আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অভিজ্ঞরাই অগ্রাধিকার পাবেন বিশ্বকাপ দলে!

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪
অভিজ্ঞরাই অগ্রাধিকার পাবেন বিশ্বকাপ দলে!
  • তরুণ উদীয়মানদের সুযোগ কম থাকছে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বকাপের সময় ঘনিয়ে আসছে। আবার বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ও সবচেয়ে বড় ঘরোয়া আসর প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগও শেষ হওয়ার পথে। ইতোমধ্যেই ৩০ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণার শেষ সময় বেঁধে দিয়েছে ৭ জানুয়ারি। তবে এর দুয়েক দিন আগেও বাংলাদেশ দল চূড়ান্ত হতে পারে বলে আভাস দিয়েছেন প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদ। সেই সঙ্গে তিনি নিশ্চিত করেছেন প্রিমিয়ার লীগে খুব ভাল নৈপুণ্য দেখালেও ঘোষিত প্রাথমিক দলের বাইরে থেকে কাউকে নতুন করে নেয়ার সুযোগ নেই। একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা আছে এমন ক্রিকেটাররাই অগ্রাধিকার পাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। অর্থাৎ আসন্ন বিশ্বকাপের দলে খুব বড় কোন চমক অপেক্ষা করছে না। শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এসব কথা বলেন ফারুক।

বিশ্বকাপে ভাল কিছু করার দারুণ এক অনুপ্রেরণা পেয়েছে বাংলাদেশ দল। চলতি মাসের প্রথম দিনে সফরকারী জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করেছে স্বাগতিকরা। তবে বিশ্বকাপে ভাল করাটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জের হবে দলের জন্য। কারণ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের ভিন্ন পরিবেশে খেলতে হবে এবার যার সঙ্গে ক্রিকেটারদের পরিচিতিটাই কম। দেশের মাটিতে নিজেদের সুবিধামতো স্পিনবান্ধব পরিবেশে খেলে জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে সফলতা এসেছে। কিন্তু বিশ্বকাপে থাকবে গতিময় উইকেট যার পেসারদের আনুকূল্য দেবে। তাই গতিময় বোলারদের আধিক্য রেখেই দল ঘোষণা করবেন নির্বাচকরা। চূড়ান্ত দলে থাকবেন চারজন কোয়ালিটি পেসার। প্রধান নির্বাচক ফারুক জানিয়েছেন জানুয়ারির শুরুতেই চূড়ান্ত করে ফেলা হবে দল। নিয়ম অনুসারে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কাছে অনুমোদনের জন্য নির্বাচিত ক্রিকেটারদের নাম পাঠানো হবে। সেখান থেকে স্বাক্ষর হয়ে আসার পরই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ফারুক। তবে বিশেষ কোন চমক অপেক্ষা করছে না বিশ্বকাপের দলে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘লীগ থেকে নতুন কাউকে নেয়ার কোন সুযোগ নেই। প্রাথমিক স্কোয়াডের বাইরে যেতে পারব না। যারা আমাদের চিন্তায় ছিল তাদের জিম্বাবুইয়ে সিরিজে পরখ করে দেখেছি আমরা। চূড়ান্ত স্কোয়াডে দুয়েকজন তরুণ থাকবে। তারাও ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজেদের চিনিয়েছে।’

দলে কারা থাকবেন তেমন একটা খসড়া ভাবনা ইতোমধ্যেই করে ফেলেছেন নির্বাচকরা। তবে সেক্ষেত্রেও চলমান প্রিমিয়ার ক্রিকেটের সুপার লীগে বাকি ম্যাচগুলোয় সম্ভাব্যদের পারফর্মেন্স পর্যবেক্ষণ করবেন ফারুক। চার পেসারের মধ্যে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা নিশ্চিতভাবেই থাকছেন। বাকি তিনজন হবেন কারা? সম্প্রতি রুবেল হোসেন এবং আল-আমিন ফারুকের দৃষ্টিতে প্রত্যাশিত নৈপুণ্য দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন। সে কারণে তরুণ এবং পুরনোদের দিকেই বেশি মনোযোগ নির্বাচকদের। এ বিষয়ে ফারুক বলেন, ‘তাসকিন আহমেদ, মোহাম্মদ শহিদ ও আবুল হাসান রাজু ভাল পারফর্ম করেছেন। ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছে শফিউলও। গত কয়েক মাসের দিকে তাকালে দেখা যাবে, আল আমিন ভাল খেলেছেন। তবে আইসিসির সন্দেহের নজরে পড়ে তার খেলা ব্যাহত হয়েছে। আশা করি, বর্তমানের বাজে সময়টা সে কাটিয়ে উঠবে। বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে আমরা ২ সপ্তাহের অনুশীলন ক্যাম্প করব। দেশে দুটি অনুশীলন ম্যাচও খেলা হবে। আশা করি, খেলোয়াড়রা নিজেদের সেরাটা দিতে পারবে।’ তরুণ উদীয়মান পেসার তাসকিন অভিষেক ম্যাচেই ঝড় তুলে ভারতের বিরুদ্ধে ৫ উইকেট শিকার করেছিলেন। কিন্তু ইনজুরির কারণে দীর্ঘদিন মাঠেই নামতে পারেননি। তবে চলমান প্রিমিয়ার লীগে সেটা কাটিয়ে উঠেছেন তিনি। পিঠের ইনজুরি কাটিয়ে ভাল বোলিংও করছেন। তবে চূড়ান্ত স্কোয়াডে হয়ত শেষ পর্যন্ত জায়গা নাও পেতে পারেন তরুণ লেগস্পিনার জুবায়ের হোসেন। ফারুকের কণ্ঠেই পাওয়া গেল আভাসটা, ‘জুবায়ের আমাদের চিন্তায় আছে। তবে কার্যকর স্কোয়াড গড়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কন্ডিশনের কথা চিন্তা করে আমাদের স্কোয়াড বানাতে হবে। দরকার মনে হলে আমরা তাঁকে ডাকব।’

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪

২৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: