কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জ্বালানি তেলের দাম আরও কমে ৪২ ডলার

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ জ্বালানি তেলের দাম আরও কমেছে। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ব্যারেল প্রতি অপরিশোধিত তেলের দাম ৪ শতাংশ পর্যন্ত কমে দাঁড়ায় ৪২ দশমিক ৮৫ মার্কিন ডলার। ২০০৯ সালের মার্চের পর এই দাম সবচেয়ে কম। অর্থাৎ গত ৬ বছরের মধ্যে এখন সবচেয়ে কম দামে বিক্রি হয়েছে জ্বালানি তেল।

মার্কিন সংবাদ মাধ্যম সিএনএনমানি এক খবরে জানিয়েছে, গত ৫ দিন ধরেই এই দরপতন অব্যাহত রয়েছে। আগামীতে দাম আরও কমে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, এই দাম ব্যারেল প্রতি ৩০ ডলারে নেমে আসতে পারে।

এদিকে তেলের দাম কমে যাওয়ার খবরে গত কয়েক মাসে যুক্তরাষ্ট্রে যেসব গাড়িচালক ৫০-৫৫ ডলারে তেল কিনেছিলেন তাদের ঠোঁটের কোণে হাসি জেগে উঠছে। শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, তেলের দাম কমার খবরে বিশ্বের সব গাড়িচালকের মুখে হাসি ফুটে ওঠা স্বাভাবিক বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, এক মাস আগেও তেলের দাম যে আবার কমে আসবেÑ এ বিষয়ে বলাবলি করছিল লোকজন। বিশ্লেষকরা আশা করছেন, আগামীতে তেলের দাম আরও কমে ব্যারেল প্রতি ৪০ মার্কিন ডলার বা তার নিচে ঠেকতে পারে।

ওয়েল প্রাইস ইনফরমেশন সার্ভিসের প্রধান তেল বিশেষজ্ঞ টম ক্লোজা বলেন, আমি মনে করি, বাজারে তেলের দাম ৩০ ডলারের কাছাকাছি থাকবে।

সিএনএনমানির খবরে আরও জানানো হয়, বিশ্বে এখন পর্যাপ্ত তেল রয়েছে। তেলের অতিরিক্ত সরবরাহ থাকার কারণে ব্যারেল প্রতি তেলের দাম ১০০ ডলার থেকে নেমে আসে ৫০ ডলারে। গত সোমবার এই দাম ছিল ৪৩ ডলারের কাছাকাছি।

প্রসঙ্গত, একদিকে ওপেক তাদের তেলের উৎপাদন না কমানোর সিদ্ধান্তে অটল রয়েছে। অন্যদিকে পাওয়ার প্লেয়ার বলে খ্যাত সৌদি আরবও তেলের উৎপাদন কমানোর কোন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে না। ফলে অনেকটা স্পষ্ট, কেন বিশ্ববাজারে তেলের চাহিদা কম বা আরও কমতে পারে।

এর আগে গত মাসের শেষদিকে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিবিদ ও কলামিস্ট গ্যারি শিলিং বিশ্ববাজারে তেলের দাম আরও কমতে পারে বলে পূর্বাভাস দেন।

আধুনিক রাডার স্থাপনে অনুদান দিচ্ছে জাপান

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দুর্যোগ মোকাবেলায় ঢাকায় এবং রংপুরে আধুনিক রাডার স্থাপনে অনুদান দিচ্ছে জাপান। এ জন্য প্রায় ১ কোটি ৮২ লাখ টাকার অনুদান চুক্তি এবং বিনিময় নোট স্বাক্ষরিত হয়েছে। বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মেজবাহউদ্দিন এবং জাপান সরকারের পক্ষে রাষ্ট্রদূত সিরো সাদোসিমা বিনিময় নোট এবং জাইকার পক্ষে প্রধান প্রতিনিধি মিকিও হেতেয়াদা। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, মূল প্রকল্পটি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর বাস্তবায়ন করবে। এর মাধ্যমে ঢাকার গাজীপুর ও রংপুরে অবস্থিত আবহাওয়া রাডার সিস্টেমের আধুনিকায়নসহ রাডার দুটিকে অত্যাধুনিক ডপলার রাডার দ্বারা প্রতিস্থাপন করা হবে, যার মাধ্যমে প্রাপ্ত আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণপূর্বক মারাত্মক দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার আগাম সতর্কতা জারিসহ এর পূর্বাভাস প্রদানের সক্ষমতার উন্নয়ন ও শক্তিশালীকরণ করা হবে। কিন্তু বর্তমানে উপস্থাপিত ডিটেইলড ডিজাইন অংশটির দ্বারা শুধুমাত্র মূল প্রকল্পের বিস্তারিত নকশা প্রণয়ন করা হবে।

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৫

১৯/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: