রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইতিবাচক অনেক কিছু পেলাম ॥ মুশফিক

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অবশ্যই জয়ের জন্য খেলবে বাংলাদেশ। খুলনা টেস্টে প্রচ- চাপের মধ্যে থেকেও শেষ পর্যন্ত ড্র করতে পেরেছিল স্বাগতিকরা। এ কারণেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে নামার আগে এভাবেই বলেছিলেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। কিন্তু উল্টো ইনিংস পরাজয় হলো। সবাই নিজের মতো প্রচেষ্টা চালিয়েছে কিন্তু সেটা করে দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন ক্রিকেটাররা। মনোযোগের ঘাটতি না থাকলেও আত্মনিয়োগের অভাবটাই পরাজয়ের কারণ বলে মনে করেন মুশফিক। তবে এ সিরিজের ইতিবাচক দিকগুলো কাজে লাগিয়ে পরবর্তীতে ভাল করার প্রত্যয় জানালেন তিনি। ভারতের বিরুদ্ধে আগামী মাসে টেস্ট ম্যাচে ভাল করতে হলে বাংলাদেশের বোলিংয়ে উন্নতি করতে হবে বলে দাবি করলেন তিনি।

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন শেষ হতেই টস জিতে কেন বাংলাদেশ দল আগে ফিল্ডিং নিয়েছিলÑ সেই প্রশ্নটা ওঠে। সেই সঙ্গে মাত্র দুই পেসার নিয়ে খেলার সিদ্ধান্তটাও সমালোচিত হয়েছে। সে কারণেই কি এমন ভরাডুবি হলো দ্বিতীয় টেস্টে? এ বিষয়ে মুশফিক বলেন, ‘দুইজন পেসার তো না; আপনি যদি সৌম্যের কথা ধরেন তাহলে তো আমরা তিনজন পেস বোলার নিয়ে খেলেছি। এটা আমার দল নয়, কোচেরও দল নয়, কারোরই দল নয়; এটা বাংলাদেশ দল। এখানে সবার অধিকার আছে, সবার একটা ইনপুট থাকে। শেষপর্যন্ত সবাই যা ভাল মনে করেন সে সিদ্ধান্তই নেয়া হয়। টস জিতে আমরা ব্যাটিং না বোলিং কোনটা নেবÑ সেটাও আগে থেকেই ঠিক করা থাকে।’ মুশফিক যতই বলুন হার নিয়ে সমালোচনা হবেই। এ বিষয়ে মুশফিক বলেন, ‘এটা নতুন কিছু না। আমরা সব সময়ই এর মধ্য দিয়ে খেলে থাকি। এটা খুবই স্বাভাবিক। একটা সমস্যাই হয়েছে আমরা প্রত্যাশিত পারফর্মেন্স করতে পারিনি। সেজন্য দায়টা আমাদের সবার। আমরা নিজেদের ভাবমূর্তি অনুযায়ী এ টেস্ট খেলতে পারিনি। আমাদের মনোযোগ বা অন্য কিছুতে ঘাটতি ছিল না। এই ম্যাচে আমাদের নিবেদন কিছুটা হয়ত কম ছিল এ কারণেই নিজেদের খেলাটা আমরা মাঠে প্রয়োগ করতে পারিনি। এ সিরিজে ইতিবাচক অনেক কিছু পেলাম, তা আমরা পরের সিরিজে কাজে লাগাতে পারব।’

গত ৬-৭ মাস ধরে দুর্দান্ত খেলেছে বাংলাদেশ দল। এর শুরু হয়েছিল গত বছর জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে সিরিজ দিয়ে। এবার আগামী মাসে ভারতের বিরুদ্ধে আরেকটি সিরিজ ঘরের মাঠে। এ নিয়ে মুশফিক বলেন, ‘গত সাত মাস বাংলাদেশ যেমন ক্রিকেট খেলেছে এমন ধারাবাহিক ক্রিকেট হয়ত বাংলাদেশ খুব কমই খেলেছে। ব্যক্তিগতভাবে অনেকে হয়ত অনেক ভাল খেলেছে কিন্তু দল হিসেবে এমন খুব কমই খেলেছে। আমার মনে হয়, বদলের একটা কারণÑ ব্যক্তিগতভাবে সবাই আগের চেয়ে অনেক বেশি অনুশীলন করছে। সামনে দুটি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ আছে। র‌্যাঙ্কিংয়ের একটা ব্যাপার আছে, সেটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমার মনে হয় এখানে বোলাররা অনেক পিছিয়ে আছে। সে তুলনায় ব্যাটসম্যানরা অনেক উন্নতি করেছে। ভবিষ্যতে এটা আমাদের দেখতে হবে। জিততে হলে আমাদের বোলার লাগবে। তাদেরও শিখতে হবে পাঁচটা দিন কিভাবে ভাল বোলিং করা যায়, প্রতিপক্ষের ওপর চাপ প্রয়োগ করা যায়। আশা করি ব্যাটসম্যানরা আরও উন্নতি করবে এবং বোলাররা তাদের সঙ্গে তাল মেলাবে।’

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৫

১০/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: