কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বার্সিলোনা ও জুভেন্টাস কোয়ার্টার ফাইনালে

প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৫
  • উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ, ম্যানসিটি ও ডর্টমুন্ডের বিদায়, মেসির প্রশংসায় বার্সা কোচ লুইস এনরিকে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে স্বাগতিক ম্যানচেস্টার সিটিকে প্রথম লেগের ম্যাচে ২-১ গোলে হারিয়েই কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছিল বার্সিলোনা। বুধবার রাতে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে ন্যুক্যাম্পেও জয় পেয়েছে কাতালানরা। এবার বার্সা ১-০ গোলে ধরাশায়ী করেছে সিটিকে। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-১ গোলের জয় নিয়ে প্রত্যাশিতভাবেই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেরা আটে নাম লিখিয়েছে বার্সিলোনা। আর টানা হারের জ্বালা নিয়ে আসর থেকে বিদায় নিতে হয়েছে ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটিকে।

আরেক ম্যাচে জার্মান ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে বিধ্বস্ত করে শেষ আটের টিকেট পেয়েছে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। পরশু রাতে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে ডর্টমুন্ডের সিগন্যাল ইদুনা পার্কে স্বাগতিকদের ৩-০ গোলে হারায় অতিথি জুভেন্টাস। বিজয়ী দলের হয়ে জোড়া গোল করেন আর্জেন্টাইন তারকা কার্লোস তেভেজ। অপর গোলটি করেন আলভারো মোরাটা। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-১ গোলের বিশাল জয় পেয়েছে জুভেন্টাস। এর আগে প্রথম লেগের ম্যাচে জুভেন্টাস জিতেছিল ২-১ গোলে। ওই ম্যাচেও গোল করেছিলেন তেভেজ ও মোরাটা।

বার্সিলোনা ও জুভেন্টাসের মধ্য দিয়ে ২০১৪-১৫ মৌসুমের শেষ আটের দলগুলো চূড়ান্ত হয়েছে। এর আগে কোয়ার্টার নিশ্চিত করা ছয় দল হলোÑ এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, রিয়াল মাদ্রিদ, বেয়ার্ন মিউনিখ, মোনাকো, প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন ও পোর্তো। শেষ আটে কোন দল কার বিরুদ্ধে খেলবে তা জানা যাবে আজ। কেননা আজই কোয়ার্টার ফাইনালের ড্র অনুষ্ঠিত হবে। আগের লেগে জয় পাওয়ায় ফুরফুরে মেজাজেই ঘরের মাঠে খেলতে নেমেছিল বার্সা। মাত্র এক গোলে জয় পেলেও পুরো সময় আধিপত্য বিস্তার করে খেলে লুইস এনরিকের দল। চারবারের চ্যাম্পিয়দের আক্রমণ রুখতে হিমশিম খেতে হয় অতিথি সিটির রক্ষণভাগকে। ভিনসেন্ট কোম্পানি ও মার্টিন ডেমিচেলিসদের ভুলে শুরু থেকেই দুর্বার হয়ে ওঠেন মেসি, নেইমাররা। ভাগ্য সহায় থাকলে ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত স্বাগতিকরা। কিন্তু নেইমারের ডান পায়ের শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। ম্যাচের ৩১ মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সা। গোলটিতে অসাধারণ অবদান রাখেন মেসি। দুইজনের বাধা এড়িয়ে আর্জেন্টিনা অধিনায়কের দেয়া মাপা ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে ডান পায়ের আলত টোকায় এগিয়ে আসা গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার ইভান রাকিটিচ।

বিরতির পরও সিটির রক্ষণে চাপ ধরে রাখে বার্সিলোনা। একের পর এক আক্রমণ শাণাতে থাকে তারা। কিন্তু মিসের মহড়ার কারণে আর গোল বাড়ানো সম্ভব হয়নি। ম্যাচের ৭৭ মিনিটে ম্যাচে ফেরার সহজ সুযোগ পেয়েও হাতছাড়া করে সিটি। স্বাগতিক ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে প্রতিপক্ষের সার্জিও এ্যাগুয়েরোকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় অতিথিরা। নিজেই শট নেন এই আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। কিন্তু তার শট রুখে দেন বার্সা গোলরক্ষক। ম্যাচের শেষ দিকে গোল করার একাধিক সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি বার্সা। ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনির দলের হারের ফলে ইউরোপ সেরার লড়াইয়ের এবারের আসরে আর কোন ইংলিশ ক্লাব থাকল না। গ্রুপ পর্বে লিভারপুলের বিদায়ের পর সেরা ষোলো থেকে একে একে ছিটকে পড়েছে চেলসি, আর্সেনাল ও ম্যানচেস্টার সিটি।

ম্যাচ শেষে দলের পারফর্মেন্সে সন্তেুাষ প্রকাশ করেন বার্সা কোচ লুইস এনরিকে। তিনি বলেন, এ ধরনের ম্যাচে এমন আধিপত্য দেখা যায় না। আমরা প্রচুর গোলের সুযোগ সৃষ্টি করেছি। কিন্তু সেই সুযোগ গোলে পরিণত করতে পারিনি। সিটি গোলরক্ষক জো হার্টের প্রশংসা করতেই হয়। সে অসাধারণ খেলেছে। জিতে আমি সন্তুষ্ট। কিন্তু স্কোর লাইনটা একটু বড় করতে পারলে তৃপ্তিটা আরও বেশি লাগত। মেসির প্রশংসা করে তিনি বলেন, মেসি বিশ্বের সেরা ও ফুটবল ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়। পরিষ্কারভাবেই মেসির থাকাটা আমাদের জন্য বড় পাওয়া। আমরা উচ্ছ্বসিত। আর এটা আমরা কখনও লুকোনোর চেষ্টাও করিনি।

প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৫

২০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: