মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আবাহনী-মোহামেডান লড়াই আজ

প্রকাশিত : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৪

মিথুন আশরাফ ॥ আবাহনী-মোহামেডানকে সবসময় ‘চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী’ দল হিসেবেই ধরা হয়। কিন্তু এখন মাঠের বাইরে কিংবা মাঠের ভেতর কোন স্থানেই নেই সেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা! আর পাঁচ-দশটা ম্যাচের মতোই এ দুই দলের ম্যাচও হয়। আজ ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে যখন এই দুই দল ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগের সুপার লীগে মুখোমুখি হবে, তখনও কি আমেজহীন একটি ম্যাচই সবার ধারণায় জন্ম নিচ্ছে না? মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামেও কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমি-প্রাইম দোলেশ্বর ম্যাচটিও আমেজহীন থাকারই সম্ভাবনা থাকছে। এই দুই ম্যাচের চেয়ে বরং বিকেএসপিতে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ও লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের ম্যাচের দিকেই সবার দৃষ্টি থাকছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতার গন্ধও মিলে যাচ্ছে। তবে এ ম্যাচটিতে এমনকি সুপার লীগেই আর খেলতে পারবেন না ইনজুরিতে থাকায় বাংলাদেশ ওপেনার তামিম ইকবাল।

অথচ ২০০৯ সালের ২১ ডিসেম্বরের স্মৃতি এখনও আবাহনী-মোহামেডান সমর্থকদের কাছে কী জ্বলন্ত। ম্যাচটিতে মোহামেডানের জিততে ৪ রান দরকার। বল হাতে আছে একটি। এমন মুহূর্তে খালেদ মাসুদ পাইলট বাউন্ডারি হাঁকিয়ে মোহামেডানকে জিতিয়ে দিলেন। মোহামেডান চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেল! মোহামেডান ক্রিকেটার ও সমর্থকরা সে কী উল্লাস করছেন। আরেকদিকে আবাহনীর সমর্থকরা ড্রেসিংরুমে ঢুকে যাচ্ছেন। আবাহনীর অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের দিকে তেড়ে যাচ্ছেন। যেন হাতের নাগালে পেলেই সাকিবের ওপর চড়াও হবেন। কী উত্তেজনা ম্যাচকে ঘিরে। কী উত্তেজনা ক্রিকেটার, কর্মকর্তা, সমর্থকদের মধ্যেও! সেই সব এখন আর দেখা মিলে না। মাঠের বাইরেই যে আবাহনী-মোহামেডান কর্মকর্তারা এখন বন্ধু। তাই মাঠের ভেতরও নেই কোন উত্তাপ। তবে সুপার লীগে উত্তাপ মিলবে। দিন যত যেতে থাকবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার হিসেবনিকেশ মিলে যাবে। সেই শিরোপা ছোঁয়ার স্বাদের সামনে এখন আছে ৬ দল। যে দলগুলো শিরোপা নিজেদের করে নিতে চায়। আবাহনী লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব, কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমি, প্রাইম দোলেশ্বর, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব সুপার লীগে খেলবে। এবার লীগের শিরোপা জেতার প্রত্যাশা এ ছয় দলেরই। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হওয়া শুরু হয়ে যাবে আজ। শিরোপা জেতার জন্য সুপার লীগের লড়াইয়ে নামতে হবে দলগুলোকে। দলগুলোর আশা যে করেই হোক লীগের শিরোপা নিজেদের করে নিতে হবে। সেই আশা পূরণ করতে আজ থেকে ছয়টি দলকেই মাঠে নেমে যেতে হচ্ছে। প্রতিটি দলই ৫টি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। ৬ দলের মধ্যে এখন কোন দল চ্যাম্পিয়ন হতে পারে সেটিই দেখার বিষয়। এবার চ্যাম্পিয়ন হবে কে? লীগের ৫টি রাউন্ড শেষ হলেই তা বোঝা যাবে। তবে চারটি রাউন্ড শেষেও সেই ফয়সালা হয়ে যেতে পারে। যদি আবাহনী কোন ম্যাচেই না হারে। দলটির পয়েন্ট যে এখন সবচেয়ে বেশি ১৮। শিরোপা জয়ের ক্ষেত্রে প্রাইম ব্যাংকও আবাহনীর সঙ্গেই অবস্থান করছে। দলটিরও পয়েন্ট ১৮। এ দুই দল পয়েন্ট তালিকায় সবার উপরেই অবস্থান করছে। শিরোপা জেতার সম্ভাবনা রয়েছে এ দুই দলেরই। তবে পরের চারটি স্থানে থাকা কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমি, প্রাইম দোলেশ্বর, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ও মোহামেডানেরও শিরোপা জেতার সুযোগ থাকছে। সেক্ষেত্রে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হবে। প্রতিটি ম্যাচই জিততে হবে। একটি ম্যাচ হারলেই শিরোপা থেকে ছিটকে পড়তে থাকবে। চার দলেরই পয়েন্ট যে সমান ১৪ করে। আবাহনী, প্রাইম ব্যাংকের সঙ্গে পয়েন্ট পার্থক্য বিস্তর দলগুলোর। এ চার দলের শিরোপা জেতা কঠিন। জিততে হলে যে প্রথম শর্ত থাকবে কোন ম্যাচ হারা যাবে না। দ্বিতীয় শর্ত, আবাহনী ও প্রাইম ব্যাংককে অন্তত দুটি ম্যাচ হারতে হবে। তখন পয়েন্ট সমান হবে। কিন্তু এর বিপরীত ঘটলে অর্থাৎ আবাহনী, প্রাইম ব্যাংক অন্তত একটি ম্যাচ হেরে সুপার লীগ শেষ করলে তৃতীয় থেকে ষষ্ঠ স্থানে থাকা দলগুলোর শিরোপা জেতার স্বপ্ন শেষ হয়ে যাবে। তখন এ দুই দলের মধ্যে যে দলটি সবচেয়ে বেশি জেতার সঙ্গে ‘হেড টু হেডে’ এগিয়ে থাকতে পারবে, তারাই হবে চ্যাম্পিয়ন।

প্রকাশিত : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৪

২৪/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: