কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আইনস্টাইন ছাড়িয়ে!

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৬
আইনস্টাইন ছাড়িয়ে!

বিশ্বখ্যাত মেনসা সংস্থার আই কিউ পরীক্ষায় সেরার শিরোপা জিতল ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটেন নিবাসী ১১ বছরের মেয়ে কাশমিয়া ওয়াহি। পূর্ণমান ১৬২-র মধ্যে ১৬২-ই পেয়েছে সে। তার বুদ্ধিমত্তার তুলনা করা হচ্ছে আইনস্টাইন, স্টিভেন হকিংয়ের সঙ্গে। কাশমিয়া নিজেও আপ্লুত পরীক্ষার ফলাফলে। বলেছে, হকিং বা আইনস্টাইনের সঙ্গে তুলনায় আমি অভিভূত। তবে এটা অসম্ভব তুলনা। এদের সারিতে পৌঁছাতে গেলে আমাকে অনেক কিছু করতে হবে।’

কাশমিয়ার বাবা-মা উল্লসিত সন্তানের এই সাফল্যে। বলছেন, তাদের মেয়ে যে বুদ্ধি ও মেধায় শক্তিশালী একথা জানতেন তারা। এই মেধাকে যদি সঠিক পথে চালনা করা যায়, তাহলে সে সাফল্য পাবেই, এ ব্যাপারেও তারা নিশ্চিত।

কাশমিয়ার জন্ম ভারতের মুম্বাইয়ে। বাবা বিকাশ ওয়াহি এবং মা পূজা ওয়াহি পেশায় আইটি ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট। লন্ডনে ডয়েশ ব্যাঙ্কের সঙ্গে যুক্ত। নটিং হিল এ্যান্ড ইয়েলিং জুনিয়ার স্কুলের ছাত্র কাশমিয়া ছোটবেলা থেকেই তার মেধার পরিচয় রেখেছে।

গত বছর অক্সফোর্ডের ‘ম্যাথস চ্যালেঞ্জে’ সে তৃতীয় স্থান পাওয়ার পাশাপাশি জাতীয় স্তরের দাবা প্রতিযোগিতায় একাধিক বার পুরস্কৃত হয়েছে। মেনসøাকে বলা হয় পৃথিবীর সব থেকে পুরনো এবং সব থেকে বড় আইকিউ সংস্থা। আইকিউর পরীক্ষায় নির্ণীত দেশের সেরা ২ শতাংশ মানুষকে সদস্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয় মেনসা। কাশমিয়ার মেধা আরও দুর্লভ, যা দেশের এক শতাংশ মানুষের মধ্যে থাকতে পারে। ১৮ বছরের মধ্যে যাদের বয়স, তারা এই পরীক্ষায় করা মোট ১৫০টি সর্বোচ্চ ১৬২ নম্বর পেতে পারে। ১৮-ঊর্ধ ব্যক্তিরা পেতে পারেন ১৬১। বলা হয়ে থাকে, আইনস্টাইন এবং হকিং দুজনেরই বুদ্ধ্যঙ্ক বা আইকিউ ১৬০। সংস্থার মুখপাত্র জানিয়েছেন, কাশমিয়া সব থেকে কম বয়সের পরীক্ষার্থী হিসেবে এই পরীক্ষায় এত নম্বর পেয়েছে। অনলাইন অবলম্বনে

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৬

১১/০১/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: