কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কথা ও গানে মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী স্মরণ

প্রকাশিত : ২২ ডিসেম্বর ২০১৪
কথা ও গানে মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী স্মরণ
  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ওই দূর দূরান্তে/বন বনান্তে, নীল নীলান্তে/কিছু জানতে না জানতেই/শান্ত শান্ত মন অশান্ত হয়ে যায়- এমন অনেক জনপ্রিয় বাংলা গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী। তাঁর সুরভরা কণ্ঠে বিমোহিত হয়েছে হাজারও শ্রোতা। প্রয়াত এই কণ্ঠশিল্পীকে স্মরণ করা হলো রবিবার। শীতের সন্ধ্যায় তাঁকে নিবেদিত বিশিষ্টজনদের আলোচনা ও সঙ্গীত পরিবেশনার মাধ্যমে জানানো হয় শ্রদ্ধাঞ্জলি। জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে এ স্মরণানুষ্ঠানের আয়োজন করে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরাম।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রয়াত শিল্পীর স্ত্রী সুরাইয়া সিদ্দিকী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান শেলী। সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মোস্তফা জব্বার।

আয়োজনের শুরুতেই মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী ও সদ্যপ্রয়াত অভিনয়শিল্পী আবদুর রহমান মিন্টু স্মরণে পালন করা হয় এক মিনিটের নীরবতা। এরপর শুরু হয় আলোচনা। দ্বিতীয় পর্বে ছিল সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। সুরেলা সন্ধ্যায় মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর কণ্ঠে জনপ্রিয় হওয়া সঙ্গীত পরিবেশন করেন আবু বকর সিদ্দিক। গেয়ে শোনান বাঁশি বাজে ওই দূরে/চেনা কি অচেনা সুরে/এ লগনে মন মোর/কিছুতে যে রয় না ঘরে। এছাড়াও একক কণ্ঠে গান শোনান শাম্মী আখতার আজমী, ক্লোজআপের শিল্পী টুটুল, জাবিন

তাসমিন শুভ্রা, শেফালী, আবদুল হাফিজ ও নজরুল। তাঁদের পরিবেশিত কয়েকটি গানের শিরোনাম ছিল ‘দূর দূরান্তে’, ‘শোনো গো রূপসী ললনা’, ‘আমি কত রাত কতদিন ভেবেছি’, ‘কি যে ভুল করেছি’ ও ‘ছোট্ট একটি কথা’।

কবীর চৌধুরী শিশুসাহিত্য পুরস্কার ঘোষণা ॥ বাংলা একাডেমি পরিচালিত ২০১৪ সালের কবীর চৌধুরী শিশুসাহিত্য পুরস্কার লাভ করেছেন শিশুসাহিত্যিক মাহমুদউল্লাহ। শিশুসাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ তাঁকে এ পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। আগামী ২৬ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় বাংলা একাডেমির বার্ষিক সাধারণ সভায় পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখককে আনুষ্ঠানিকভাবে এ পুরস্কার প্রদান করা হবে। এ পুরস্কারের অর্থমূল্য এক লাখ টাকা।

মঞ্চায়িত শেক্সপিয়রের ‘ম্যাকবেথ’ ॥ রবিবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হলো পদাতিক নাট্য সংসদের ভিন্নধারার গল্পের নাটক ‘ম্যাকবেথ’। বিশ্বখ্যাত নাট্যকার উইলিয়াম শেক্সপিয়র রচিত ও সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক অনুদিত নাটকটির নির্দেশনায় ছিলেন সুদীপ চক্রবর্তী।

স্কটিশ সেনাপতি ম্যাকবেথ যুদ্ধ জয় করে ফিরে আসার পথে একদল রহস্যময় শক্তি তাদের পথরোধ করে ভবিষ্যদ্বাণী উচ্চারণ করে বলেছিলÑ ম্যাকবেথ হবে কডোর প্রধান ও পরে রাজা এবং ব্যাংকো হবে রাজার আদি পিতা। ম্যাকবেথের চিঠি পেয়ে লেডি ম্যাকবেথ বিস্তারিত জানতে পারে; তার ভেতরে জন্ম নেয় উচ্চাকাক্সক্ষা। ম্যাকবেথকে প্ররোচিত করে রাজা ডানকানকে হত্যার উদ্দেশ্যে। নিজবাড়িতে রাজাকে হত্যা করে সিংহাসনে বসেন ম্যাকবেথ। রাজা হত্যার দায় কৌশলে এড়াতে একে একে হত্যা করে ডানকানের দেহরক্ষীদ্বয়, ব্যাংকো ও ম্যাকডাফের স্ত্রী-সন্তানদের। বিভ্রান্ত ম্যাকবেথ ভুলে যান যে ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। লেডি ম্যাকবেথ অনুতাপে দগ্ধ ও অসুস্থ হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেন। ইংল্যান্ডের রাজার সহায়তায় নিজ রাজ্য পুনরুদ্ধারে ডানকান পুত্রদ্বয় ম্যালকম ও ডোনালবেইন ম্যাকবেথ বাহিনীকে পরাজিত করে এবং ম্যাকডাফের অস্ত্রের আঘাতে সমাপ্তি ঘটে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে থাকা স্বেচ্ছাচারী ম্যাকবেথের। এভাবেই এগিয়ে যায় নাটকটির কাহিনী।

বাফার পুরস্কার প্রদান ও নৃত্যানুষ্ঠান ॥ আন্তঃশাখা পুরস্কার ২০১৩ প্রদান উপলক্ষে রবিবার সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করে বাংলাদেশ একাডেমি অব ফাইন আর্টস (বাফা)। সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে চারুকলা, নৃত্যকলা, সৃজনশীল নৃত্য, উচ্চাঙ্গ নৃত্য, সাধারণ নৃত্য ও শিশুকণ্ঠ বিভাগের ৩১টি ক্যাটাগরিতে ১৭০ জন প্রতিযোগীকে পুরস্কৃত করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নৃত্যশিল্পী রাহিজা খানম ঝুনু। বিশেষ অতিথি ছিলেন অভিনেতা আহমেদ শরীফ।

প্রকাশিত : ২২ ডিসেম্বর ২০১৪

২২/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: