মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বিদ্রোহী ক্রিকেটারদের শাস্তির নতুন নিয়ম

প্রকাশিত : ১১ নভেম্বর ২০১৪
  • আইসিসির সভা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ রবি ও সোমবার দুবাইয়ে আইসিসির (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল) হেড কোয়ার্টারে হয়ে গেল বোর্ডসভা। চেয়ারম্যান এন শ্রীনিবাসন, প্রেসিডেন্ট আহম মুস্তাফা কামাল, প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসনসহ ক্রিকেট খেলুড়ে বিভিন্ন দেশের কর্তাব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। বেশ কিছু কারণে এই সভার দিকে তাকিয়ে ছিল ক্রিকেটবিশ্ব। বিশেষ করে আসন্ন বিশ্বকাপের (অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড) প্রাইজমানি, নিরাপত্তা ব্যবস্থা, বাজিকরদের দৌরাত্ম্য রোধে করণীয়, মোহাম্মদ আমির-সাঈদ আজমলদের মতো নিষিদ্ধদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত, বোলিং এ্যাকশন নিয়ে অবস্থান এবং কদিন আগে মধ্যপথে ভারত সফর বাতিল করায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলোয়াড় ও বোর্ডের সেই অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা, দুর্নীতি দমন আইনের সংশোধনী প্রস্তাব ইত্যাদি। এছাড়া আইসিসির পরবর্তী প্রেসিডেন্সি নির্বাচনে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) প্রধান নাজাম শেঠীর প্রার্থিতার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। আগামী ফেব্রুয়ারি-মার্চে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে যৌথভাবে বসবে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ১১তম আসর। গতবার বাংলাদেশ, ভারত শ্রীলঙ্কায় হয়ে যাওয়া বিশ্বকাপের সর্বমোট প্রাইজমানি ছিল ৮০ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার। শতকরা ২০ ভাগ বাড়িয়ে এবার তা করা হয়েছে ১ কোটি মার্কিন ডলার। শিরোপাজয়ী দল পাবে ৩৭ লাখ ৫০ হাজার, রানার্সআপ ১৭ লাখ ৫০ হাজার, সেমিফাইনালিস্ট ৬ লাখ ডলার করে। তবে হেরে গেলেও প্রতিটি দলের জন্য থাকবে নির্ধারিত পরিমাণ অর্থ। নিষিদ্ধ বোলারদের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানেই থাকছে আইসিসি। বোলিং এ্যাকশনে কনুইয়ের বাঁক অনুমিত ১৫ ডিগ্রীর বেশি হতে পারবে না। এ ব্যাপারে অটল আইসিসি। কিছুদিন আগে পাকিস্তানী তারকা স্পিনার সাঈদ আজমল নিষিদ্ধ হলে এ নিয়ে নতুন করে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এছাড়া নিষিদ্ধ হন বাংলাদেশে সোহাগ গাজী, নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসনসহ একাধিক আন্তর্জাতিক তারকা।

অন্যদিকে এ রিপোর্ট লেখার সময় নিশ্চিত হওয়া না গেলেও একাধিক সূত্রে জানা গেছে, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মদ আশরাফুলের মতো যেসব খেলোয়াড় ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে শাস্তি ভোগ করছেন, শাস্তির মেয়াদ শেষের কয়েকমাস আগেই তাদের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে দিতে নীতিগতভাবে রাজি আছে আইসিসি। বিশ্বজুড়ে ক্রিকেট দুর্নীতি রোধে আরও কঠোর হতে বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নেবে সংস্থাটি। ব্যাপকভাবে আলোচনায় এসেছে মধ্যপথে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভারত সফর। ভারতেরই বোর্ডপ্রধান আবার আইসসিসির সর্বেসর্বা শ্রীনিবাসন। সফর বাতিল করায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে আড়াইশ’ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়েছে ভারতীয় বোর্ড, সঙ্গে স্থগিত করেছে দ্বিপক্ষীয় সফর। ওয়েস্ট ইন্ডিজ বরাবরই বলে এসেছে, খেলোয়াড়দের বিদ্রোহের কাছে অসহায় হয়েই তারা সফর বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে।

নিজ দেশের বোর্ডের সঙ্গে ঝামেলার পর সিরিজ বাতিল করে ক্লাবের হয়ে খেলছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটাররা! এতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বারোটা বাজলেও পকেট ভারি হচ্ছে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারদের। ক্রিস গেইল, ড্যারেন ব্রাভো, মারলন স্যামুয়েলসদের এই নীতি আগামী দিনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিপদের মুখে দাঁড় করিয়েছে। ক্রিকেটের স্বার্থে আইসিসি তাই নড়েচড়ে বসল। নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, বোর্ডের চুক্তি ভেঙ্গে কোন ক্রিকেটার আন্তর্জাতিক সিরিজ বাতিল করলে তাদের শাস্তি দেয়া হবে। একই সঙ্গে বিদ্রোহী ওইসব ক্রিকেটারদের ক্লাব/কাউন্টি/ ফ্রাঞ্চাইজি চুক্তিও বাতিল করা হবে। অর্থাৎ, আইসিসির এই নিয়ম কার্যকর হলে ভারতের সিরিজ বাতিল করে দেশে ফেরা গেইল, ব্রাভো, পোলার্ডরা তুমুল জনপ্রিয় ভারতীয় ঘরোয়া টি২০ আইপিএল খেলতে পারবেন না! ইংলিশ কাউন্টি, আইপিএল, বিপিএল, বিগ ব্যাশে খেলে দেদার টাকা কামানোর রাস্তাও বন্ধ হয়ে যাবে। এক কথায় নিজ দেশের বোর্ডের বিরুদ্ধে গেলে কেবল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটই নয়, সব পথই রুদ্ধ হবে ক্রিকেটারদের।

প্রকাশিত : ১১ নভেম্বর ২০১৪

১১/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: