মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

কোহলি-রাহুলের সেঞ্চুরি লড়ছে ভারত

প্রকাশিত : ৯ জানুয়ারী ২০১৫
কোহলি-রাহুলের সেঞ্চুরি লড়ছে ভারত
  • তৃতীয় দিনশেষে সিডনি টেস্টে অসিরা এগিয়ে ২৩ রানে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আরেকটি শতক হাঁকালেন বিরাট কোহলি এবং এখন পর্যন্ত লড়েই যাচ্ছেন অপরাজিত থেকে। এনিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চলতি টেস্ট সিরিজে চতুর্থ শতক তাঁর। সিডনিতে চলমান চতুর্থ ও শেষ টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে করা ৭ উইকেটে ৫৭২ রানের জবাবে তৃতীয় দিনশেষে তাঁর এবং লোকেশ রাহুলের জোড়া শতকে ৫ উইকেটে ৩৪২ রান তুলেও চাপ কাটাতে পারেনি সফরকারী ভারতীয় দল। এখনও পিছিয়ে আছে তারা ২৩০ রানে। আগের দিনের ১ উইকেটে ৭১ রানের সঙ্গে আরও ২৭১ রান যোগ করতে চারটি উইকেট হারিয়েছে ভারত। রাহুল ১১০ রানে ফিরে গেলেও ব্যাট করছেন কোহলি ১৪০ রানে। তাঁকে সঙ্গ দিচ্ছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহা ১৪ রান নিয়ে।

দ্বিতীয় দিনশেষে ৩১ রান নিয়ে রাহুল এবং ৪০ রান নিয়ে রোহিত শর্মা ক্রিজে ছিলেন। তবে রোহিত বেশিদূর যেতে পারেননি। ৫৩ রান করার পরই তাঁকে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন পেসার মিচেল স্টার্ক। তবে এরপর রাহুল-কোহলি জুটি দীর্ঘক্ষণ ক্রিজ আঁকড়ে থাকেন। তৃতীয় উইকেটে ১৪১ রানের জুটি গড়েন তাঁরা। অবশ্য এ দু’জনের জুটি বড় হওয়ার পেছনে অস্ট্রেলিয়ার ফিল্ডিংয়ে দুর্দশাই দায়ী। রাহুল ৪১, ৪২ ও ৪৬ রানে টানা তিনটি সহজ সুযোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর ক্যাচ ছেড়ে দিয়েছেন অসি ফিল্ডাররা। আর সে কারণেই তাঁকে আর সেঞ্চুরির আগে থামাতে পারল না অস্ট্রেলিয়ান বোলাররা। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নেমেই এ ওপেনার পেয়ে গেলেন প্রথম টেস্ট শতক। ২৬২ বলে ১৩ চার ও ১ ছক্কায় ১১০ রান করে স্টার্কের বলে তাঁকেই ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান রাহুল। তবে ততোক্ষণে কোহলি তাঁকে সঙ্গে নিয়ে বিপদ কাটিয়েছেন বেশ ভালভাবেই। ভারতীয় দলের জন্যও পরিস্থিতিটা শিথিল হয়ে যায়। আজিঙ্কা রাহানে ক্রিজে এসে সুস্থিরভাবে খেলে সঙ্গ দিয়ে গেছেন কোহলিকে। তাঁকে নিয়ে চতুর্থ উইকেটে আরও ৫৪ রান যোগ করেন কোহলি। ৫৯ রানের সময় সিøপে সহজ একটি ক্যাচের সুযোগ দিয়েছিলেন তিনি। সে সুযোগ হাতছাড়া করার মাশুল দিতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের। দিনের পুরোটা সময় কোহলি তাঁর আক্রমণাত্মক মেজাজের ব্যাটিং চালিয়ে গেছেন। করেছেন ক্যারিয়ারের দশম টেস্ট শতক। বেশ দৃঢ় অবস্থানেই এগিয়ে যাচ্ছিল ভারতীয় দল। তবে রাহানে বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি। ব্যাট হাতে ফর্মে ফিরে ৮১ রান করা অলরাউন্ডার শেন ওয়াটসন এবার বল হাতেও ম্যাজিক দেখান। পরপর দুই বলে তিনি রাহানে (১৩) ও সুরেশ রায়নাকে (০) ফিরিয়ে দিয়ে হ্যাটট্রিকের সুযোগও সৃষ্টি করেছিলেন। ফলে আবারও বিপদের মুখে পতিত হয় ভারতীয় দল।

অধিনায়ক কোহলি একপ্রান্তে ঠিকই নিজেকে শান্ত রেখেছিলেন। দুই ব্যাটসম্যান টানা ফিরে গেলেও তাঁর মানসিক দৃঢ়তায় চিড় ধরাতে পারেননি অসি বোলাররা। দিনের বাকিটা সময় ঋদ্ধিমানকে সঙ্গে নিয়ে নির্বিঘেœই শেষ করেছেন তিনি। আর কোন বিপদ ঘটতে দেননি এ তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। অবসর নিয়ে ফেলা অধিনায়ক উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনির অভাবটাও আপাতত বুঝতে দেননি তিনি। শম্বুক গতিতে ব্যাট চালিয়ে তিনি ৫০ বল খেলে মাত্র ১৪ রান করলেও ক্রিজে টিকিয়ে রেখেছেন নিজেকে। এর আগেই অবশ্য রাহানে ক্রিজে থাকতেই চলতি সিরিজে ফর্মের তুঙ্গে থাকা কোহলি আরেকটি শতক হাঁকান। দিনশেষে ২১৪ বলে ২০ চারে ১৪০ রান নিয়ে এখনও ব্যাট করছেন তিনি। ষষ্ঠ উইকেটে ইতোমধ্যেই যোগ হয়েছে ৫০ রান।

চলতি সিরিজে এখন পর্যন্ত চার শতক হাঁকানো কোহলির রান ১০৬.৫০ গড়ে ৬৩৯। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে কোন সিরিজে ভারতীয় কোন ব্যাটসম্যানের পক্ষে সর্বাধিক রান এখন তাঁর। এর আগে রাহুল দ্রাবিড় অসি ভূমিতে এক সিরিজে করেছিলেন ৬১৯।

প্রকাশিত : ৯ জানুয়ারী ২০১৫

০৯/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: