কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

শিল্পমন্ত্রীর ওয়াল্টন কারখানা পরিদর্শন

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশীয় শিল্প বিকাশে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা দেবে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। তিনি বলেন, নতুন যে শিল্পনীতি করা হচ্ছে তাতে দেশীয় শিল্প আরও সম্প্রসারণ হবে। বাড়বে অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগ। এতে করে ব্যাপক কর্মসংস্থানের পাশাপাশি উৎপাদিত পণ্য বিদেশে রফতানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব হবে।

শুক্রবার গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়াল্টনের কারখানা পরিদর্শন শেষে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান এসএম শামসুল আলম ও পরিচালক এসএম রেজাউল আলম। এছাড়া প্রতিষ্ঠানটির উর্ধতন কর্মকর্তারা সে সময় উপস্থিত ছিলেন। শিল্পমন্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন উৎপাদন ইউনিট ঘুরে দেখছেন। তিনি ফ্রিজ, টেলিভিশন, এয়ারকন্ডিশনার, মোটরসাইকেল ইত্যাদি পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছেন। পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী নতুন মডেলের একটি ফ্রিজের বিপণন কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। শিল্পমন্ত্রী বলেন, ইলেক্ট্রনিক্স ও অটোমোবাইল শিল্পে বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়ায় এখন আর এসব পণ্য আমদানি করতে হয় না। দেশের চাহিদা মিটিয়ে এখন বিদেশেও রফতানি হচ্ছে এসব পণ্য।

ঈশ্বরদী রেলজংশনে দুই প্রকল্প

স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ শতবর্ষী ঈশ্বরদী রেলজংশন স্টেশনইয়ার্ড ও স্টেশন বিল্ডিং রি-মডেলিংয়ের কাজ অচিরেই শুরু হবে। এসব কাজ হবে এশিয়ান উন্নয়ন ব্যাংকের আর্থিক সহযোগিতায়। ইতোমধ্যে ইয়ার্ডের রেললাইন উন্নয়নের প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে। ঈশ্বরদী জংশন স্টেশন ইয়ার্ডের কাজ ২০১৫ সালেই সম্পন্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পরবর্তীতে কনসালটেন্ট নিয়োগসহ যাবতীয় প্রক্রিয়া শেষ হলেই স্টেশন বিল্ডিংরি-মডেলিংয়ের কাজ শুরু হবে। দুটি প্রকল্পের কাজ শেষ হলে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও একমাত্র আন্তঃদেশীয় ট্রেন এই ত্রিমুখী স্টেশন দিয়ে চলাচল করবে। দেশের উত্তর-দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলসহ সব অঞ্চলের ট্রেন চলাচল করবে এই স্টেশন দিয়ে। জয়দেবপুর, খুলনা ও পার্বতীপুরের মধ্যেও ডাবল লাইন নির্মাণ করা হবে।

সোনারগাঁও টেক্সটাইলে লে-অফ ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ তুলা না পাওয়ার অজুহাতে লে-অফ ঘোষণা করা হয়েছে বরিশালের খান সন্স গ্রুপের প্রতিষ্ঠান সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলস। শনিবার সকালে আকস্মিকভাবে প্রকল্প পরিচালক স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তি মিলের গেটে টানিয়ে দেয়ার পর কর্মরত সহস্রাধিক শ্রমিক হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। কর্মরত ইঞ্জিনিয়ার জালাল আহমেদ জানান, তারা তুলা থেকে সুতা উৎপাদন করেন। তুলা না পাওয়ায় তারা তিন দিনের জন্য (১৩ জানুয়ারি পর্যন্ত) মিলটি লে-অফ ঘোষণা করেছেন। ইতোমধ্যে কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের পাওনা বুঝিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেন, কাঁচামাল পাওয়া গেলে ফের মিলটি চালু করা হবে। তবে এ বিষয়ে খান সন্স গ্রুপের কোন কর্মকর্তারাই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

১১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: