আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফিরছেন আদনান বাবু

প্রকাশিত : ২৩ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘ও পরানের পাখিরে দিলি তুই ফাকিরে, শূন্য করলি খাঁচাটা’, ‘মৌচাক মার্কেটে হলো দেখা/ নিউমার্কেটে হলো পরিচয়’ এ রকম অসংখ্য গানের জনপ্রিয় শিল্পী আদনান বাবু। ১৯৯১ সালে প্রকাশিত ‘রং নাম্বার’ এ্যালবামের টাইটেল ট্র্যাক ‘রং নাম্বার টেলিফোনে, নাম না জানা কে বললো হ্যালো’ গানটির মাধ্যমে আলোচনায় আসেন আদনান বাবু। এরপর সঙ্গীতাঙ্গনের দুই যুগে আদনান বাবুর ৯টি একক এ্যালবাম প্রকাশ হয়। ব্যক্তিগত ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য সঙ্গীতে খুব বেশি একটা সময় দিতে না পারলেও নিয়মিতই বিভিন্নভাবে যুক্ত রয়েছেন সঙ্গীতাঙ্গনের সঙ্গে। টেলিভিশনের বিভিন্ন লাইভ শো’র পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিভিশনে দীর্ঘদিন ধরে সঙ্গীত বিষয়ক অনুষ্ঠান নির্মাণের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন আদনান বাবু। বর্তমানে আদনান বাবু একটি দ্বৈত গানের এ্যালবামের কাজে সময় দিচ্ছেন। এই এ্যালবামটির সুর ও সঙ্গীত করছেন খায়েম আহমেদ। চলতি বছরই এ্যালবামটি প্রকাশ হবে বলে আদনান বাবু জানিয়েছেন। জানা গেছে সম্প্রতি এক এ বিড়ম্বনার শিকার হয়েছেন এই শিল্পী। চলতি বছরের ২ এপ্রিল মিথ্যে পরিচয় দিয়ে স্কুল শিক্ষকদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগে আদনান বাবুকে গ্রেফতার করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এরপর প্রায় সপ্তাহখানেক পর তার গ্রেপ্তারের সংবাদটি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়। সম্প্রতি এ বিষয়ে বিব্রত আদনান বাবু মানহানির মামলা করারও প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি। এ প্রসঙ্গে নিজের অবস্থান তুলে ধরে আদনান বাবু বলেন, আমার এক দূর সম্পর্কিত আত্মীয় মোবারক হেসেনের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান (এমএইচ ইন্টারন্যাশনাল) রয়েছে, যেটি দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণ এবং সংস্কার কাজের সঙ্গে জড়িত। সম্প্রতি একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অভিযোগের ভিত্তিতে দুদক কর্মকর্তারা উক্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানে হাজির হন এবং ওই সময়ে আমি সেখানে উপস্থিত থাকার কারণে আমাকেসহ তারা সকলকে আটক করেন। প্রকৃতপক্ষে সেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ভবন নির্মাণ সম্পৃক্ত কোন কাজের বিষয়ে আমার আদৌ কোন সম্পর্ক নেই। এ বিষয়ে আমি ইতোমধ্যে সেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আমার মানহানি এবং ক্ষতিপূরণ বাবদ পঞ্চাশ লাখ টাকা প্রদানের জন্য মহানগর দায়রা জজ আদালতে মামলা দায়েরের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। আদনান বাবু আরও জানান, মামলার জন্য তার উকিল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তৈরি করছেন। খুব সত্বর মামলা দায়ের করা হবে বলে জানান তিনি। এ প্রসঙ্গে মোবারক হেসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি স্বীকার করে বলেন আদনান বাবু বিষয়টির সঙ্গে জড়িত নন। তাৎক্ষনিকভাবে সেখানে উপস্থিত থাকায় তিনি হয়রানির স্বীকার হয়েছেন এ জন্য আমি দু:খ প্রকাশ করছি। বিষয়টি নিয়ে আমরা আদনান বাবুর সঙ্গে মিমাংসার চেস্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি অচিরেই একটি সিদ্ধান্তে পৌছানো যাবে।

প্রকাশিত : ২৩ জুন ২০১৫

২৩/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: