মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সাঙ্গার মুকুটে আরেক পালক

প্রকাশিত : ৯ এপ্রিল ২০১৫
  • ইতিহাসের দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে উইজডেনের ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত লঙ্কান তারকা, প্রচ্ছদে শচীনের স্থলাভিষিক্ত মঈন আলি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ম্যাচের পর ম্যাচ, বছরের পর বছর ব্যাট হাতে গড়ছেন অনন্য সব কীর্তি। উইলোর ঝলকে দ্বীপদেশ লঙ্কান ক্রিকেটকে অন্য উচ্চতায় তুলে এনেছেন কুমার সাঙ্গাকারা। তার সম্মানের মুকুটে এবার যোগ হলো আরও এক পালক। ‘ক্রিকেটের বাইবেল’ খ্যাত ‘উইজডেন ক্রিকেটার্স এ্যালামনক’ ম্যাগাজিনের ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’-২০১৫ নির্বাচিত হলেন সাঙ্গাকারা। এর আগে ২০১২ সালে উইজডেনের ‘বর্ষসেরা এবং লিডিং’ দুই ভূমিকাতেই জায়গা হয়েছিল তার। ২০০৮ ও ২০০৯ সালে ভারতীয় ওপেনার বিরেন্দর শেবাগের পর দু’দুবার এই সম্মানে ভূষিত হওয়া দ্বিতীয় ক্রিকেটার সাঙ্গাকারা। সত্যি বিরল।

বিশ্বকাপ খেলে রঙ্গিন পোশাকের ওয়ানডেকে বিদায় জানানো ৩৭ বছর বয়সী সাঙ্গাকারা ২০১৪ সালে তিন ধরনের ক্রিকেটে রেকর্ড ২ হাজার ৮৬৮ রান করেন। এর মধ্যে রয়েছে টেস্টে একটি ট্রিপল সেঞ্চুরিও। গত বছর টি২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে ম্যাচসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জেতা সাঙ্গাকারা একই বছরে লর্ডসে সেঞ্চুরি হাঁকনি। ওই ম্যাচ জিতে টেস্ট সিরিজ জিতেছিল তার দল। ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে এবারের বিশ্বকাপে টানা চার ম্যাচে সেঞ্চুরির বিরল রেকর্ড গড়ের সাঙ্গাকারা। যা উইজডেন কর্তৃপক্ষকে প্রভাবিত করে। উইজডেন ক্রিকেটার্স এ্যালমানাকের সম্পাদক লরেন্স বুথ যেমনর বলেন, ‘সদ্য ক্রিকেটকে বিদায় জাননো ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারাকে ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত করাটা স্বাভাবিকই ছিল। বিশ্বকাপে তার টানা চার সেঞ্চুরি প্রমাণ করে আমরা সঠিক ব্যক্তিকেই বেছে নিয়েছি। আগামী দিনগুলোতে তাকে খুব মিস করব।’

১৮৮৯ সাল থেকে ‘উইজডেন ক্রিকেটার্স এ্যালমানাক’ ম্যাগাজিন প্রকাশের আগ পর্যন্ত প্রতিটি ইংলিশ মৌসুমের পারফর্মেন্স বিবেচনা করে পাঁচ ক্রিকেটারকে ‘উইজডেন ক্রিকেটার্স অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত করে আসছে। তবে ২০০৪ থেকে ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’-এর প্রবর্তন হয়। এবার সাঙ্গাকারার সঙ্গে ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার নারী দলের অধিনায়ক ম্যাগ ল্যানিং। এই প্রথম কোন নারী ক্রিকেটারকে এই পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হলো। এছাড়া এবার বর্ষসেরার জন্য নির্বাচিত হয়েছেন শ্রীঙ্কান অধিনায়ক এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, দুই ইংল্যান্ড জাতীয় দলের ক্রিকেটার মঈন আলি, গ্যারি ব্যালান্স এবং ইংলিশ ঘরোয়া লীগের পারফর্মার এ্যাডাম লিথ ও জিতেন প্যাটেল। অসাধারণ নৈপুণ্যের জন্য এবার উইজডেনের ১৫২তম সংখ্যার প্রচ্ছদের জায়গা করে নিয়েছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলি। শচীন টেন্ডুলকরের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন তিনি। এর আগে ২০১৪ সালের সর্বশেষ সংখ্যার প্রচ্ছদে স্থান পেয়েছিলেন ভারতীয় লিজেন্ড। নিয়ম অনুযায়ী ‘উইজডেন ক্রিকেটার্স অব দ্য ইয়ার’ হিসেবে কোন ক্রিকেটারকে ক্যারিয়ারে একবারই মনোনীত হন। তবে ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ারের’ ক্ষেত্রে এ নিয়ম প্রযোজ্য নয়। সাঙ্গাকারা একমাত্র ক্রিকেটার যিনি একবার ‘ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হয়েছেন এবং সঙ্গে দু’বার হয়েছেন ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’! ওয়ানডে ছাড়লেও লঙ্কান বোর্ড কর্তাদের অনুরোধে আরও কিছুদিন টেস্ট খেলে যাবেন ক্লেসিক্যাল এই ব্যাটসম্যান।

প্রকাশিত : ৯ এপ্রিল ২০১৫

০৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: