কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০১৫
  • বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ২৯ জানুয়ারি থেকে মাঠে গড়াচ্ছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টের গ্রুপিং নির্ধারিত না হলেও তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) একটি সূত্র জানিয়েছে বাংলাদেশের গ্রুপে থাকবে মালয়েশিয়া এবং শ্রীলঙ্কা। আর উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা আছে স্বাগতিক বাংলাদেশ-মালয়েশিয়ার। বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে উন্মোচিত হবে টুর্নামেন্টের লোগো। লোগো উন্মোচন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। সেখানেই ঠিক হবে টুর্নামেন্টের সূচী। বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিনের ব্যক্তিগত চাওয়া হচ্ছেÑ বাংলাদেশ যেন উদ্বোধনী ম্যাচ খেলে। এ প্রসঙ্গে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন, ‘টুর্নামেন্টের ড্র অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ জানুয়ারি। সেখানেই হবে টুর্নামেন্টের ফিকশ্চার। ড্র অনুযায়ী আমরা ৬ দলকে ২টি গ্রুপে বিভক্ত করব। সিলেটে ৩টি ম্যাচ এবং একটি সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। টুর্নামেন্টের ফাইনাল হবে ৮ জানুয়ারি।’ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর বাংলাদেশে আসা এবং তাদের আবাসন প্রসঙ্গে সোহাগ বলেন, ‘আমরা একমাত্র বাহরাইন ছাড়া সব দলকে জানিয়েছি তারা যেন ২৭ জানুয়ারিতে ঢাকায় চলে আসে। বাহরাইন এশিয়া কাপ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় তারা ৩১ জানুয়ারির আগে আসতে পারবে না। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলের খেলোয়াড়দের ঢাকায় রাখা হবে হোটেল সোনারগাঁওয়ে এবং সিলেটে রোজভিওতে।’ ম্যাচ অফিসিয়ালদের থাকার ব্যবস্থা করা হবে অন্য কোন হোটেলে। কোন হোটেলে রাখা হবে তা এখনও নির্ধারিত হয়নি। তবে তাদের যে কোন একটি পাঁচতারা হোটেলেই রাখার ব্যবস্থা করবে বাফুফে।

দেশের বর্তমান প্রতিকূল রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে আমন্ত্রিত দেশগুলোর নিরাপত্তা কেমন হবে? সোহাগের জবাব, ‘এ বিষয়টি নিয়ে দুই-এক দিনের মধ্যেই আমরা একটি সাংগঠনিক কমিটি গঠন করব। সে কমিটির অধীনে বেশ কয়েকটি উপ-কমিটি থাকবে। তারাই নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন বিষয় দেখভাল দেখবে।’

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ম্যাচগুলো যেন ফিফা আন্তর্জাতিক ম্যাচের স্বীকৃতি পায়, সে চেষ্টা করছে বাফুফে। বিষয়টির কতদূর অগ্রগতি হয়েছে? এ প্রসঙ্গে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যেহেতু আমাদের টুর্নামেন্টের তারিখ আবারও পিছিয়েছে, তাই আমরা আবারও টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে আবারও ফিফার নির্ধারিত ফরমটি পাঠিয়েছি। তবে এখন পর্যন্ত কোন ক্লাব ফরমটি পূরণ করে আমাদের কাছে পাঠায়নি।’ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ম্যাচগুলো ফিফা আন্তর্জাতিক ম্যাচের স্বীকৃতি পেলে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর র‌্যাঙ্কিংয়েও প্রভাব ফেলবে। টুর্নামেন্টের প্রাইজমানি থাকছে কি না? থাকলে সেটি কত? টুর্নামেন্টের ট্রফিটির ডিজাইন কেমন হবে? এ বিষয়গুলো আজ জানা যাবে বলে জানিয়েছেন বাফুফে সাধারণ সম্পাদক। টুর্নামেন্ট শুরু হতে মাত্র ১৪ দিন বাকি থাকলেও এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দলের দায়িত্ব নিতে ঢাকায় এসে পৌঁছাননি ডাচ্ কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফ। ক্রুইফের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল তিনি তাঁর বকেয়া পেলে তবেই ঢাকায় আসবেন। জানা গেছেÑ ইতোমধ্যেই ক্রুইফের বকেয়া পাওনার প্রায় ৮০ ভাগই তাঁর কাছে পাঠিয়ে দিয়েছে বাফুফে। বাকি ২০ ভাগ পরিশোধ করতেও বাফুফের পক্ষ থেকে কোন ধরনের সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন বাফুফে সাধারণ সম্পাদক। এই ২০ ভাগ টাকা আটকে আছে ব্যাংকের বিভিন্ন প্রক্রিয়ার কারণে। ক্রুইফ আসলে কবে আসছেন তা আজ অথবা কাল ঠিক করে জানাবে বাফুফে।

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০১৫

১৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: