরে। খালেদা জিয়ার ভুলের খেসারত কেন জনগণকে দিতে হবে? দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের এক বছরপূর্তি দেশবাসী ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে উদযাপন করেছে।

এদিকে বিএনপি-জামায়াতের অবরোধ কর্মসূচী প্রতিরোধ করতে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানসহ নগরীর ১৬টি স্থানে অবস্থান গ্রহণ করবে। দলের কেন্দ্রীয় সকল সিনিয়র নেতা, সংসদ সদস্য ও মন্ত্রিসভার সদস্যরাও এসব কর্মসূচীতে নেতৃত্ব দেবেন। মহানগরীর নির্ধারিত ১৬টি স্পট হচ্ছে- মিরপুর পূরবী সিনেমা হলের সামনে, শ্যামপুর-জুরাইন রেলগেট, ডেমরা-যাত্রাবাড়ী মাঠ, বাড্ডা-রামপুরা পেট্রোল পাম্প, ধানম-ি ৩২ নম্বর রোড, মিরপুর-১ (গোলচত্বর), লালবাগ, গুলশান, সূত্রাপুর, তেজগাঁও, সবুজবাগ-খিলগাঁও, উত্তরা, কামরাঙ্গীর চর, মোহাম্মদপুর, কাফরুল ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান।

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী ২০১৫

০৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: